কোটিপতি মেয়ে মুচি জামাই নাটক ইউটিউবে ভাইরাল
jugantor
কোটিপতি মেয়ে মুচি জামাই নাটক ইউটিউবে ভাইরাল

  বিনোদন ডেস্ক  

২৩ অক্টোবর ২০২১, ১১:০০:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

মীরাক্কেল খ্যাত আনোয়ারুল আলম সজল অভিনীত কোটিপতি মেয়ে মুচি জামাই নাটক ইউটিউবে ভাইরাল হয়েছে।

বৃহস্পতিবার নাটকটি ঈগল মিউজিক ওয়াচ নামের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়। শনিবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নাটকটি ১১ লাখেরও বেশি দর্শক দেখে ফেলেছেন।

নাটকে তার সহশিল্পী হিসেবে অভিনয় করেছেন রাবিনা।

নাটকটি রচনা করেছেন সোলায়মান। ঈগল টিমের পরিচালনায় নাটকটিতে আরও অভিনয় করেছেন শাওন মজুমদার, মিমু, জাহাঙ্গীর কবির, সুমন পাটোয়ারী, প্রিয়ন্তী গোমেজ, উজমা জেসিন আরজু, সাগর, লিজন, সৌরভ ও দ্বীন ইসলাম।

নাটকটির সহকারী পরিচালক হলেন অমিত হাসান।

নাটকটি প্রসঙ্গে জনপ্রিয় কৌতুকঅভিনেতা আনোয়ারুল আলম সজল যুগান্তরকে বলেন, নাটকটি এত দ্রুত দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করেছে শুনে খুবই ভালো লাগলো। নাটকটির গল্পটা ভিন্ন ধাঁচের। এ নাটকটির মাধ্যমে আমি মূলত নিজেকে অনেকটা ভাঙতে চেয়েছি।

দর্শকের উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় ভাসছেন সজল

ঈগলের ইউটিউব চ্যানেলের কমেন্ট বক্সেএ পর্যন্ত ১১ শতাধিক মানুষ নাটকটি নিয়ে নিজেদের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। এর মধ্যে বেশিরভাগই অভিনেতা সজলকে নিয়ে প্রশংসা করে নানা মন্তব্য করেছেন।

শিহাব মাহমুদ নামের একজন বলেছেন, মুচির বউ থেকে ফকিরের বউ তে মাইগ্রেট হওয়ার সময়ে ভালো লেগেছে।

তুষার আলী নামের একজন লিখেন, আমাদের দেখার মাঝেও অনেক কিছু অজানা থেকে যায়। সব দেখা সত্যি হয় না। শেষটা অনেক বেশি সুন্দর ছিল।

মোনায়েম হোসেন নামের একজন বলেন, সব নাটকের মাঝে একটা সেরা নাটক। নাটকের শেষের যে দৃশ্যটা বাস্তবময় মূল্যবান কথাগুলো। আমাদের আশপাশের সমাজে এখন বেশিরভাগ কাজকে ছোট করে দেখে। মানুষকে কাজদিয়ে মূল্যায়ন করা হয় না।

বাহাউদ্দিন নামের একজন লিখেছেন, অসাধারণ মজা এবং শিক্ষা।

নাটকটির পার্ট-২ করার জন্যও অনেক দর্শক দাবি তুলেছেন।

নাটকটির উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে রিফাত হোসাইন নামের একজন বলেন, মীরাক্কেলে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক বাংলাদেশি প্রতিযোগী আসলেই খুব ট্যালেন্টেড।

কোটিপতি মেয়ে মুচি জামাই নাটক ইউটিউবে ভাইরাল

 বিনোদন ডেস্ক 
২৩ অক্টোবর ২০২১, ১১:০০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মীরাক্কেল খ্যাত আনোয়ারুল আলম সজল অভিনীত কোটিপতি মেয়ে মুচি জামাই নাটক ইউটিউবে ভাইরাল হয়েছে।

বৃহস্পতিবার নাটকটি ঈগল মিউজিক ওয়াচ নামের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়। শনিবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নাটকটি ১১ লাখেরও বেশি দর্শক দেখে ফেলেছেন। 

নাটকে তার সহশিল্পী হিসেবে অভিনয় করেছেন রাবিনা। 

নাটকটি রচনা করেছেন সোলায়মান। ঈগল টিমের পরিচালনায় নাটকটিতে আরও অভিনয় করেছেন শাওন মজুমদার, মিমু, জাহাঙ্গীর কবির, সুমন পাটোয়ারী, প্রিয়ন্তী গোমেজ, উজমা জেসিন আরজু, সাগর, লিজন, সৌরভ ও দ্বীন ইসলাম। 

নাটকটির সহকারী পরিচালক হলেন অমিত হাসান।

নাটকটি প্রসঙ্গে জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা আনোয়ারুল আলম সজল যুগান্তরকে বলেন, নাটকটি এত দ্রুত দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করেছে শুনে খুবই ভালো লাগলো। নাটকটির গল্পটা ভিন্ন ধাঁচের। এ নাটকটির মাধ্যমে আমি মূলত নিজেকে অনেকটা ভাঙতে চেয়েছি।

দর্শকের উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় ভাসছেন সজল

ঈগলের ইউটিউব চ্যানেলের কমেন্ট বক্সে এ পর্যন্ত ১১ শতাধিক মানুষ নাটকটি নিয়ে নিজেদের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। এর মধ্যে বেশিরভাগই অভিনেতা সজলকে নিয়ে প্রশংসা করে নানা মন্তব্য করেছেন। 

শিহাব মাহমুদ নামের একজন বলেছেন, মুচির বউ থেকে ফকিরের বউ তে মাইগ্রেট হওয়ার সময়ে ভালো লেগেছে।

তুষার আলী নামের একজন লিখেন, আমাদের দেখার মাঝেও অনেক কিছু অজানা থেকে যায়। সব দেখা সত্যি হয় না। শেষটা অনেক বেশি সুন্দর ছিল।

মোনায়েম হোসেন নামের একজন বলেন, সব নাটকের মাঝে একটা সেরা নাটক। নাটকের শেষের যে দৃশ্যটা বাস্তবময় মূল্যবান কথাগুলো। আমাদের আশপাশের সমাজে এখন বেশিরভাগ কাজকে ছোট করে দেখে। মানুষকে কাজ দিয়ে মূল্যায়ন করা হয় না। 

বাহাউদ্দিন নামের একজন লিখেছেন, অসাধারণ মজা এবং শিক্ষা।

নাটকটির পার্ট-২ করার জন্যও অনেক দর্শক দাবি তুলেছেন।

নাটকটির উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে রিফাত হোসাইন নামের একজন বলেন, মীরাক্কেলে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক বাংলাদেশি প্রতিযোগী আসলেই খুব ট্যালেন্টেড।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন