সংবাদ সম্মেলন ডেকেও কেন করলেন না বুবলী?
jugantor
সংবাদ সম্মেলন ডেকেও কেন করলেন না বুবলী?

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০১ ডিসেম্বর ২০২২, ২২:২৩:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে তৈরি হওয়া তার দ্বন্দ্ব ও দাম্পত্য জীবনের টানাপোড়েন নিয়ে বিস্তারিত জানাতে সংবাদ সম্মেলন করার ঘোষণা দিয়েছিলেন ঢাকাই সিনেমার নায়িকা শবনম বুবলী। কিন্তু সেই সংবাদ সম্মেলন তিনি আর করেননি। নায়িকা কেন এমনটা করলেন তা নিয়ে ভক্তদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, শাকিব তাকে ম্যানেজ করে নিয়েছেন।

সিনেমা জগতে শাকিবের হাত ধরেই আগমন ঘটে বুবলীর। ২০১৭ সালে শাকিব খানের সঙ্গে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের বৈবাহিক সম্পর্কে ফাটল ধরে। ওই সময় অপু এ ভাঙনের জন্য বুবলীকেই দায়ী করেছেন।

শাকিবের জীবনে বুবলীর আগমনের কারণেই অপু এ নায়কের সঙ্গে তার গোপন বিয়ের খবর সামনে নিয়ে আসেন। তাও সন্তান সমেত। সেই ভাঙা ঘর আর জোড়া লাগেনি। ঠিক পাঁচ বছর পর বুবলীর সঙ্গেও একই আচরণ করেন শাকিব খান। তারাও গোপনে বিয়ে করেন। বুবলীর গর্ভেও জন্ম নেয় শাকিবের আরেক সন্তান। অপুর মতো বুবলীর ঘটনাও গোপন রাখেন শাকিব।

কিছুদিন আগে চিত্রনায়িকা পূজা চেরির সঙ্গে শাকিব খানের প্রেমের সম্পর্ক এবং সাবেক স্ত্রী অপুর সঙ্গে পুনরায় সম্পর্ক স্থাপনের গুঞ্জন ওঠার পর বুবলীও শাকিবের সন্তানকে নিয়ে সামনে আসেন এবং তাদের বিয়ের কথা জানান। কিছুদিন পর শাকিব বুবলীকে অস্বীকার করেন। বলেন, তার সঙ্গে নাকি কোনো সম্পর্ক নেই এখন। বুবলীর সঙ্গে শাকিব যে আচরণ এখন করছেন, এটাকেই অনেকে বলছেন প্রকৃতির প্রতিশোধ। অনেকের অভিযোগ বুবলীর কারণেই অপুর সংসার ভেঙেছে।

ঠিক একইভাবে বুবলীরও সংসার ভেঙেছে। তবে শাকিব যখন বুবলীর সঙ্গে সম্পর্কহীনতার কথা গণমাধ্যমকে জানান, ঠিক তখন বুবলীও সংবাদ সম্মেলন করে প্রকৃত সত্য তুলে ধরার ‘হুমকি’ দেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দিনক্ষণ ঠিক করেও বুবলী সংবাদ সম্মেলন করেননি। বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে, শাকিব আসলে বুবলীকে ম্যানেজ করে নিয়েছেন। তাই বুবলীও সিদ্ধান্ত থেকে সরে গিয়েছেন।

এতে শাকিবেরই জয় হয়েছে- অনেকে এমনটা বললেও সত্যিকার অর্থে চালকের আসনে বসে রয়েছেন বুবলীই। তিনি চাইলে শাকিবের গোপন তথ্য ফাঁস করে দিতে পারেন, এই ‘হুমকি’ থেকেই শাকিব তার সঙ্গে আপসে গিয়েছেন। এমনটাই বলছে সূত্র। বুবলীর চালকের আসনে বসার আরও একটি ব্যাখ্যা আছে। শাকিব যখন অপুকে ত্যাগ করেছেন তখন থেকে এখনো পর্যন্ত অপু সেভাবে সিনেমা নিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি।

কিন্তু বুবলী শাকিবের বলয় থেকে বের হওয়ার পর বলা যায় এখনকার সবচেয়ে ব্যস্ত নায়িকা তিনি। নিয়মিত তার অভিনীত সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে এবং কাজ করছেন একাধিক সিনেমায়। এ দুঃসময়েও তার হাতে রয়েছে অর্ধডজন সিনেমার কাজ! তাই আসনে বসে গাড়িটা যে বুবলীই চালাচ্ছেন, এটা বলা মোটেও অযৌক্তিক নয়।

সংবাদ সম্মেলন ডেকেও কেন করলেন না বুবলী?

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে তৈরি হওয়া তার দ্বন্দ্ব ও দাম্পত্য জীবনের টানাপোড়েন নিয়ে বিস্তারিত জানাতে সংবাদ সম্মেলন করার ঘোষণা দিয়েছিলেন ঢাকাই সিনেমার নায়িকা শবনম বুবলী। কিন্তু সেই সংবাদ সম্মেলন তিনি আর করেননি। নায়িকা কেন এমনটা করলেন তা নিয়ে ভক্তদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, শাকিব তাকে ম্যানেজ করে নিয়েছেন। 

সিনেমা জগতে শাকিবের হাত ধরেই আগমন ঘটে বুবলীর। ২০১৭ সালে শাকিব খানের সঙ্গে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের বৈবাহিক সম্পর্কে ফাটল ধরে। ওই সময় অপু এ ভাঙনের জন্য বুবলীকেই দায়ী করেছেন।

শাকিবের জীবনে বুবলীর আগমনের কারণেই অপু এ নায়কের সঙ্গে তার গোপন বিয়ের খবর সামনে নিয়ে আসেন। তাও সন্তান সমেত। সেই ভাঙা ঘর আর জোড়া লাগেনি। ঠিক পাঁচ বছর পর বুবলীর সঙ্গেও একই আচরণ করেন শাকিব খান। তারাও গোপনে বিয়ে করেন। বুবলীর গর্ভেও জন্ম নেয় শাকিবের আরেক সন্তান। অপুর মতো বুবলীর ঘটনাও গোপন রাখেন শাকিব।

কিছুদিন আগে চিত্রনায়িকা পূজা চেরির সঙ্গে শাকিব খানের প্রেমের সম্পর্ক এবং সাবেক স্ত্রী অপুর সঙ্গে পুনরায় সম্পর্ক স্থাপনের গুঞ্জন ওঠার পর বুবলীও শাকিবের সন্তানকে নিয়ে সামনে আসেন এবং তাদের বিয়ের কথা জানান। কিছুদিন পর শাকিব বুবলীকে অস্বীকার করেন। বলেন, তার সঙ্গে নাকি কোনো সম্পর্ক নেই এখন। বুবলীর সঙ্গে শাকিব যে আচরণ এখন করছেন, এটাকেই অনেকে বলছেন প্রকৃতির প্রতিশোধ। অনেকের অভিযোগ বুবলীর কারণেই অপুর সংসার ভেঙেছে।

ঠিক একইভাবে বুবলীরও সংসার ভেঙেছে। তবে শাকিব যখন বুবলীর সঙ্গে সম্পর্কহীনতার কথা গণমাধ্যমকে জানান, ঠিক তখন বুবলীও সংবাদ সম্মেলন করে প্রকৃত সত্য তুলে ধরার ‘হুমকি’ দেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দিনক্ষণ ঠিক করেও বুবলী সংবাদ সম্মেলন করেননি। বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে, শাকিব আসলে বুবলীকে ম্যানেজ করে নিয়েছেন। তাই বুবলীও সিদ্ধান্ত থেকে সরে গিয়েছেন।

এতে শাকিবেরই জয় হয়েছে- অনেকে এমনটা বললেও সত্যিকার অর্থে চালকের আসনে বসে রয়েছেন বুবলীই। তিনি চাইলে শাকিবের গোপন তথ্য ফাঁস করে দিতে পারেন, এই ‘হুমকি’ থেকেই শাকিব তার সঙ্গে আপসে গিয়েছেন। এমনটাই বলছে সূত্র। বুবলীর চালকের আসনে বসার আরও একটি ব্যাখ্যা আছে। শাকিব যখন অপুকে ত্যাগ করেছেন তখন থেকে এখনো পর্যন্ত অপু সেভাবে সিনেমা নিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি।

কিন্তু বুবলী শাকিবের বলয় থেকে বের হওয়ার পর বলা যায় এখনকার সবচেয়ে ব্যস্ত নায়িকা তিনি। নিয়মিত তার অভিনীত সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে এবং কাজ করছেন একাধিক সিনেমায়। এ দুঃসময়েও তার হাতে রয়েছে অর্ধডজন সিনেমার কাজ! তাই আসনে বসে গাড়িটা যে বুবলীই চালাচ্ছেন, এটা বলা মোটেও অযৌক্তিক নয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন