বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা অনুষ্ঠানে অপু বিশ্বাস
jugantor
বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা অনুষ্ঠানে অপু বিশ্বাস

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩৩:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা করার লক্ষ্যে সম্প্রতি রাজধানীর গুলশানে পুলিশ প্লাজা কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হলো মনির বিউটি লাউঞ্জের উদ্যোগে ব্রাইডাল ফ্যাশন শো ও মেকাপ ওয়ার্কশপ।

দুই দিনব্যাপী এ আয়োজনে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস ও চিত্রনায়ক জায়েদ খান উপস্থিত থেকে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করেছেন।

অনুষ্ঠানে আরও অতিথি ছিলেন- আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পারভীন জামান কল্পনা, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. হেলাল উদ্দিন, আওয়ামী মৎস্য লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য নুর আলম বিশ্বাস।

আয়োজনে ছিল মেকাপ ট্রেনিং, র‌্যাম্প শো, ব্রাইডাল শো, ডান্স পারফরম্যান্স। নৃত্য পরিবেশন করেছেন ফ্লাই ফারুক ও তার টিম এবং আলিফ ও মাটি। কোরিওগ্রাফার ছিলেন তানজিল জনি। ফ্যাশন ডিজাইনার ছিলেন পিয়াল হোসাইন। আরও পারফর্ম করেছেন ডিজে তমাল।

কর্মশালা থেকে প্রাপ্ত লভ্যাংশ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুবিধাবঞ্চিত বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার খরচ বহনে প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছে আয়োজন সংস্থা।

এ আয়োজনে অংশ নেয়া প্রসঙ্গে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস বলেন, মনির আমাদের চলচ্চিত্রের একজন সুপরিচিত মেকআপ আর্টিস্ট। খুব ভালো কাজ করেন তিনি। তার মধ্যে শেখার এবং নিজের লব্ধ-জ্ঞান অন্যদের শেখানোর একটা তাগিদ আমি লক্ষ্য করেছি। এ কারণেই তার আমন্ত্রণে উপস্থিত হয়েছি। ভালো একটি অনুষ্ঠান হয়েছে। আমার বিশ্বাস এ ধরনের কর্মশালার মাধ্যমে দেশে ভালো ভালো কিছু মেকআপ আর্টিস্ট তৈরি হবে।

এ আয়োজন প্রসঙ্গে মনির বিউটি লাউঞ্জের কর্ণধার মনির হোসেন বলেন, শুধু বিনোদন জগতের শিল্পীরাই নন, সৌন্দর্যের বিষয়ে এখন সাধারণ মানুষও আগ্রহী। দেশে যে পরিমাণ মানুষ রূপচর্চা করেন, তাদের সাজানোর জন্য দক্ষ এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মেকআপ আর্টিস্ট খুবই কম। আমরা চেষ্টা করছি ছেলেমেয়েদের মেকআপ আর্টিস্ট হিসেবে তৈরি করতে। এতে তারা স্বাবলম্বীও হতে পারবেন। সেই লক্ষ্যেই এবারের আয়োজন। তবে এবারের আয়োজন থেকে প্রাপ্ত অর্থ ঢাবির সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীদের জন্য দেয়া হবে। এভাবে মানুষের পাশেও থাকতে চাই।

আমাদের এ আয়োজনের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার জন্য সম্মানিত অতিথি, বিশেষ করে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস দিদি ও চিত্রনায়ক জায়েদ খান ভাইয়ের কাছে আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। আরও কৃতজ্ঞ স্পন্সর প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে। তাদের সহযোগিতায় আমরা আমাদের এ কর্মযজ্ঞ চালিয়ে যেতে পারছি। আশা করি ভবিষ্যতে আরও বড় আয়োজনে কিছু করতে পারব।

বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা অনুষ্ঠানে অপু বিশ্বাস

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা করার লক্ষ্যে সম্প্রতি রাজধানীর গুলশানে পুলিশ প্লাজা কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হলো মনির বিউটি লাউঞ্জের উদ্যোগে ব্রাইডাল ফ্যাশন শো ও মেকাপ ওয়ার্কশপ। 

দুই দিনব্যাপী এ আয়োজনে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস ও চিত্রনায়ক জায়েদ খান উপস্থিত থেকে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করেছেন।

অনুষ্ঠানে আরও অতিথি ছিলেন- আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পারভীন জামান কল্পনা, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. হেলাল উদ্দিন, আওয়ামী মৎস্য লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য নুর আলম বিশ্বাস।

আয়োজনে ছিল মেকাপ ট্রেনিং, র‌্যাম্প শো, ব্রাইডাল শো, ডান্স পারফরম্যান্স। নৃত্য পরিবেশন করেছেন ফ্লাই ফারুক ও তার টিম এবং আলিফ ও মাটি। কোরিওগ্রাফার ছিলেন তানজিল জনি। ফ্যাশন ডিজাইনার ছিলেন পিয়াল হোসাইন। আরও পারফর্ম করেছেন ডিজে তমাল।

কর্মশালা থেকে প্রাপ্ত লভ্যাংশ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুবিধাবঞ্চিত বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার খরচ বহনে প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছে আয়োজন সংস্থা।

এ আয়োজনে অংশ নেয়া প্রসঙ্গে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস বলেন, মনির আমাদের চলচ্চিত্রের একজন সুপরিচিত মেকআপ আর্টিস্ট। খুব ভালো কাজ করেন তিনি। তার মধ্যে শেখার এবং নিজের লব্ধ-জ্ঞান অন্যদের শেখানোর একটা তাগিদ আমি লক্ষ্য করেছি। এ কারণেই তার আমন্ত্রণে উপস্থিত হয়েছি। ভালো একটি অনুষ্ঠান হয়েছে। আমার বিশ্বাস এ ধরনের কর্মশালার মাধ্যমে দেশে ভালো ভালো কিছু মেকআপ আর্টিস্ট তৈরি হবে।

এ আয়োজন প্রসঙ্গে মনির বিউটি লাউঞ্জের কর্ণধার মনির হোসেন বলেন, শুধু বিনোদন জগতের শিল্পীরাই নন, সৌন্দর্যের বিষয়ে এখন সাধারণ মানুষও আগ্রহী। দেশে যে পরিমাণ মানুষ রূপচর্চা করেন, তাদের সাজানোর জন্য দক্ষ এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মেকআপ আর্টিস্ট খুবই কম। আমরা চেষ্টা করছি ছেলেমেয়েদের মেকআপ আর্টিস্ট হিসেবে তৈরি করতে। এতে তারা স্বাবলম্বীও হতে পারবেন। সেই লক্ষ্যেই এবারের আয়োজন। তবে এবারের আয়োজন থেকে প্রাপ্ত অর্থ ঢাবির সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীদের জন্য দেয়া হবে। এভাবে মানুষের পাশেও থাকতে চাই। 

আমাদের এ আয়োজনের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার জন্য সম্মানিত অতিথি, বিশেষ করে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস দিদি ও চিত্রনায়ক জায়েদ খান ভাইয়ের কাছে আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। আরও কৃতজ্ঞ স্পন্সর প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে। তাদের সহযোগিতায় আমরা আমাদের এ কর্মযজ্ঞ চালিয়ে যেতে পারছি। আশা করি ভবিষ্যতে আরও বড় আয়োজনে কিছু করতে পারব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন