আমেরিকায় শাহেদ-মিলার হঠাৎ আড্ডা
jugantor
আমেরিকায় শাহেদ-মিলার হঠাৎ আড্ডা

  বিনোদন প্রতিবেদন  

০৪ আগস্ট ২০২১, ০৫:৩৮:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেতা শাহেদ শরীফ খান সপরিবারে অবকাশযাপনে এখন অবস্থান করছেন আমেরিকায়। শাহেদ সেই দেশের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরছেন পরিবার নিয়ে।

সেই ধারাবাহিকতায় একসময়ের জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী আমেরিকা প্রবাসী মিলা হোসেনের সঙ্গে দেখা হলো সম্প্রতি।

মিলা হোসেন ক্যারিয়ারে সোনালি সময়ে আমেরিকায় স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য দেশ ছাড়েন দেড়যুগেরও আগে। যখন তিনি নিয়মিত কাজ করতেন, তখন শাহেদও প্রতিশ্রুতিশীল অভিনেতা ছিলেন। তারা একসঙ্গে কাজও করতেন। সেই সুবাদে দারুণ বন্ধুত্বও ছিল তাদের মধ্যে। দুজন দুই দেশে থাকার কারণে দেখা হয় না অনেক দিন। কিন্তু এবারের আমেরিকা সফরে তাই দেখা করে আড্ডায় মেতেছিলেন এই দুই তারকা।

আমেরিকা থেকে মোবাইলে শাহেদ বলেন, আসলে করোনাভাইরাস আসার পর দেশে অনেকটা গৃহবন্দি হয়ে সময় কাটাতে হতো। আমি মাঝেমধ্যে অভিনয়ের জন্য বের হলেও আমার পরিবারের অন্য সদস্যরা ঘরেই থাকত। অনেক দিন ধরেই তাই আমরা আমেরিকায় ঘুরতে যাওয়ার জন্য পরিকল্পনা করেছিলাম। সেটি এবার বাস্তবায়ন করলাম। মিলার সঙ্গে অনেক দিন পর আড্ডা দিলাম। কাজের কত স্মৃতি তার সঙ্গে। সেই সময়গুলো নিয়ে আমরা কথা বলেছি। দেশে আসার জন্য মিলাকে দাওয়াত দিয়েছি।

এদিকে অবকাশযাপন শেষে ১৩ আগস্ট দেশে ফিরবেন শাহেদ। এর পরই নাটকের কাজ শুরু করার কথা রয়েছে তার।

আমেরিকায় শাহেদ-মিলার হঠাৎ আড্ডা

 বিনোদন প্রতিবেদন 
০৪ আগস্ট ২০২১, ০৫:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেতা শাহেদ শরীফ খান সপরিবারে অবকাশযাপনে এখন অবস্থান করছেন আমেরিকায়। শাহেদ সেই দেশের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরছেন পরিবার নিয়ে।

সেই ধারাবাহিকতায় একসময়ের জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী আমেরিকা প্রবাসী মিলা হোসেনের সঙ্গে দেখা হলো সম্প্রতি।

মিলা হোসেন ক্যারিয়ারে সোনালি সময়ে আমেরিকায় স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য দেশ ছাড়েন দেড়যুগেরও আগে। যখন তিনি নিয়মিত কাজ করতেন, তখন শাহেদও প্রতিশ্রুতিশীল অভিনেতা ছিলেন। তারা একসঙ্গে কাজও করতেন। সেই সুবাদে দারুণ বন্ধুত্বও ছিল তাদের মধ্যে। দুজন দুই দেশে থাকার কারণে দেখা হয় না অনেক দিন। কিন্তু এবারের আমেরিকা সফরে তাই দেখা করে আড্ডায় মেতেছিলেন এই দুই তারকা।

আমেরিকা থেকে মোবাইলে শাহেদ বলেন,  আসলে করোনাভাইরাস আসার পর দেশে অনেকটা গৃহবন্দি হয়ে সময় কাটাতে হতো। আমি মাঝেমধ্যে অভিনয়ের জন্য বের হলেও আমার পরিবারের অন্য সদস্যরা ঘরেই থাকত। অনেক দিন ধরেই তাই আমরা আমেরিকায় ঘুরতে যাওয়ার জন্য পরিকল্পনা করেছিলাম। সেটি এবার বাস্তবায়ন করলাম। মিলার সঙ্গে অনেক দিন পর আড্ডা দিলাম। কাজের কত স্মৃতি তার সঙ্গে। সেই সময়গুলো নিয়ে আমরা কথা বলেছি। দেশে আসার জন্য মিলাকে দাওয়াত দিয়েছি।

এদিকে অবকাশযাপন শেষে ১৩ আগস্ট দেশে ফিরবেন শাহেদ। এর পরই নাটকের কাজ শুরু করার কথা রয়েছে তার।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন