বরেণ্য সংগীতশিল্পীদের শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান
jugantor
বরেণ্য সংগীতশিল্পীদের শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান

  বিনোদন প্রতিবেদন  

১৫ অক্টোবর ২০২১, ০৮:১৩:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে বাংলা একাডেমির ব্যবস্থাপনায় টাইমস্কুপের পক্ষ থেকে গত ১২ অক্টোবর শিল্পীদের শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করা হয়।

স্মারকপ্রাপ্ত শিল্পীরা হলেন- শাহীন সামাদ, খায়রুল আনাম শাকিল, সালাউদ্দিন আহমেদ, সুজিত মোস্তফা, সালমা আকবর, অনুরুদ্ধ সেন গুপ্ত, শহীদ কবির পলাশ, ত্রীবেণী পান্না, পূজন দাস, শারমিন সাথী ময়না ও ছন্দা চক্রবর্তী।

এ উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি নুরুল হুদা। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন টাইমস্কুপের অ্যাডমিন ও সিনিয়র সহকারী সচিব শামীম শান্তি বানু।

অনুষ্ঠানটিতে সভাপতিত্ব করেন টাইমস্কুপের অ্যাডমিন অধ্যাপক ফ্লোরা সরকার এবং ধন্যবাদ বক্তব্য দেন টাইমস্কুপ ফাউন্ডার অ্যাডমিন ও সংগঠক এবং আইবিজি নিউজ বাংলাদেশ সংবাদদাতা আনোয়ারুল হক ভুঁইয়া।

তিনি তার বক্তব্যে আগামী বছর জানুয়ারি মাসে ভারত এবং বাংলাদেশ যৌথভাবে শিল্পীদের নিয়ে সাংস্কৃতিক উৎসব করার জন্য সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করেছেন।

এ আয়োজন প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ বলেন, শিল্পীদের এভাবে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদানের মাধ্যমে শিল্পীদের যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করা হয়। সেই সঙ্গে টাইমস্কুপ সাংস্কৃতিক উৎসব পালনে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে।

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহাম্মদ নুরুল হুদা বলেন, এভাবে একসঙ্গে সাংস্কৃতিক কাজ করে যেতে পারলে দেশের সাংস্কৃতিক উন্নতির পথ আরও মসৃণ হবে। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন টাইমস্কুপের মডারেটর আঞ্জুমান আরা লাকি।

বরেণ্য সংগীতশিল্পীদের শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান

 বিনোদন প্রতিবেদন 
১৫ অক্টোবর ২০২১, ০৮:১৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে বাংলা একাডেমির ব্যবস্থাপনায় টাইমস্কুপের পক্ষ থেকে গত ১২ অক্টোবর শিল্পীদের শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করা হয়।

স্মারকপ্রাপ্ত শিল্পীরা হলেন- শাহীন সামাদ, খায়রুল আনাম শাকিল, সালাউদ্দিন আহমেদ, সুজিত মোস্তফা, সালমা আকবর, অনুরুদ্ধ সেন গুপ্ত, শহীদ কবির পলাশ, ত্রীবেণী পান্না, পূজন দাস, শারমিন সাথী ময়না ও ছন্দা চক্রবর্তী।

এ উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি নুরুল হুদা। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন টাইমস্কুপের অ্যাডমিন ও সিনিয়র সহকারী সচিব শামীম শান্তি বানু।

অনুষ্ঠানটিতে সভাপতিত্ব করেন টাইমস্কুপের অ্যাডমিন অধ্যাপক ফ্লোরা সরকার এবং ধন্যবাদ বক্তব্য দেন টাইমস্কুপ ফাউন্ডার অ্যাডমিন ও সংগঠক এবং আইবিজি নিউজ বাংলাদেশ সংবাদদাতা আনোয়ারুল হক ভুঁইয়া।

তিনি তার বক্তব্যে আগামী বছর জানুয়ারি মাসে ভারত এবং বাংলাদেশ যৌথভাবে শিল্পীদের নিয়ে সাংস্কৃতিক উৎসব করার জন্য সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করেছেন।

এ আয়োজন প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ বলেন, শিল্পীদের এভাবে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদানের মাধ্যমে শিল্পীদের যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করা হয়। সেই সঙ্গে টাইমস্কুপ সাংস্কৃতিক উৎসব পালনে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে।

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহাম্মদ নুরুল হুদা বলেন, এভাবে একসঙ্গে সাংস্কৃতিক কাজ করে যেতে পারলে দেশের সাংস্কৃতিক উন্নতির পথ আরও মসৃণ হবে। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন টাইমস্কুপের মডারেটর আঞ্জুমান আরা লাকি।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন