ছেলে হত্যার বিচার চায় কুয়েত প্রবাসী সফিকুল

  সাদেক রিপন, কুয়েত থেকে ২১ জানুয়ারি ২০১৯, ১২:৫৬ | অনলাইন সংস্করণ

বিচার

নতুন বই হাতে নতুন বিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে বড় বোন সুমাইয়ার হাত ধরে মাত্র দুই দিন স্কুলে যাওয়ার পর আর বিদ্যালয়ে যাওয়া হলো না কুয়েত প্রবাসী শফিকুল ইসলামের ছেলে হাবিবুল বাসার ফয়সালের (৫)।

পরিবারের সবার নয়নের মনি ফয়সাল কে সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারা বাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের আইডিয়াল স্কুলের ক্লাস নার্সারীতে ভর্তি হয়ে বুধবার, বৃহস্পতিবার দুই দিন স্কুলে যাওয়ার পর শুক্রবার ৪ জানুয়ারি সকালে খেলাধুলা করতে গিয়ে সেখান থেকে অপহরণের পর হত্যা করা হয়।

আশপাশে কোথাও সন্ধান না পাওয়ায় ঐদিন দোয়ারাবাজার থানায় একটি নিখোঁজ সংক্রান্ত সাধারণ ডায়েরী নং ১৪৫ করেন ফয়সালের দাদা আবুল বাসার। ৭ জানুয়ারি ভোরে বড়খাল গ্রামের মরাচেলা নদীর পূর্ব পাড়ে একটি শিশুর লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। দোয়ারা বাজার থানা পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। ফয়সালে মা মনিরা আক্তার বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ও হত্যা মামলা নং ৫ ০৮/০১/১৯ দায়ের করেন।

নিহত ফয়সালের পিতা কুয়েত প্রবাসী সফিকুল ইসলাম বলেন, আমি র্দীঘ ১৯ বছর যাবৎ প্রবাসে আছি। এবার দেশে যাওয়ার পর ছুটি শেষে ২৫ ডিসেম্বর কুয়েতে আসার পর ৪ জানুয়ারি আমার একমাত্র ছেলেকে অপহরণ করে হত্যা করা হয়।

বাংলাদেশ সরকারে কাছে একটা দাবী আমাদের প্রবাসীদের পরিবার জানমালে নিরাপত্তা চাই। সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে আমার নিষ্পাপ নিরপরাধ ছেলের খুনিদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি। আগামীতে যাতে অন্যকোন প্রবাসী পরিবারের সঙ্গে আমার মতো এ রকম ঘটনা না ঘটে সেজন্য দেশের প্রশাসন, দেশবাসী ও প্রবাসী ভাইদের সহযোগিতা কামনা করছি।

এবিষয়ে দোয়ারাবাজার থানার মামলার তদন্তকর্মকর্তা আবু বক্কর সিদ্দিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ মামলায় সন্দেহভাজন শাহ আলম (২২) নামে একজনকে আটক করা হয়েছে এবং মামলা তদন্ত প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×