স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করার কারণ জানালেন সারিকা
jugantor
স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করার কারণ জানালেন সারিকা

  বিনোদন ডেস্ক  

৩০ নভেম্বর ২০২২, ১১:৪২:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

মডেলিং ও নাটকের জনপ্রিয় মুখ সারিকা সাবরিন। অভিনয়ে তার দক্ষতার প্রশংসা সবাই করেন। কিন্তু অভিনয়ের চেয়ে ব্যক্তি জীবন নিয়ে বারবার আলোচনায় চলে আসছেন এই নায়িকা। প্রথম বিয়ে ভেঙে গেছে আরও আগেই। নতুন করে সংসার পেতেছিলেন। এক বছর না যেতেই দ্বিতীয় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

এ ঘটনায় আরও আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে সারিকা। তবে কি দ্বিতীয় বিয়েও টিকছে না?-এমন প্রশ্ন এখন তার ভক্ত-সমালোচকদের মুখে মুখে।

স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করার কারণ জানিয়েছেন সারিকা। তিনি যুগান্তরকে বলেন, আসলে একটা মানুষ কখন থানা-আদালতের দ্বারস্থ হয়? যখন কেউ তার পাশে থাকে না। একদিকে স্বামী জিএস বদরুদ্দীন আহমেদ রাহীর নির্যাতন অন্যদিকে পরিবার-পরিজন পাশে না পাওয়া। বিশেষ করে স্বামী সংক্রান্ত বিষয়ে পরিবার যদি আমাকে সাপোর্ট দিত তাহলে বিষয়টি মামলা পর্যন্ত গড়াত না।

স্বামী নির্যাতন করত জানিয়ে এই নায়িকার ভাষ্য, সে (স্বামী) আমাকে শারীরিক, মানসিক ও আর্থিক-সব দিকেই টর্চার করেছে। আমি তার স্ত্রী, আমি একজন শিল্পী, আমাকে সে যেভাবে টর্চার করেছে তা সহ্য করার মতো নয়। আমাদের বিয়ের সময় ২০ লাখ টাকা দেনমহর ধার্য করা হয়। আমার পরিবারের পক্ষ থেকে ২৫ লাখ টাকার স্বর্ণালংকার, আসবাবসহ সাংসারিক জিনিসপত্র দেওয়া হয়। বিয়ের কয়েকদিন যেতে না যেতেই সে আমার কাছে ৫০ লাখ টাকা দাবি করে। আমার পরিবার থেকে তার জন্য টাকা আনতে বলে। আমি রাজি হইনি বলে সে আমাকে অকথ্য গালাগাল করে, মারধর করে। এ জন্যই আমি মামলা করেছি।

স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করার কারণ জানালেন সারিকা

 বিনোদন ডেস্ক 
৩০ নভেম্বর ২০২২, ১১:৪২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মডেলিং ও নাটকের জনপ্রিয় মুখ সারিকা সাবরিন। অভিনয়ে তার দক্ষতার প্রশংসা সবাই করেন। কিন্তু অভিনয়ের চেয়ে ব্যক্তি জীবন নিয়ে বারবার আলোচনায় চলে আসছেন এই নায়িকা। প্রথম বিয়ে ভেঙে গেছে আরও আগেই। নতুন করে সংসার পেতেছিলেন। এক বছর না যেতেই দ্বিতীয় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। 

এ ঘটনায় আরও আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে সারিকা। তবে কি দ্বিতীয় বিয়েও টিকছে না?-এমন প্রশ্ন এখন তার ভক্ত-সমালোচকদের মুখে মুখে।

স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করার কারণ জানিয়েছেন সারিকা। তিনি যুগান্তরকে বলেন, আসলে একটা মানুষ কখন থানা-আদালতের দ্বারস্থ হয়? যখন কেউ তার পাশে থাকে না। একদিকে স্বামী জিএস বদরুদ্দীন আহমেদ রাহীর নির্যাতন অন্যদিকে পরিবার-পরিজন পাশে না পাওয়া। বিশেষ করে স্বামী সংক্রান্ত বিষয়ে পরিবার যদি আমাকে সাপোর্ট দিত তাহলে বিষয়টি মামলা পর্যন্ত গড়াত না।

স্বামী নির্যাতন করত জানিয়ে এই নায়িকার ভাষ্য, সে (স্বামী) আমাকে শারীরিক, মানসিক ও আর্থিক-সব দিকেই টর্চার করেছে। আমি তার স্ত্রী, আমি একজন শিল্পী, আমাকে সে যেভাবে টর্চার করেছে তা সহ্য করার মতো নয়। আমাদের বিয়ের সময় ২০ লাখ টাকা দেনমহর ধার্য করা হয়। আমার পরিবারের পক্ষ থেকে ২৫ লাখ টাকার স্বর্ণালংকার, আসবাবসহ সাংসারিক জিনিসপত্র দেওয়া হয়। বিয়ের কয়েকদিন যেতে না যেতেই সে আমার কাছে ৫০ লাখ টাকা দাবি করে। আমার পরিবার থেকে তার জন্য টাকা আনতে বলে। আমি রাজি হইনি বলে সে আমাকে অকথ্য গালাগাল করে, মারধর করে। এ জন্যই আমি মামলা করেছি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন