‘বিচ্ছেদে’ শুরু শারমিনের ‘নতুন জীবন’
jugantor
‘বিচ্ছেদে’ শুরু শারমিনের ‘নতুন জীবন’

  শামীম হোসেন  

১৯ মে ২০২২, ২১:৩২:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

থাইরয়েডের সমস্যায় ভুগে কণ্ঠশিল্পী শারমিন আক্তার গতবছর শেষেরদিকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছিলেন দুই মাস ১০ দিন। কিছুটা সুস্থ হয়ে বাসায় ফেরার পর যুগান্তরকে জানিয়েছিলেন, একটু সময় নিয়েই তিনি গানে ফিরবেন। শারমিন এখন সুস্থ। দীর্ঘ সময় পর আবারও গানে ফিরেছেন প্রতিভাবান এই জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী।

‘পারলে একবার দেইখ্যা যাইও’ শিরোনামে বিচ্ছেদের গান দিয়ে শুরু হলো শারমিনের নতুন ‘জীবন’। সাংবাদিক-গীতিকার মোল্লা জালালের কথা ও সুরে গানটির সংগীতায়োজন করেছেন মান্নান মাহমুদ। ‘ত্রিতাল মিউজিক ও ড্রামা’ ইউটিউব চ্যানেলে গানটি অবমুক্ত করা হয়েছে।

যুগান্তরকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় শারমিন বলেন, মহান শ্রষ্টার প্রতি কৃতজ্ঞ যে, আবারও গানে ফিরতে পেরেছি। আমার নতুন জীবন শুরু হলো। খুব ভালো লাগছে। আশা করি, গানটি সবার পছন্দ হবে। আমার হাতে এখন প্রায় ১০টির মতো গান আছে। অসুস্থ হওয়ার পর দেশ ও দেশের বাইরে থেকে যারা আমার পাশে ছিলেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। আমার জন্য দোয়া করবেন। অতীতের মতো ভবিষ্যতেও আমার পাশে থাকবেন।

শারমিনের দাদা গান গাইতেন। বাবা হুমায়ুন কবির সরকার একাধারে কণ্ঠশিল্পী, সুরকার ও গীতিকার। বাবা-দাদার পথ ধরেই তার গানের ভুবনে প্রবেশ। তার সুরেলা, দরাজ কণ্ঠে লোকজ, আধ্যাত্মিক গানগুলো ভিন্ন মাত্রা পায়। শারমিন ২০১৬ সালে ‘আড়ং ডেইরি-চ্যানেল আই বাংলার গান’র চ্যাম্পিয়ন। গতবছর ২ নভেম্বর হঠাৎ জ্বরে আক্রান্ত হলে স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে ৬ নভেম্বর বাসা থেকে রাজধানীর হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দুই মাস ১০ দিন চিকিৎসা শেষে বাসায় ফেরেন তিনি।

‘বিচ্ছেদে’ শুরু শারমিনের ‘নতুন জীবন’

 শামীম হোসেন 
১৯ মে ২০২২, ০৯:৩২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

থাইরয়েডের সমস্যায় ভুগে কণ্ঠশিল্পী শারমিন আক্তার গতবছর শেষেরদিকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছিলেন দুই মাস ১০ দিন। কিছুটা সুস্থ হয়ে বাসায় ফেরার পর যুগান্তরকে জানিয়েছিলেন, একটু সময় নিয়েই তিনি গানে ফিরবেন। শারমিন এখন সুস্থ। দীর্ঘ সময় পর আবারও গানে ফিরেছেন প্রতিভাবান এই জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী।

‘পারলে একবার দেইখ্যা যাইও’ শিরোনামে বিচ্ছেদের গান দিয়ে শুরু হলো শারমিনের নতুন ‘জীবন’। সাংবাদিক-গীতিকার মোল্লা জালালের কথা ও সুরে গানটির সংগীতায়োজন করেছেন মান্নান মাহমুদ। ‘ত্রিতাল মিউজিক ও ড্রামা’ ইউটিউব চ্যানেলে গানটি অবমুক্ত করা হয়েছে।

যুগান্তরকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় শারমিন বলেন, মহান শ্রষ্টার প্রতি কৃতজ্ঞ যে, আবারও গানে ফিরতে পেরেছি। আমার নতুন জীবন শুরু হলো। খুব ভালো লাগছে। আশা করি, গানটি সবার পছন্দ হবে। আমার হাতে এখন প্রায় ১০টির মতো গান আছে। অসুস্থ হওয়ার পর দেশ ও দেশের বাইরে থেকে যারা আমার পাশে ছিলেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। আমার জন্য দোয়া করবেন। অতীতের মতো ভবিষ্যতেও আমার পাশে থাকবেন।

শারমিনের দাদা গান গাইতেন। বাবা হুমায়ুন কবির সরকার একাধারে কণ্ঠশিল্পী, সুরকার ও গীতিকার। বাবা-দাদার পথ ধরেই তার গানের ভুবনে প্রবেশ। তার সুরেলা, দরাজ কণ্ঠে লোকজ, আধ্যাত্মিক গানগুলো ভিন্ন মাত্রা পায়। শারমিন ২০১৬ সালে ‘আড়ং ডেইরি-চ্যানেল আই বাংলার গান’র চ্যাম্পিয়ন। গতবছর ২ নভেম্বর হঠাৎ জ্বরে আক্রান্ত হলে স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে ৬ নভেম্বর বাসা থেকে রাজধানীর হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দুই মাস ১০ দিন চিকিৎসা শেষে বাসায় ফেরেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন