৪ সেপ্টেম্বর: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

প্রকাশ : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক   

ঘটনাবলি:
১৪৯২ - ক্রিস্টোফার কলম্বাস স্পেন থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ অভিমুখে যাত্রা করেন।

১৮৬৬ - হাওয়াইতে প্রথম সংবাদপত্র প্রকাশিত হয়।

১৮৮২ - মার্কিন বিজ্ঞানী এডিসন বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা আবিস্কার করেন।

১৮৮৫ - নিউইয়র্কে প্রথম ক্যাফেটারিয়া চালু হয়।

১৮৮৮ - জর্জ ইস্টম্যান ক্যামেরার রোল ফিল্ম প্যাটেন্ট করেন।

১৮৯৪ - নিউইয়র্ক শহরে ১২,০০০ দর্জি ধর্মঘট করে।

১৯০৪ - ব্রিটিশদের সঙ্গে দালাই লামার বাণিজ্যিক চুক্তি হয়।

১৯০৯ - লন্ডনের কাছে ক্রিস্টল প্যালেপে বিশ্বের প্রথম বয় স্কাউট র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়।

১৯১১ - বঙ্গীয় মুসলিম সাহিত্য সমিতি প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯৩০ - লন্ডনে কেমব্রিজ থিয়েটার চালু হয়।

১৯৩২ - ভিয়েনায় বিশ্ব শান্তি সম্মেলন শুরু হয়।

১৯৪০ - ব্রিটেনের যুদ্ধ শুরু হয়।

১৯৮৭ - রাজস্থানে অষ্টাদশী রূপ কানওয়ার ‘সতী’ হবার জন্য স্বামীর চিতায় জীবন্ত দগ্ধ হয়।

১৯৯৫ - বেজিংয়ে ১৮০টি দেশের প্রতিনিধিদের নিয়ে চতুর্থ বিশ্ব নারী সম্মেলন শুরু হয়।

জন্মদিন

শেখ ওয়াজেদ আলি (১৮৯০ - ১৯৫১)

শেখ ওয়াজেদ আলি একজন প্রখ্যাত বাঙালি সাহিত্যিক। তিনি মূলত `এস ওয়াজেদ আলি` নামেই অধিক পরিচিত। তিনি বঙ্গীয় মুসলমান সাহিত্য সমিতির সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

ম্যাক্স ডেলবুর্ক (১৯০৬ - ১৯৮১)

ম্যাক্স লুডউইগ ডেলবুর্ক জার্মান-আমেরিকান জীববিজ্ঞানী। তিনি ১৯৬৯ সালে ভাইরাসের জেনেটিক গঠন ও অনুলিপন সম্পর্কিত গবেষণার জন্য অ্যালফ্রেড হার্সে ও স্যালভাদর লরিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে চিকিৎসাবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন।

মৃত্যুবার্ষিকী

অজিত রায় (১৯৩৮ - ২০১১)

অজিত রায় ছিলেন বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী, সুরকার ও স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম সংগঠক। প্রথীতযশা কন্ঠ শিল্পী ও সঙ্গীতজ্ঞ হিসেবে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ভুবনে অত্যন্ত পরিচিত ব্যক্তিত্ব ছিলেন তিনি। একাধারে গায়ক, গীতিকার, সুরকার এবং সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে চার দশকেরও অধিক সময় ধরে তাঁর দৃপ্ত পদচারণায় মুখরিত ছিল সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডল।

সৈয়দ মুস্তাফা সিরাজ (১৯৩০ - ২০১২)

সৈয়দ মুস্তাফা সিরাজ একজন ভারতীয় বাঙালি লেখক। তাঁর আত্মবিশ্বাস ও আত্মসম্মান ছিল প্রবল। সংবাদপত্রে চাকরি করলেও কোনো মালিকানাগোষ্ঠীর কাছে মাথা নিচু করেননি। সৈয়দ মুস্তাফা সিরাজের `অলীক মানুষ` উপন্যাসটি ভারত সরকারের সাহিত্য আকাদেমি পুরস্কার, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বঙ্কিম পুরস্কার দ্বারা সম্মানিত হয়। `অমর্ত্য প্রেমকথা` বইয়ের জন্য জন্য তিনি দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় প্রদত্ত নরসিংহদাস স্মৃতিপুরস্কার পেয়েছেন। এছাড়া ১৯৭৯ সালে পেয়েছেন আনন্দ পুরস্কার।