নোবেলের বিরুদ্ধে জিডি
jugantor
নোবেলের বিরুদ্ধে জিডি

  বিনোদন ডেস্ক  

১৭ মে ২০২১, ১৮:১৮:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

মাঈনুল আহসান নোবেল

ঈদুল ফিতরের দিন থেকেই আলোচনায় রয়েছেন কণ্ঠশিল্পী মাঈনুল আহসান নোবেল। ভেরিফায়েড ফেসবুক হ্যাকড হওয়া, সুরকার আহমেদ হুমায়ূনের ক্যারিয়ার শেষ করে দেয়ার হুমকি, নিজের মৃত্যুর তারিখ ঘোষণা, গানের ইতি টানার পোস্টে সয়লাব তার পেজ। এসব নিয়ে বেশ কিছু গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ করা হয়।

রোববার রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের বিনোদন প্রতিবেদককে অপহরণের হুমকি দেওয়ায় অভিযোগ ওঠে নোবেলের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে রাজধানীর কলাবাগান থানায় তার বিরুদ্ধে জিডি করা হয়।

ডায়েরিতে উল্লেখ করা হয়, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত, দেশের স্বনামধন্য সঙ্গীতশিল্পীদের নিয়ে বিভিন্ন সময় নিজের ফেসবুকে আপত্তিকর স্ট্যাটাস দিয়েছেন নোবেল। সম্প্রতি নগরবাউল জেমস, জনপ্রিয় সুরকার ইথুন বাবু এবং সঙ্গীতশিল্পী তাপসকে নিয়েও কূরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সবশেষ নোবেল তার ফেসুবকে নিজের মৃত্যু তারিখ ঘোষণা করে স্ট্যাটাস দেন। পেশাগত দায়িত্ব হিসেবে টেলিভিশনটির বিনোদন প্রতিবেদক বিষয়টি নিয়ে নোবেলের সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন মনে করেন।

রোববার দিনগত রাত ১২ টা ৪৫ মিনিটে নোবেলের ব্যক্তিগত নম্বরে ফোন করেন তিনি। পরিচয় পাওয়ার পর নোবেল অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে ফোন কেটে দেন। তারপর ১২টা ৪৮ মিনিটে নোবেল নিজেই ওই সাংবাদিককে ফোন করে অপ্রকাশযোগ্য ভাষায় গালাগালি করেন এবং তাকে জেলে নেয়ার হুমকি দেন।

হুমকি প্রদান করে তিনি বলেন, ‘নোবেল কে তুই চিনিস? নোবেল কী শিল্পী? নোবেল কিন্তু ক্যাডার’। ফোনে নিজেকে সেনাবাহিনীর একজন উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তার আপন শালা বলে উল্লেখ করেন নোবেল। শুধু তাই নয়, সরকারের একটি গোয়েন্দা সংস্থা দিয়ে প্রতিবেদককে বাসা থেকে তুলে নিয়ে আসান হুমকি দেন।

নোবেলের বিরুদ্ধে জিডি

 বিনোদন ডেস্ক 
১৭ মে ২০২১, ০৬:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মাঈনুল আহসান নোবেল
মাঈনুল আহসান নোবেল। ফাইল ছবি

ঈদুল ফিতরের দিন থেকেই আলোচনায় রয়েছেন কণ্ঠশিল্পী মাঈনুল আহসান নোবেল। ভেরিফায়েড ফেসবুক হ্যাকড হওয়া, সুরকার আহমেদ হুমায়ূনের ক্যারিয়ার শেষ করে দেয়ার হুমকি, নিজের মৃত্যুর তারিখ ঘোষণা, গানের ইতি টানার পোস্টে সয়লাব তার পেজ।  এসব নিয়ে বেশ কিছু গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ করা হয়। 

রোববার রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের বিনোদন প্রতিবেদককে অপহরণের হুমকি দেওয়ায় অভিযোগ ওঠে নোবেলের বিরুদ্ধে।  এ ঘটনায় সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে রাজধানীর কলাবাগান থানায় তার বিরুদ্ধে জিডি করা হয়।

ডায়েরিতে উল্লেখ করা হয়, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত, দেশের স্বনামধন্য সঙ্গীতশিল্পীদের নিয়ে বিভিন্ন সময় নিজের ফেসবুকে আপত্তিকর স্ট্যাটাস দিয়েছেন নোবেল। সম্প্রতি নগরবাউল জেমস, জনপ্রিয় সুরকার ইথুন বাবু এবং সঙ্গীতশিল্পী তাপসকে নিয়েও কূরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সবশেষ নোবেল তার ফেসুবকে নিজের মৃত্যু তারিখ ঘোষণা করে স্ট্যাটাস দেন। পেশাগত দায়িত্ব হিসেবে টেলিভিশনটির বিনোদন প্রতিবেদক বিষয়টি নিয়ে নোবেলের সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন মনে করেন।

রোববার দিনগত রাত ১২ টা ৪৫ মিনিটে নোবেলের ব্যক্তিগত নম্বরে ফোন করেন তিনি। পরিচয় পাওয়ার পর নোবেল অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে ফোন কেটে দেন। তারপর ১২টা ৪৮ মিনিটে নোবেল নিজেই ওই সাংবাদিককে ফোন করে অপ্রকাশযোগ্য ভাষায় গালাগালি করেন এবং তাকে জেলে নেয়ার হুমকি দেন। 

হুমকি প্রদান করে তিনি বলেন, ‘নোবেল কে তুই চিনিস? নোবেল কী শিল্পী? নোবেল কিন্তু ক্যাডার’। ফোনে নিজেকে সেনাবাহিনীর একজন উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তার আপন শালা বলে উল্লেখ করেন নোবেল। শুধু তাই নয়, সরকারের একটি গোয়েন্দা সংস্থা দিয়ে প্রতিবেদককে বাসা থেকে তুলে নিয়ে আসান হুমকি দেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন