২৭ সেপ্টেম্বর: হাসতে নেই মানা
jugantor
২৭ সেপ্টেম্বর: হাসতে নেই মানা

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:০০:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

* জোকস-১

শিক্ষক: বলো তো মশা কয় প্রকার?
ছাত্র: মশা আট প্রকার। যথা-
১. যে মশা গায়ে বসামাত্রই কামড়ায় তাকে রাক্ষস মশা বলে।
২. যে মশা দিনের বেলায় কামড়ায় তাকে সন্ত্রাসী মশা বলে।
৩. যে মশা নাকের ভেতর ঢুকে কামড়ায় তাকে নমরুদী মশা বলে।
৪. যে মশা সুযোগ পেলেই কামড়ায় তাকে সুযোগসন্ধানী মশা বলে।
৫. যে মশা কানের কাছে এসে গান গায় তাকে গায়ক মশা বলে।
৬. যে মশাকে থাপ্পর দিলে ফাঁক দিয়ে চলে যায় তাকে গোল্লাছুট মশা বলে।
৭. যে মশা কামড় দিলে জ্বর হয় তাকে বিষাক্ত মশা বলে।
৮. যে মশা মশারির ভেতর ঢুকে কামড়ায় তাকে মূর্খমশা বলে।

* জোকস-২

মেয়ে: আমি মা হতে চলেছি।
মা: কোথায় গেছিলি বংশের মুখ কালো করার জন্য? বল তাড়াতাড়ি, নইলে সিমেন্টের সাথে দেয়ালে একেবারে প্যাকেট করে রেখে দেব!
মেয়ে: স্কুলের একটা নাটকে ‘মা’র চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছি আমি।

* জোকস-৩

গতকাল রাতে এক বন্ধু রনিকে একটি মেসেজ দিয়েছে। মেসেজটি পড়ে রনি ভয়ে লাফিয়ে উঠলো। মেসেজটি ছিল এ রকম-
‘প্রিয় বন্ধু, এখন আমার হাতে এক বোতল বিষ। আমি মুক্তি পেতে চাই। এত জ্বালা আমার আর সহ্য হয় না, এত যন্ত্রণা আর ভালো লাগে না। আমি রাতে ঘুমাতে পারি না, ঠিকমত খেতে পারি না। সব সময় রুমের ভেতর একটু বেশি যেন অস্থির থাকি, যেটা আমাকে ভীষণ কষ্ট দেয়। তাই যাচ্ছি… ইঁদুর মারতে। শুভ রাত্রি!’

২৭ সেপ্টেম্বর: হাসতে নেই মানা

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:০০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

*  জোকস-১

শিক্ষক: বলো তো মশা কয় প্রকার?
ছাত্র: মশা আট প্রকার। যথা-
১. যে মশা গায়ে বসামাত্রই কামড়ায় তাকে রাক্ষস মশা বলে।
২. যে মশা দিনের বেলায় কামড়ায় তাকে সন্ত্রাসী মশা বলে।
৩. যে মশা নাকের ভেতর ঢুকে কামড়ায় তাকে নমরুদী মশা বলে।
৪. যে মশা সুযোগ পেলেই কামড়ায় তাকে সুযোগসন্ধানী মশা বলে।
৫. যে মশা কানের কাছে এসে গান গায় তাকে গায়ক মশা বলে।
৬. যে মশাকে থাপ্পর দিলে ফাঁক দিয়ে চলে যায় তাকে গোল্লাছুট মশা বলে।
৭. যে মশা কামড় দিলে জ্বর হয় তাকে বিষাক্ত মশা বলে।
৮. যে মশা মশারির ভেতর ঢুকে কামড়ায় তাকে মূর্খমশা বলে।

*  জোকস-২

মেয়ে: আমি মা হতে চলেছি।
মা: কোথায় গেছিলি বংশের মুখ কালো করার জন্য? বল তাড়াতাড়ি, নইলে সিমেন্টের সাথে দেয়ালে একেবারে প্যাকেট করে রেখে দেব!
মেয়ে: স্কুলের একটা নাটকে ‘মা’র চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছি আমি।

* জোকস-৩

গতকাল রাতে এক বন্ধু রনিকে একটি মেসেজ দিয়েছে। মেসেজটি পড়ে রনি ভয়ে লাফিয়ে উঠলো। মেসেজটি ছিল এ রকম-
‘প্রিয় বন্ধু, এখন আমার হাতে এক বোতল বিষ। আমি মুক্তি পেতে চাই। এত জ্বালা আমার আর সহ্য হয় না, এত যন্ত্রণা আর ভালো লাগে না। আমি রাতে ঘুমাতে পারি না, ঠিকমত খেতে পারি না। সব সময় রুমের ভেতর একটু বেশি যেন অস্থির থাকি, যেটা আমাকে ভীষণ কষ্ট দেয়। তাই যাচ্ছি… ইঁদুর মারতে। শুভ রাত্রি!’