হাজার টাকার পাথর ৭৫ কোটি টাকায়

  যুগান্তর ডেস্ক    ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১২:৫৫ | অনলাইন সংস্করণ

হাজার টাকার পাথর ৭৫ কোটি টাকায়

চোখে পড়ার মতো তেমন কিছুই নেই। অবহেলায় পড়েছিল ঘরে বছরের পর বছর। কিন্তু পরে দেখা গেছে জিনিসটি আর সাধারণ কিছু নয়, নিলামে তুললে এর মূল্য আকাশচুম্বী।

এমন কয়েকটি ব্যবহার্য বস্তু নিয়ে আজকের এ উপস্থাপন, যার দাম ছিল প্রথমে সামান্যই।

সিরামিক প্লেট ১৯৭০ সালে একটি সিরামিক প্লেট কিনেছিলেন আমেরিকার রোড আইল্যান্ডের এক বাসিন্দা। সেই সময়ের বাজারমূল্য অনুযায়ী সাড়ে ৬ হাজার টাকা দিয়ে এ প্লেটটি কিনেছিলেন তিনি। রান্নাঘরে গ্যাস ওভেনের পাশেই রাখা ছিল এটি। তেমন আহামরি দেখতে ছিল না প্লেটটি।

তবে প্লেটে ছিল একটি নকশা। পরে জানা গেছে, এ নকশাটি পিকাসোর আঁকা। ব্যস মাত্র সাড়ে ৬ হাজার টাকা দামের প্লেটের মূল্য গিয়ে দাঁড়ায় প্রায় ৭৫ কোটি টাকা।

অমূল্য পাথর দরজার পাশে পড়েছিল এক টুকরো পাথর। পাথটি ছিল ৩০ বছরের পুরনো। দেখতেও একটু বিদঘুঁটে। একটু ভিন্ন ধরনের পাথর দেখে অনেকটা শখের বসে দুই হাজার টাকায় এটিকে কিনেছিলেন এক ব্যক্তি।

বাড়িতে দরজার পাশে রেখে দেন তিনি। পরে এ পাথরের দাম ধার্য হয় প্রায় ৭৫ কোটি টাকা! এর কারণ পাথরটি ছিল মেটিওরাইট! অর্থাৎ এটি ছিল মহাকাশ থেকে খসেপড়া ধূমকেতু বা উল্কার টুকরো।

একটি ফটোগ্রাফ মাত্র ৯৬৪ টাকায় একটি ফটোগ্রাফ কিনে অযত্নে অ্যালবামে রেখে দিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। পরে জানা যায়, সেটি আমেরিকার কুখ্যাত ডাকাক জেসি জেমসের। যিনি ছিলেন অ্যাডভেঞ্চারাস গল্পের সত্যিকার প্রবাদ পুরুষ রবিনহুড।

ঐতিহাসিক এ চরিত্রটি নিয়ে যে কিংবদন্তি রচিত, তা হল তিনি ধনীদের থেকে টাকা ছিনতাই করে দরিদ্রদের বিলিয়ে দিতেন। এ ফটোগ্রাফ ছিল সেই কিংবদন্তি রবিনহুডেরই। এটি জানার পর পরই এ ফটোগ্রাফটির দাম ধার্য হয় প্রায় ১৫ কোটি টাকা।

চকমকে ব্রোচ মেয়েকে একটি ব্রোচ কিনে উপহার দিয়েছিলেন মা। দাম ছিল দুই হাজার টাকা। পরে জানা যায়, এটি রাশিয়ার এক রানির। অভিজাত ও প্রাচীন ব্রোচটির দাম প্রায় ৪ লাখ ১০ হাজার টাকা।

ঐতিহাসিক ঘোষণাপত্র বিভিন্ন ঐতিহাসিক জিনিসপত্র কেনার অভ্যাস ছিল এক অর্থনীতি বিশেষজ্ঞের। মাত্র ২৮০ টাকায় একটি ছবি কিনেছিলেন তিনি। পরে দেখা গেল এটি আসলে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র। ১৭৭৬ সালে ৫০০ অফিসিয়াল কপির মধ্যে একটি। এমন ঐতিহাসিক পত্রের প্রথমেই দাম ধার্য হয় প্রায় ১৮ কোটি টাকা!

দৈত্যাকার মুক্তা দৈত্যাকার এক মুক্তা পেয়েছিলেন এক জেলে। এটি ছিল ২.২ ফুট লম্বা, এক ফুট চওড়া ও ৩৫ হাজার গ্রাম। পাথর হিসেবে ঘরের এক প্রান্তেই রেখে দিয়েছিলেন তিনি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ প্রাকৃতিক মুক্তা এটি। এ কারণে এর অমূল্য এ সম্পদটির দাম ওঠে প্রায় ৭৪২ কোটি টাকা!

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter