ফুয়াদের পরিচালনায় বিজ্ঞাপনে রিচি ও তার দুই সন্তান

প্রকাশ : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:০০ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

রিচি সোলায়মানের সঙ্গে নির্মাতা ফুয়াদ (ডানে) এবং অভিজাত গ্রুপের চেয়ারম্যান (বামে)। ছবি-সংগৃহীত

নতুন একটি বিজ্ঞাপনে মডেল হলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী রিচি সোলায়মান ও তার দুই সন্তান। নিজে অনেক বিজ্ঞাপনে অভিনয় করলেও গল্পের প্রয়োজনে এই প্রথম বিজ্ঞাপনে আনলেন নিজের দুই সন্তান রায়ান ও কন্যা ইলমাকে। 

তরুণ ও উদীয়মান নির্মাতা হাসান মাহমুদ ফুয়াদের পরিচালনায় সম্প্রতি রাজধানীর উত্তরায় শুটিং হয়েছে ‘অভিজাত কালিজিরা চাল’ এর বিজ্ঞাপনটির।  

গল্পের প্রয়োজনে বিজ্ঞাপনে ইলমাকে তার পুত্র সন্তান হিসেবে দেখা যাবে। আবার ইলমা যখন আরেকটু বড় হবে তখন রায়ানকে দেখা যাবে।

বিজ্ঞাপন ও নিজের সন্তানদের নিয়ে কাজ করা প্রসঙ্গে রিচি সোলায়মান বলেন, এর আগে রায়ান এবং ইলমা নাটকে অভিনয় করেছে। কিন্তু এবারই প্রথম আমার দুই সন্তান আমারই সঙ্গে প্রথমবারের মতো বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছে। যেহেতু আমি দেশের বাইরে থাকি। সবসময় আম্মা রায়ান ও ইলমাকে পাশে পান না। তাই আম্মা যেন ওদেরকে টিভি পর্দায় নিয়মিত দেখতে পারেন, সেই ভাবনা থেকেও কাজটি করা।

নির্মাতার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে রিচি সোলায়মান আরও জানান, মডেল হিসেবে ইলমা ও রায়ান দু’জনই চমৎকার কাজ করেছে। আমি তাদের কাজে মুগ্ধ হয়েছি। ইউনিটের সবাই ওদের কাজ দেখে অবাক হয়েছে। ধন্যবাদ নির্মাতা হাসান মাহমুদ ফুয়াদকে এভাবে সুন্দর একটি কাজে আমাকে সম্পৃক্ত রাখার জন্য। বিজ্ঞাপনটি প্রচার নিয়ে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। 

নির্মাতা হাসান মাহমুদ ফুয়াদ বলেন, রিচি আপু একজন অসাধারণ অভিনেত্রী। আমারা জানি তিনি আমেরিকায় থাকেন। আমরা তো সবসময় তাকে কাছে পায় না। খুব তাড়াতাড়ি তিনি আমেরিকায় চলে যাবেন। তাই তাড়াহুড়া করে বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করেছি। আশা করি সকলের ভাল লাগবে। 

এ সময় নির্মাতা ফুয়াদ রায়ান ও ইলমার অভিনয়ের প্রশংসা করে বলেন, মায়ের মতো সন্তানরাও খুব ভাল অভিনয় করেছেন। আমি তাদের অভিনয়ে মুগ্ধ হয়েছি। যে আন্তরিকতা নিয়ে রিচি আপু ও তার দুই সন্তান কাজ করেছে আমি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। 

শিগগিরই বিজ্ঞাপনটি দেশের প্রায় সবগুলো চ্যানেলে প্রচারিত হবে বলে জানান ফুয়াদ।


অভিনেত্রী রিচি সোলায়মানের সঙ্গে তার সন্তান ও নির্মাতা হাসান মাহমুদ ফুয়াদ

উল্লেখ্য, মডেল ও অভিনেত্রী রিচি সোলায়মান স্বামী সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে অনেকদিন ধরেই আমেরিকায় স্থায়ী বসবাস করছেন। এরপরেও তিনি প্রতি বছরই দেশে আসেন। দেশে আসলেই পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর পাশাপাশি কিছু নাটকে অভিনয় করে থাকেন।