‘যে জলে আগুন জ্বলে’র কবির জন্মদিন আজ
jugantor
‘যে জলে আগুন জ্বলে’র কবির জন্মদিন আজ

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৭:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

হইচই ফেলে দেওয়া কবিতাগ্রস্থ ‘যে জলে আগুন জ্বলে’-এর কবি হেলাল হাফিজের ৭৪তম জন্মদিন আজ। ১৯৪৮ সালের এই দিনে নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার বড়তলী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন এ কবি।

দ্রোহ ও ভালোবাসার কবি হেলাল হাফিজ বাংলাদেশের আধুনিক কবিদের অন্যতম।

তার কবিতা সংকলন ‘যে জলে আগুন জ্বলে’ ১৯৮৬ সালে প্রকাশিত হওয়ার পর ৩৩টিরও বেশি সংস্করণ হয়েছে।

২০১২ সালে আসে তার দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ ‘কবিতা একাত্তর’।

তবে তার অন্যতম জনপ্রিয় কবিতা ১৯৬৯ সালে গণঅভ্যুত্থানের সময় রচিত ‘নিষিদ্ধ সম্পাদকীয়’। এ কবিতার দুটি পঙ্ক্তি ‘‘এখন যৌবন যার মিছিলে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়, এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’। কবিতাটি তাকে খ্যাতি এনে দেয়।

সাংবাদিক ও সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় কাজ করেছেন কবি হেলাল হাফিজ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রাবস্থায় ১৯৭২ সালে সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন দৈনিক পূর্বদেশে। ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত সেখানেই কর্মরত ছিলেন তিনি। ১৯৭৬ সালের শেষ দিকে দৈনিক দেশ পত্রিকায় সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে যোগ দান করেন।

দেশের শীর্ষস্থানীয় পত্রিকা দৈনিক যুগান্তরের ফিচার সম্পাদক ছিলেন তিনি।

গুণী এ কবির শৈশব, কৈশোর ও যৌবন কেটেছে নেত্রকোনা শহরেই। ১৯৬৭ সালে নেত্রকোনা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে একই বছর কবি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে ভর্তি হন।

আগামী ডিসেম্বরে যুগপৎ ঢাকা ও কলকাতা থেকে প্রকাশ হচ্ছে ৩৪টি কবিতা নিয়ে তার দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ ‘বেদনাকে বলেছি কেঁদো না’।

কবিতায় অসামান্য অবদানের স্মারক হিসেবে ২০১৩ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কারে ভূষিত হন এ কবি।

এ ছাড়া তিনি পেয়েছেন- যশোর সাহিত্য পরিষদ পুরস্কার (১৯৮৬), আবুল মনসুর আহমদ সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৭), নেত্রকোনা সাহিত্য পরিষদের কবি খালেকদাদ চৌধুরী পুরস্কার ও সম্মাননা।

কবিতাকে ভালোবেসে এ কবি অবিবাহিত রয়ে গেছেন। থাকছেন রাজধানী ঢাকায়।

‘যে জলে আগুন জ্বলে’র কবির জন্মদিন আজ

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হইচই ফেলে দেওয়া কবিতাগ্রস্থ ‘যে জলে আগুন জ্বলে’-এর কবি হেলাল হাফিজের ৭৪তম জন্মদিন আজ। ১৯৪৮ সালের এই দিনে নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার বড়তলী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন এ কবি।

দ্রোহ ও ভালোবাসার কবি হেলাল হাফিজ বাংলাদেশের আধুনিক কবিদের অন্যতম। 

তার কবিতা সংকলন  ‘যে জলে আগুন জ্বলে’ ১৯৮৬ সালে প্রকাশিত হওয়ার পর ৩৩টিরও বেশি সংস্করণ হয়েছে। 

২০১২ সালে আসে তার দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ  ‘কবিতা একাত্তর’। 

তবে তার অন্যতম জনপ্রিয় কবিতা ১৯৬৯ সালে গণঅভ্যুত্থানের সময় রচিত ‘নিষিদ্ধ সম্পাদকীয়’। এ কবিতার দুটি পঙ্ক্তি ‘‘এখন যৌবন যার মিছিলে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়, এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’। কবিতাটি তাকে খ্যাতি এনে দেয়। 

সাংবাদিক ও সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় কাজ করেছেন কবি হেলাল হাফিজ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রাবস্থায় ১৯৭২ সালে সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন দৈনিক পূর্বদেশে। ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত সেখানেই কর্মরত ছিলেন তিনি। ১৯৭৬ সালের শেষ দিকে দৈনিক দেশ পত্রিকায় সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে যোগ দান করেন। 

দেশের শীর্ষস্থানীয় পত্রিকা দৈনিক যুগান্তরের ফিচার সম্পাদক ছিলেন তিনি। 

গুণী এ কবির শৈশব, কৈশোর ও যৌবন কেটেছে নেত্রকোনা শহরেই। ১৯৬৭ সালে নেত্রকোনা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে একই বছর কবি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে ভর্তি হন।

আগামী ডিসেম্বরে যুগপৎ ঢাকা ও কলকাতা থেকে প্রকাশ হচ্ছে ৩৪টি কবিতা নিয়ে তার দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ ‘বেদনাকে বলেছি কেঁদো না’। 

কবিতায় অসামান্য অবদানের স্মারক হিসেবে ২০১৩ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কারে ভূষিত হন এ কবি। 

এ ছাড়া তিনি পেয়েছেন- যশোর সাহিত্য পরিষদ পুরস্কার (১৯৮৬), আবুল মনসুর আহমদ সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৭), নেত্রকোনা সাহিত্য পরিষদের কবি খালেকদাদ চৌধুরী পুরস্কার ও সম্মাননা। 

কবিতাকে ভালোবেসে এ কবি অবিবাহিত রয়ে গেছেন। থাকছেন রাজধানী ঢাকায়।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন