করোনায় আক্রান্ত হয়ে দৃষ্টিশক্তি হারাতে বসেছেন কণ্ঠশিল্পী
jugantor
করোনায় আক্রান্ত হয়ে দৃষ্টিশক্তি হারাতে বসেছেন কণ্ঠশিল্পী

  বিনোদন ডেস্ক  

২৫ জুন ২০২১, ১৬:৩১:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

কণ্ঠশিল্পী পরমা

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চোখের দৃষ্টি হারাতে বসেছেন কলকাতার সংগীতশিল্পী পরমা ব‌্যানার্জি। বৃহস্পতিবার রাতে ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে এ তথ‌্য জানিয়েছেন তিনি নিজেই।

পোস্টে তিনি লেখেন, ‘করোনাভাইরাস থেকে এক্ষুণি সাবধান হন। আক্রান্ত হওয়ার পর আপনি হয়তো প্রাণে বেঁচে যেতে পারেন, কিন্তু প্রয়োজনীয় অঙ্গহানি হতে পারে আপনার। কোনো রকম উপসর্গ ছাড়াই বড় ক্ষতি পারে। গত একসপ্তাহ আমার জীবন দুঃস্বপ্নের মতো কেটেছে।’

গত সপ্তাহে আচমকাই জ্বর আসে পরমার। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সমস্ত পরীক্ষা করান। সেরকম কোনো সংক্রমণ ধরা না পড়লেও, বেশি ছিল সিআরপি। তারপর অ্যান্টি বায়োটিকসহ প্রয়োজনীয় ওষুধের কোর্স শেষ করেন। গত শুক্রবার থেকে আচমকাই শুরু হয় বিপত্তি। ঝাপসা হয়ে আসে তার বাঁ চোখ। রোববারের মধ্যে ৮০ শতাংশ দৃষ্টি চলে যায় তার।

ফেসবুকে তিনি লেখেন, ‌‘উপসর্গ নেই, যন্ত্রণা নেই, চোখ থেকে পানি পড়া নেই। অথচ বাঁ চোখের দৃষ্টি হারিয়ে ফেললাম। প্রথমদিকে ওই চোখটা একটু ভারি ভারি মনে হচ্ছিল। আচমকাই আর দেখতে পাচ্ছি না।’

হিন্দুস্তান টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, কলকাতার অন্যতম রেটিনা সার্জন ডা. অভিজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের তত্ত্বাবধানে পরমা আপাতত ভর্তি আছেন শহরের একটি বেসরকারি চক্ষু হাসপাতালে। কোভিড পরবর্তী ভিকেএইচ সিনড্রোম নামে অসুখে ভুগছেন তিনি। এ অসুখের কারণে চিরতরে চলে যেতে পারে তার দৃষ্টিশক্তি।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে দৃষ্টিশক্তি হারাতে বসেছেন কণ্ঠশিল্পী

 বিনোদন ডেস্ক 
২৫ জুন ২০২১, ০৪:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কণ্ঠশিল্পী পরমা
সংগীতশিল্পী পরমা ব্যানার্জি। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চোখের দৃষ্টি হারাতে বসেছেন কলকাতার সংগীতশিল্পী পরমা ব‌্যানার্জি। বৃহস্পতিবার রাতে ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে এ তথ‌্য জানিয়েছেন তিনি নিজেই।

পোস্টে তিনি লেখেন, ‘করোনাভাইরাস থেকে এক্ষুণি সাবধান হন। আক্রান্ত হওয়ার পর আপনি হয়তো প্রাণে বেঁচে যেতে পারেন, কিন্তু প্রয়োজনীয় অঙ্গহানি হতে পারে আপনার। কোনো রকম উপসর্গ ছাড়াই বড় ক্ষতি পারে। গত একসপ্তাহ আমার জীবন দুঃস্বপ্নের মতো কেটেছে।’

গত সপ্তাহে আচমকাই জ্বর আসে পরমার। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সমস্ত পরীক্ষা করান। সেরকম কোনো সংক্রমণ ধরা না পড়লেও, বেশি ছিল সিআরপি। তারপর অ্যান্টি বায়োটিকসহ প্রয়োজনীয় ওষুধের কোর্স শেষ করেন। গত শুক্রবার থেকে আচমকাই শুরু হয় বিপত্তি। ঝাপসা হয়ে আসে তার বাঁ চোখ। রোববারের মধ্যে ৮০ শতাংশ দৃষ্টি চলে যায় তার।

ফেসবুকে তিনি লেখেন, ‌‘উপসর্গ নেই, যন্ত্রণা নেই, চোখ থেকে পানি পড়া নেই। অথচ বাঁ চোখের দৃষ্টি হারিয়ে ফেললাম। প্রথমদিকে ওই চোখটা একটু ভারি ভারি মনে হচ্ছিল। আচমকাই আর দেখতে পাচ্ছি না।’

হিন্দুস্তান টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, কলকাতার অন্যতম রেটিনা সার্জন ডা. অভিজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের তত্ত্বাবধানে পরমা আপাতত ভর্তি আছেন শহরের একটি বেসরকারি চক্ষু হাসপাতালে। কোভিড পরবর্তী ভিকেএইচ সিনড্রোম নামে অসুখে ভুগছেন তিনি। এ অসুখের কারণে চিরতরে চলে যেতে পারে তার দৃষ্টিশক্তি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন