মম কি পিছিয়ে পড়ছেন?
jugantor
মম কি পিছিয়ে পড়ছেন?

  বিনোদন প্রতিবেদন  

৩১ জুলাই ২০২১, ০০:৪০:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ছোটবেলা থেকেই সাংস্কৃতিক অঙ্গনে কাজ করেন জাকিয়া বারী মম। নাচের জন্য জাতীয় পুরস্কার পান ছোটবেলাতেই। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের পড়ালেখা শেষ করে অভিনয় শেখার জন্য ভর্তি হন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগে।

এখানে পড়াকালেই লাক্স সুন্দরী প্রতিযোগিতায় নাম লেখান তিনি। সবাইকে পেছনে ফেলে সেই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হন মম। এরপর শুধুই এগিয়ে যাওয়ার গল্প।

অভিনয় জীবনের প্রথম ছবি ‘দারুচিনি দ্বীপ’-এ অভিনয় করে অর্জন করেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও। এরপর তারকাখ্যাতি নিয়ে নাটক-সিনেমায় অভিনয় করে শীর্ষস্থানীয় অভিনয় শিল্পীতে উপনীত হন তিনি। অভিনয়গুণে দর্শকের প্রশংসাও পেয়েছেন প্রত্যাশাতীত।

কিন্তু এ সফল অভিনেত্রী গত কয়েক বছর ধরেই কাজের ধারাবাহিকতায় নেই। ভালো অভিনয় করলেও অভিনীত নাটক ছবির সংখ্যা কমে গেছে। কেউ কেউ বলছেন যে, মম ব্যক্তিগত জীবনের নানা বিষয় নিয়ে বিষন্ন থাকার কারণেই অভিনয়ে মনযোগ কম দিতে পারছেন।

কারও কারও মতে, স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছে তার। যদিও এ বিষয়ে মম কখনো কোনো অভিযোগ করেননি কারও কাছে। ব্যক্তিগত জীবনের পাশাপাশি অভিনয় ক্যারিয়ার নিয়েও দুশ্চিন্তাগ্রস্ত মম। এখন জুটি বেঁধে নাটকে অভিনয়ের প্রচলন চলছে। এ অবস্থায় তিনি নির্দিষ্ট কারও সঙ্গে জুটি গড়তে পারছেন না। এটিও তার মনোবেদনার কারণ হতে পারে। তবে এসব বিষয় মম একেবারেই উড়িয়ে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ব্যক্তিগত জীবনে আমার কোনো সমস্যা নেই। ভালোভাবেই চলছে আমার সংসার জীবন। করোনাভাইরাসের কারণেই গত বছরের শুরু থেকে অভিনয়ে অনিয়মিত হয়েছি। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই আবারো কাজে ব্যস্ত হয়ে যাব। আমাকে নিয়ে যে নেতিবাচক গুঞ্জন চলে তার বাস্তবিক কোনো সত্যতা নেই। ভালো গল্প ও চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করাই আমার লক্ষ্য।

এই অভিনেত্রী দীর্ঘদিন পর একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছেন। এটির নাম ‘সৎ মা’। হাবিব শাকিলের পরিচালনায় এটি এনটিভিতে প্রচার হচ্ছে। এছাড়া অঞ্জন আইচের পরিচালনায় ‘আগামীকাল’ নামের একটি ছবিতেও অভিনয় করেছেন। সেটি এখন মুক্তির অপেক্ষায় আছে।

মম কি পিছিয়ে পড়ছেন?

 বিনোদন প্রতিবেদন 
৩১ জুলাই ২০২১, ১২:৪০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ছোটবেলা থেকেই সাংস্কৃতিক অঙ্গনে কাজ করেন জাকিয়া বারী মম। নাচের জন্য জাতীয় পুরস্কার পান ছোটবেলাতেই। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের পড়ালেখা শেষ করে অভিনয় শেখার জন্য ভর্তি হন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগে।

এখানে পড়াকালেই লাক্স সুন্দরী প্রতিযোগিতায় নাম লেখান তিনি। সবাইকে পেছনে ফেলে সেই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হন মম। এরপর শুধুই এগিয়ে যাওয়ার গল্প।

অভিনয় জীবনের প্রথম ছবি ‘দারুচিনি দ্বীপ’-এ অভিনয় করে অর্জন করেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও। এরপর তারকাখ্যাতি নিয়ে নাটক-সিনেমায় অভিনয় করে শীর্ষস্থানীয় অভিনয় শিল্পীতে উপনীত হন তিনি। অভিনয়গুণে দর্শকের প্রশংসাও পেয়েছেন প্রত্যাশাতীত।

কিন্তু এ সফল অভিনেত্রী গত কয়েক বছর ধরেই কাজের ধারাবাহিকতায় নেই। ভালো অভিনয় করলেও অভিনীত নাটক ছবির সংখ্যা কমে গেছে। কেউ কেউ বলছেন যে, মম ব্যক্তিগত জীবনের নানা বিষয় নিয়ে বিষন্ন থাকার কারণেই অভিনয়ে মনযোগ কম দিতে পারছেন।

কারও কারও মতে, স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছে তার। যদিও এ বিষয়ে মম কখনো কোনো অভিযোগ করেননি কারও কাছে। ব্যক্তিগত জীবনের পাশাপাশি অভিনয় ক্যারিয়ার নিয়েও দুশ্চিন্তাগ্রস্ত মম। এখন জুটি বেঁধে নাটকে অভিনয়ের প্রচলন চলছে। এ অবস্থায় তিনি নির্দিষ্ট কারও সঙ্গে জুটি গড়তে পারছেন না। এটিও তার মনোবেদনার কারণ হতে পারে। তবে এসব বিষয় মম একেবারেই উড়িয়ে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ব্যক্তিগত জীবনে আমার কোনো সমস্যা নেই। ভালোভাবেই চলছে আমার সংসার জীবন। করোনাভাইরাসের কারণেই গত বছরের শুরু থেকে অভিনয়ে অনিয়মিত হয়েছি। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই আবারো কাজে ব্যস্ত হয়ে যাব। আমাকে নিয়ে যে নেতিবাচক গুঞ্জন চলে তার বাস্তবিক কোনো সত্যতা নেই। ভালো গল্প ও চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করাই আমার লক্ষ্য।

এই অভিনেত্রী দীর্ঘদিন পর একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছেন। এটির নাম ‘সৎ মা’। হাবিব শাকিলের পরিচালনায় এটি এনটিভিতে প্রচার হচ্ছে। এছাড়া অঞ্জন আইচের পরিচালনায় ‘আগামীকাল’ নামের একটি ছবিতেও অভিনয় করেছেন। সেটি এখন মুক্তির অপেক্ষায় আছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন