১৬ ফেব্রুয়ারি: হাসতে নেই মানা

  যুগান্তর ডেস্ক ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:০০ | অনলাইন সংস্করণ

১৬ ফেব্রুয়ারি: হাসতে নেই মানা
ছবি: সংগৃহীত

* জোকস-১

এক মেয়ের বিয়ে হচ্ছে। সেখানে তার প্রাক্তন প্রেমিকও এসেছে।

তাদের ব্রেকআপ সম্পর্কে অজ্ঞ এক লোক এসে জিজ্ঞেস করলো, ‘আপনিই কি বর?’

প্রাক্তন প্রেমিক : না! আমি তো সেমিফাইনালেই বাদ হয়ে গেছি, ফাইনাল দেখতে এসেছি!

* জোকস-২

বিয়ে বার্ষিকীর দিন সকালবেলা স্ত্রী নাস্তার টেবিলে স্বামীকে বলল, ‘আমি স্বপ্ন দেখেছি তুমি আজকে আমাকে হীরার আংটি উপহার দিয়েছো। এর মানে কী গো?’

স্বামী: তাই? আচ্ছা, রাত্রে বলবো।

রাত্রে স্বামী অফিস থেকে ফিরলো ছোট্ট একটি রেপিং পেপারে মোড়ানো প্যাকেট হাতে, উপরে কার্ডে লেখা ‘ভালোবাসার দিনে আমার উপহার’।

স্ত্রী ছোঁ মেরে স্বামীর হাত থেকে প্যাকেটটি নিয়ে আলমারিতে রেখে দিল।

সকালে স্বামী অফিসে চলে গেলে প্রিয় বান্ধবীকে ডেকে এনে উপহারটি কীভাবে চালাকি করে স্বামীর কাছ থেকে আদায় করেছে এই গল্প করতে করতে প্যাকেটটি খুলে ফেললো, প্যাকেটের ভিতরে চোখ পড়তেই স্ত্রী জ্ঞান হারিয়ে ফেললো। বান্ধবী প্যাকেটের ভিতর উঁকি মেরে দেখলো একটি বই, বইয়ের নাম- আসল খাবনামা!

* জোকস-৩

বাবলু তার স্ত্রীকে বিদেশ থেকে রাতে ফোন করলো। ফোনটা এক চাকর ধরলো।

চাকর: হ্যালো।

বাবলু: তোর মেমসাহেবকে ফোনটা দে।

চাকর: কিন্তু মেমসাহেব তো সাহেবের সাথে বেডরুমে ঘুমাচ্ছে।

বাবলু: মানে? সাহেব তো আমি!

চাকর: আমি এখন কী করব?

বাবলু: দুইজনকেই গুলি করে মেরে ফেল, তোকে ৫ লাখ টাকা দেবো।

চাকর দুইজনকে গুলি করে মারার পর-

চাকর: সাহেব, লাশ ২টা এখন কী করব?

বাবলু : লাশ ২টা বাড়ির পিছনের সুইমিংপুলে ফেলে দে।

চাকর: কিন্তু সাহেব, বাড়ির পিছনে তো কোনো সুইমিংপুল নাই।

বাবলু : সুইমিং পুল নাই! ওহ সরি, তাইলে রং নাম্বার!

* জোকস-৪

লিপস্টিকবাবা ছেলেকে বলছেন:

প্রতিদিন সামান্য ব্যাপার নিয়ে চিৎকার করে বাড়ি মাথায় তোলা তোর মা আজকে এতো চুপচাপ বসে আছে কেন রে?

ছেলে: তেমন কিছুনা বাবা। মা আমার কাছে লিপস্টিক চেয়েছিল, কিন্তু আমি শুনেছি গ্লু স্টিক!

বাবা: গড ব্লেস ইয়্যু মাই সন!

* জোকস-৫

এক লোক হোটেলের সাইনবোর্ড দেখে খুব খুশি হয়ে ইচ্ছেমতো খেলেন।

ওয়েটার: স্যার, আপনার বিল ৫০০ টাকা।

লোকটি: কী বলছেন ভাই? আমার বিল? কিন্তু আপনাদের সাইনবোর্ডে যে লেখা, ‘আপনি যা খাবেন আপনার নাতি তা শোধ করবে।’

ওয়েটার: সেটা না হয় না পরে দিয়েন। কিন্তু এই ৫০০ টাকা দিন। এটা আপনার দাদার বিল!

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×