২৬ জানুয়ারি: দেশে দেশে উদযাপিত দিবসসমূহ

  যুগান্তর ডেস্ক ২৬ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:০০ | অনলাইন সংস্করণ

২৬ জানুয়ারি: দেশে দেশে উদযাপিত দিবসসমূহ
এবারের কাস্টমস দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী স্মারক ডাক টিকিট, উদ্বোধনী খাম, ডাটাকার্ড ও সিলমোহর অবমুক্ত করেছেন।

আজ ২৬ জানুয়ারি ২০১৯। আজ আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস। এছাড়াও যেসব দিবস রয়েছে সেগুলো হলো - প্রজাতন্ত্র দিবস (ভারত), মুক্তি দিবস (উগান্ডা), অস্ট্রেলিয়া দিবস (অস্ট্রেলিয়া)।

আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস:

আজ আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস। প্রতি বছর ২৬ জানুয়ারি বিশ্ব কাস্টমস অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউসিও) সদস্যভুক্ত ১৭৯টি দেশে দিবসটি পালন করা হয়। ২০০৯ সাল থেকে ডব্লিউসিও ২৬ জানুয়ারিকে কাস্টমস দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। এরপর থেকেই বাংলাদেশও সংস্থাটির সদস্য হিসেবে দিবসটি পালন করছে।

এবার কাস্টমস দিবসের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য নিরাপদ বাণিজ্য পরিবেশ।’ প্রতিবারের ন্যায় এ বছরও বাংলাদেশে নানা আয়োজনে দিবসটি পালিত হবে।

দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) উদ্যোগে আজ সকাল ৮টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচা রাজস্ব ভবন প্রাঙ্গণ থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়েছে। এছাড়া সন্ধ্যা ৬টায় সোনারগাঁও হোটেলে সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে।

দিসবটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিবসের সফলতা কামনা করে পৃথক বাণী দিয়েছেন।

এবারের কাস্টমস দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী এরই মধ্যে ১০ টাকা মূল্যমানের একটি স্মারক ডাক টিকিট, ১০ টাকা মূল্যমানের উদ্বোধনী খাম এবং ৫ টাকা মূল্যমানের একটি ডাটাকার্ড ও একটি বিশেষ সিলমোহর অবমুক্ত করেছেন।

প্রজাতন্ত্র দিবস (ভারত):

আজ ভারতে তাদের ৬৮তম প্রজাতন্ত্র দিবস পালিত হচ্ছে। সংবিধান প্রবর্তনের স্মৃতিতে প্রতি বছর ২৬ জানুয়ারি তারিখটি ভারতে প্রজাতন্ত্র দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয়।

এটি ভারতের একটি জাতীয় দিবস। ১৯৫০ সালের ২৬ জানুয়ারি ভারতীয় গণপরিষদ সংবিধান কার্যকরী হলে ভারত একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে পরিণত হয়।

১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট ভারতবর্ষ ব্রিটিশ মুক্ত হয়ে ভারত ও পাকিস্তান দুটি পৃথক স্বাধীন রাষ্ট্রে পরিণত হলেও ভারতে দেশের প্রধান হিসেবে তখনও ষষ্ঠ জর্জ এবং গভর্ণর জেনারেল পদে লর্ড লুই মাউন্টব্যাটেন বহাল ছিলেন ।

দেশে কোনো স্থায়ী সংবিধান ছিল না। ঔপনিবেশিক ভারত শাসন আইনে কিছু রদবদল ঘটিয়েই দেশ শাসনের কাজ চলছিল।

সে বছরের ২৮ আগস্ট একটি স্থায়ী সংবিধান রচনার জন্য ড্রাফটিং কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন ভীমরাও রামজি আম্বেডকর।

৪ নভেম্বরে কমিটি একটি খসড়া সংবিধান প্রস্তুত করে গণপরিষদে জমা দেয়।বহু বিতর্ক ও কিছু সংশোধনের পর ১৯৫০ সালের এ গণপরিষদের ৩০৮ জন সদস্য চূড়ান্ত সংবিধানের হাতে লেখা দুটি নথিতে স্বাক্ষর করেন।

এর দুদিন পর ২৬ জানুয়ারি সারা দেশব্যাপী এই সংবিধান কার্যকর হয়। রাজধানী নয়াদিল্লীতে এই দিন রাজপথে আড়ম্বরপূর্ণ কুচকাওয়াজ করে ভারত দিবসটি উদযাপন করছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×