সোহেল চৌধুরী-দিতির ছেলে সাফায়েত বিয়ে করেছেন
jugantor
সোহেল চৌধুরী-দিতির ছেলে সাফায়েত বিয়ে করেছেন

  বিনোদন ডেস্ক  

০৭ মে ২০২১, ১৬:১৮:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলা সিনেমার অমর নায়ক সোহেল চৌধুরী ও চিত্রনায়িকা দিতির ছেলে সাফায়েত চৌধুরী বিয়ে করেছেন। দীর্ঘদিনের প্রেমিকা ভ্যান ক্রালিংকেনের সঙ্গে সম্প্রতি নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডামে গাঁটছড়া বাঁধেন তিনি। খবরটি সাফায়েত নিজেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানিয়েছেন।

ফেসবুকে সাফায়েত চৌধুরী লেখেন, ‘ছয় বছর একসঙ্গে কাটানোর পর জীবনের নতুন অধ্যায়ের শুরু। চমৎকার একজন নারীর সঙ্গে যৌথ জীবন শুরু করতে পেরে আনন্দিত।’

এর সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবি দিয়ে তাদের জীবনের বিশেষ মুহূর্তগুলো ভাগাভাগি করে নেন সাফায়েত।

সাফায়েত ও ক্রালিংকেনের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হয় আমস্টারডামে। তবে করোনার জন্য বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আপাতত স্থগিত করা হয়েছে। আর তার বোন লামিয়া চৌধুরীও সেখানে উপস্থিত হতে পারেননি।

তবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভাবিকে স্বাগত জানিয়েছেন লামিয়া।

ভ্যান ক্রালিংকেন নেদারল্যান্ডসের নাগরিক। সাফায়েত অনেকদিন দেশটির রাজধানী আমস্টারডামে রয়েছেন। সেখানে রিয়ারসন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, ১৯৮৫ সালে আমজাদ হোসেনের ‘হীরামতি’তে জুটি বাঁধেন সোহেল ও দিতি। এই সিনেমায় অভিনয় করতে গিয়েই দুজন দুজনের প্রেমে পড়ে যান। এরপর ১৯৮৬ সালে বিয়ে করেন দুজন।

১৯৯৮ সালের ১৮ ডিসেম্বর বনানীর ১৭ নম্বর রোডের আবেদীন টাওয়ারে ট্রাম্পস ক্লাবের নিচে সোহেল চৌধুরীকে গুলি করে হত্যা করা হয়। অন্যদিকে মস্তিষ্কে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে ২০১৬ সালের ২০ মার্চ শেষ নিঃশ্বাস ত্যগ করেন দিতি।

সোহেল চৌধুরী-দিতির ছেলে সাফায়েত বিয়ে করেছেন

 বিনোদন ডেস্ক 
০৭ মে ২০২১, ০৪:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলা সিনেমার অমর নায়ক সোহেল চৌধুরী ও চিত্রনায়িকা দিতির ছেলে সাফায়েত চৌধুরী বিয়ে করেছেন। দীর্ঘদিনের প্রেমিকা ভ্যান ক্রালিংকেনের সঙ্গে সম্প্রতি নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডামে গাঁটছড়া বাঁধেন তিনি। খবরটি সাফায়েত নিজেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানিয়েছেন।

ফেসবুকে সাফায়েত চৌধুরী লেখেন, ‘ছয় বছর একসঙ্গে কাটানোর পর জীবনের নতুন অধ্যায়ের শুরু। চমৎকার একজন নারীর সঙ্গে যৌথ জীবন শুরু করতে পেরে আনন্দিত।’ 

এর সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবি দিয়ে তাদের জীবনের বিশেষ মুহূর্তগুলো ভাগাভাগি করে নেন সাফায়েত।

সাফায়েত ও ক্রালিংকেনের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হয় আমস্টারডামে। তবে করোনার জন্য বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আপাতত স্থগিত করা হয়েছে। আর তার বোন লামিয়া চৌধুরীও সেখানে উপস্থিত হতে পারেননি। 

তবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভাবিকে স্বাগত জানিয়েছেন লামিয়া।