গুরুতর অসুস্থ কিংবদন্তি সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়
jugantor
গুরুতর অসুস্থ কিংবদন্তি সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ জানুয়ারি ২০২২, ২২:৪৪:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

সংগীতশিল্পী গীতশ্রী সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় গুরুতর অসুস্থ। নিজের বাসভবন থেকে তাকে কলকাতার পিজি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যায় সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়কে ফোন করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের মেয়ের সঙ্গে কথা বলেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৎপরতায় তাকে দ্রুত কলকাতার পিজি হাসপাতালের উডবার্ন ব্লকে ভর্তি করা হয়। সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের চিকিৎসা সংক্রান্ত যে কোনো প্রয়োজনে রাজ্য সরকার সাহায্য করবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যার পর থেকেই সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। কিছু দিন আগেই তিনি বাথরুমে পড়ে গিয়ে কোমরে চোট পেয়েছিলেন। নিউমোনিয়ার উপসর্গও ছিল। গতকাল ফুসফুসে সংক্রমণ আরও বৃদ্ধি পায়। পারিবারিক চিকিৎসক বিষয়টি দেখে আরটিপিসিআর করার নির্দেশ দেন। সেই পরীক্ষা করা হলেও রিপোর্ট এখনো পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, দুই দিন আগেই ভারত সরকারের পদ্মশ্রী সম্মাননা প্রত্যাখ্যান করেছিলেন সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, পদ্মশ্রী প্রত্যাখ্যানের পর মানসিকভাবে একটু ভেঙে পড়েছিলেন প্রবীণ এই শিল্পী। পুরস্কার ঘোষণার এক দিন আগে তাকে জানানো হয় তিনি পদ্মশ্রী পাচ্ছেন। গোটা বিষয়টি তার কাছে অত্যন্ত অপমানজনক বলে মনে হয়, কাজেই পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করেন কিংবদন্তি শিল্পী।

জানা যায়, ভারত সরকার আগে থেকে কিছু জানায়নি। ফোনে যেভাবে পদ্মশ্রী সম্মাননা দেওয়ার প্রস্তাব রাখা হয় শিল্পীর কাছে, তা অত্যন্ত অসম্মানজনক মনে হয়েছে বলে জানান তিনি।

গুরুতর অসুস্থ কিংবদন্তি সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সংগীতশিল্পী গীতশ্রী সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় গুরুতর অসুস্থ। নিজের বাসভবন থেকে তাকে কলকাতার পিজি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যায় সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়কে ফোন করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের মেয়ের সঙ্গে কথা বলেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৎপরতায় তাকে দ্রুত কলকাতার পিজি হাসপাতালের উডবার্ন ব্লকে ভর্তি করা হয়। সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের চিকিৎসা সংক্রান্ত যে কোনো প্রয়োজনে রাজ্য সরকার সাহায্য করবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যার পর থেকেই সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। কিছু দিন আগেই তিনি বাথরুমে পড়ে গিয়ে কোমরে চোট পেয়েছিলেন। নিউমোনিয়ার উপসর্গও ছিল। গতকাল ফুসফুসে সংক্রমণ আরও বৃদ্ধি পায়। পারিবারিক চিকিৎসক বিষয়টি দেখে আরটিপিসিআর করার নির্দেশ দেন। সেই পরীক্ষা করা হলেও রিপোর্ট এখনো পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, দুই দিন আগেই ভারত সরকারের পদ্মশ্রী সম্মাননা প্রত্যাখ্যান করেছিলেন সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, পদ্মশ্রী প্রত্যাখ্যানের পর মানসিকভাবে একটু ভেঙে পড়েছিলেন প্রবীণ এই শিল্পী। পুরস্কার ঘোষণার এক দিন আগে তাকে জানানো হয় তিনি পদ্মশ্রী পাচ্ছেন। গোটা বিষয়টি তার কাছে অত্যন্ত অপমানজনক বলে মনে হয়, কাজেই পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করেন কিংবদন্তি শিল্পী।

জানা যায়, ভারত সরকার আগে থেকে কিছু জানায়নি। ফোনে যেভাবে পদ্মশ্রী সম্মাননা দেওয়ার প্রস্তাব রাখা হয় শিল্পীর কাছে, তা অত্যন্ত অসম্মানজনক মনে হয়েছে বলে জানান তিনি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন