এবার নুসরাতের পথেই হাঁটলেন নিখিল!
jugantor
এবার নুসরাতের পথেই হাঁটলেন নিখিল!

  অনলাইন ডেস্ক  

০৫ মার্চ ২০২১, ১৫:৩৩:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহান এখন আর স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে থাকছেন না।

গত কয়েক মাস ধরে আলাদা থাকছেন দুজন। এর মধ্যেই নুসরাত ও অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে মেলামেশার খবর চাউর হয় মিডিয়ায়।

সম্প্রতি নিখিল নুসরাতকে তালাকের নোটিশ পাঠিয়েছেন বলে খবর বের হয়। যদিও তালাকের নোটিশের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন নায়িকা।

অফিসিয়ালি এখনও তারা স্বামী-স্ত্রী হলেও অনেক দিন আগেই নুসরাত তার ইনস্টাগ্রাম থেকে নিখিলের সব ছবি মুছে ফেলেছিলেন। এবার নিখিলও নুসরাতের পথেই হাঁটলেন। তিনিও ‘কাগজ-কলমে’ স্ত্রীর সব ছবি মুছে ফেললেন।

করোনার সময় লকডাউনের মাঝামাঝি সময় নিখিলের বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান নুসরাত। তার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে আনফলো আর আনফ্রেন্ড করেন। একজন আরেকজনের সব ছবিও ডিলিট করে দেন। স্ত্রীকে আনফলো করার পর তার বেশিরভাগ ছবি মুছে দিয়েছিলেন নিখিল।

তবে নিজেদের বিয়ের দুটি ছবি রয়ে গিয়েছিল নিখিলের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে। সেগুলোও অবশেষে ডিলিট করে নিজের ইনস্টাগ্রামে তালা দিয়ে রেখেছেন তিনি।

সর্বশেষ ভালোবাসা দিবসে স্ত্রীকে নিয়ে শেষ পোস্ট দিয়েছিলেন নিখিল। নুসরাতের নাম না নিয়েই লিখেছিলেন—‘তুমি আমাকে কথা দিয়েছিলে। সেই প্রতিজ্ঞা রাখতে পারলে না। কেউ একজন গিয়ে অন্য মানুষে পরিণত হয়েছে। তবে আমি এখনও সেই আগের মতোই আছি।’

২০১৯ সালের ১৯ জুন তুরস্কের বোদরুম শহরে পাম অ্যাভিনিউয়ের ইডেন ইম্পেরিয়ালে কলকাতার সফল ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের গলায় মালা পরান অভিনেত্রী নুসরাত জাহান।

নুসরাতের বিয়ে এটিই প্রথম নয় বলে গুঞ্জন রয়েছে, তার দুটি বিয়ে ও বিচ্ছেদের খবর গণমাধ্যমে এলেও কখনই মুখ খোলেননি তিনি।

চলচ্চিত্রে জনপ্রিয়তাকে ভিত্তি করে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাট আসনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হয়ে জয়লাভ করেন নুসরাত।

এবার নুসরাতের পথেই হাঁটলেন নিখিল!

 অনলাইন ডেস্ক 
০৫ মার্চ ২০২১, ০৩:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহান এখন আর স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে থাকছেন না। 

গত কয়েক মাস ধরে আলাদা থাকছেন দুজন। এর মধ্যেই নুসরাত ও অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে মেলামেশার খবর চাউর হয় মিডিয়ায়।  

সম্প্রতি নিখিল নুসরাতকে তালাকের নোটিশ পাঠিয়েছেন বলে খবর বের হয়। যদিও তালাকের নোটিশের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন নায়িকা।  

অফিসিয়ালি এখনও তারা স্বামী-স্ত্রী হলেও অনেক দিন আগেই নুসরাত তার ইনস্টাগ্রাম থেকে নিখিলের সব ছবি মুছে ফেলেছিলেন। এবার নিখিলও নুসরাতের পথেই হাঁটলেন। তিনিও ‘কাগজ-কলমে’ স্ত্রীর সব ছবি মুছে ফেললেন।

করোনার সময় লকডাউনের মাঝামাঝি সময় নিখিলের বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান নুসরাত। তার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে আনফলো আর আনফ্রেন্ড করেন। একজন আরেকজনের সব ছবিও ডিলিট করে দেন। স্ত্রীকে আনফলো করার পর তার বেশিরভাগ ছবি মুছে দিয়েছিলেন নিখিল। 

তবে নিজেদের বিয়ের দুটি ছবি রয়ে গিয়েছিল নিখিলের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে। সেগুলোও অবশেষে ডিলিট করে নিজের ইনস্টাগ্রামে তালা দিয়ে রেখেছেন তিনি।

সর্বশেষ ভালোবাসা দিবসে স্ত্রীকে নিয়ে শেষ পোস্ট দিয়েছিলেন নিখিল। নুসরাতের নাম না নিয়েই লিখেছিলেন—‘তুমি আমাকে কথা দিয়েছিলে। সেই প্রতিজ্ঞা রাখতে পারলে না। কেউ একজন গিয়ে অন্য মানুষে পরিণত হয়েছে। তবে আমি এখনও সেই আগের মতোই আছি।’

২০১৯ সালের ১৯ জুন তুরস্কের বোদরুম শহরে পাম অ্যাভিনিউয়ের ইডেন ইম্পেরিয়ালে কলকাতার সফল ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের গলায় মালা পরান অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। 

নুসরাতের বিয়ে এটিই প্রথম নয় বলে গুঞ্জন রয়েছে, তার দুটি বিয়ে ও বিচ্ছেদের খবর গণমাধ্যমে এলেও কখনই মুখ খোলেননি তিনি।

চলচ্চিত্রে জনপ্রিয়তাকে ভিত্তি করে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাট আসনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হয়ে জয়লাভ করেন নুসরাত।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন