নির্দেশনায় ফিরলেন নায়লা আজাদ
jugantor
নির্দেশনায় ফিরলেন নায়লা আজাদ

  বিনোদন প্রতিবেদন  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:৫০:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

মঞ্চ নাটকের প্রতিষ্ঠিত দল বটতলা দীর্ঘ সময় পর নতুন নাটক মঞ্চস্থ করতে যাচ্ছে। এটির নাম ‘মাক্স ইন সোহো’। নায়লা আজাদের নির্দেশনায় নাটকটির অনুবাদ করেছেন জাভেদ হাসান। এটি ৬ অক্টোবর থেকে চার দিন বাংলাদেশ মহিলা সমিতি মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হবে।

কার্ল মার্ক্স-এর প্রয়াণের শতবর্ষ পেরিয়ে গেছে, কিন্তু এখনো তার ভাবনা অপ্রাসঙ্গিক হয়ে যায়নি। দাস ক্যাপিটাল কিংবা কমিউনিস্ট মেনিফেস্টোতে তিনি মানুষকে এক হওয়ার যে আহ্বান জানিয়েছিলেন তা এখনো প্রাসঙ্গিক।

মার্ক্সের ভবিষ্যদ্বাণী সত্যি করে পৃথিবীটা পুঁজিবাদের দাস হয়ে গেছে। তাই এখন আবার মার্ক্সকে ফিরিয়ে আনা প্রয়োজন। কিন্তু কার্ল মার্ক্স কি আসলেই ফিরে এসেছেন? তিনি তো নিজ জন্মভূমি সোহো থেকে বহিষ্কৃত হয়েছিলেন, তাহলে কী করে তিনি আবার সোহোতে ফিরে আসছেন? কেনই বা ফিরে আসছেন? তিনি কী ফিরে আসছেন তার নামে চালু বদনামগুলো পরিষ্কার করতে? নিজের জীবনের দুঃখ-দিনের গল্পগুলো শোনাতে?

হাওয়ার্ড জিন এমন সব প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন নাটকে একজন দার্শনিক এবং ব্যক্তি কার্ল মার্ক্সকে একই সুতায় গেঁথে। ফুটিয়ে তুলেছেন মার্ক্স-এর দুটো সত্তাকে। আর এ কারণেই নাটকটি বিশেষ হয়ে উঠেছে।

মার্ক্স আবার মনে করিয়ে দিচ্ছেন- দানবীয় এই পুঁজিতন্ত্রই বিপ্লবের রসায়ন তৈরি করে। বটতলা হাওয়ার্ড জিনের লেখাকে আশ্রয় করে তাই কার্ল মার্ক্সকে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এভাবেই নানা ঘটনায় এগিয়ে যাবে নাটকটির গল্প।

নির্দেশনায় ফিরলেন নায়লা আজাদ

 বিনোদন প্রতিবেদন 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৫০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মঞ্চ নাটকের প্রতিষ্ঠিত দল বটতলা দীর্ঘ সময় পর নতুন নাটক মঞ্চস্থ করতে যাচ্ছে। এটির নাম ‘মাক্স ইন সোহো’। নায়লা আজাদের নির্দেশনায় নাটকটির অনুবাদ করেছেন জাভেদ হাসান। এটি ৬ অক্টোবর থেকে চার দিন বাংলাদেশ মহিলা সমিতি মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হবে।

কার্ল মার্ক্স-এর প্রয়াণের শতবর্ষ পেরিয়ে গেছে, কিন্তু এখনো তার ভাবনা অপ্রাসঙ্গিক হয়ে যায়নি। দাস ক্যাপিটাল কিংবা কমিউনিস্ট মেনিফেস্টোতে তিনি মানুষকে এক হওয়ার যে আহ্বান জানিয়েছিলেন তা এখনো প্রাসঙ্গিক।

মার্ক্সের ভবিষ্যদ্বাণী সত্যি করে পৃথিবীটা পুঁজিবাদের দাস হয়ে গেছে। তাই এখন আবার মার্ক্সকে ফিরিয়ে আনা প্রয়োজন। কিন্তু কার্ল মার্ক্স কি আসলেই ফিরে এসেছেন? তিনি তো নিজ জন্মভূমি সোহো থেকে বহিষ্কৃত হয়েছিলেন, তাহলে কী করে তিনি আবার সোহোতে ফিরে আসছেন? কেনই বা ফিরে আসছেন? তিনি কী ফিরে আসছেন তার নামে চালু বদনামগুলো পরিষ্কার করতে? নিজের জীবনের দুঃখ-দিনের গল্পগুলো শোনাতে?

হাওয়ার্ড জিন এমন সব প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন নাটকে একজন দার্শনিক এবং ব্যক্তি কার্ল মার্ক্সকে একই সুতায় গেঁথে। ফুটিয়ে তুলেছেন মার্ক্স-এর দুটো সত্তাকে। আর এ কারণেই নাটকটি বিশেষ হয়ে উঠেছে।

মার্ক্স আবার মনে করিয়ে দিচ্ছেন- দানবীয় এই পুঁজিতন্ত্রই বিপ্লবের রসায়ন তৈরি করে। বটতলা হাওয়ার্ড জিনের লেখাকে আশ্রয় করে তাই কার্ল মার্ক্সকে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এভাবেই নানা ঘটনায় এগিয়ে যাবে নাটকটির গল্প। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন