রিয়াদে প্রবাসীদের ঈদ উৎসবে সামাজিক অবক্ষয় রোধে কাজ করার প্রত্যয়

  সাগর চৌধুরী, সৌদি আরব থেকে ২৪ আগস্ট ২০১৯, ১৫:০৬ | অনলাইন সংস্করণ

অবক্ষয়

রিয়াদে কেরানীগঞ্জ প্রবাসীদের ঈদ উৎসব ও সংবর্ধনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে । বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) রাতে স্থানীয় একটি কম্যুনিটি সেন্টারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্যবসায়ী ও রাজনৈতিক শাওন মহসিন খান।

প্রবাসী কেরানীগঞ্জ যুব সমাজ আয়োজিত ঈদ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, ঢাকা প্রবাসী অ্যাসোসিয়েশনের সিনিয়র সহসভাপতি কবি শাহজাহান চঞ্চল। সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন বাঘাপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজ- প্রাক্তন ছাত্র সংসদের সভাপতি শাহ আলম। সফিক আহমদের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, ব্যবসায়ী তাজুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার সাঈদ আহমেদ, ব্যবসায়ী গাজী মহিউদ্দীন, শেখ দেলোয়ার হোসেন, জিলানী বেপারী, হানিফ পারভেজ, সামছুল আলম, বাদল মোল্লাসহ আরও অনেকে।

বক্তারা বলেন, শুধু কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয় নয়, মাদকের ভয়ঙ্কর থাবায় কলঙ্কিত হচ্ছে স্কুলশিক্ষার্থীরাও। সেখানে অপ্রাপ্তবয়সীরাও যোগ দিচ্ছে মাদক সেবনে। ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণিতে উঠতে না উঠতেই ভয়ঙ্কর নেশার পথ ধরছে। যার কারণে ঝরে পড়ছে বহু শিক্ষার্থী। অল্প বয়সেই মাদক ছাড়াও অন্যান্য অপরাধ কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছে তারা। কিশোর ও তরুণরা সঙ্গদোষে হোক বা অন্যকোনো কারণে হোক, মাদকের প্রতি ধীরে ধীরে আসক্ত হয়ে পড়ছে যুবসমাজ।

পড়ালেখার জন্য মা-বাবার কাছ থেকে টাকা নিয়ে অনেক সময় কিশোর-তরুণরা মাদক গ্রহণ করে। অর্থ যখন ফুরিয়ে যায় তখন মাদক কেনার অর্থ জোগাড় করতে গিয়েই কিশোর ও তরুণরা নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ে। এভাবে মাদকের এই নেশার জালে একবার জড়িয়ে পড়লে কেউ আর সহজে তা ছিন্ন করে বেরিয়ে আসতে পারেনা। ফলে মাদকসেবীরা দিনে দিনে আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে। তাদের দ্বারা সমাজে ঘটে নানা ধরনের অপকর্ম।

তারা আরও বলেন, এটা স্পষ্ট যে, মাদকাসক্ত ব্যক্তি শুধু নিজের জীবনকেই বিপন্ন করে না, সঙ্গে সঙ্গে তার পরিবারও থাকে হুমকিতে, গোটা সমাজ হয় ক্ষতিগ্রস্ত। সমাজের নানাবিধ সমস্যার মধ্যে অন্যতম সমস্যা হচ্ছে মাদক সমস্যা। তাই এ সমস্যা থেকে মাদকাসক্ত ব্যক্তি, তার পরিবার, সমাজ তথা গোটা দেশকে রক্ষা করতে প্রয়োজন খেলাধুলা ও সংস্কৃতিচর্চা।

উল্লেখ্য, স্কুল-কলেজগামী মেয়েদের নানাভাবে উত্ত্যক্ত করা, গুলি বা ছুরিকাঘাতে হত্যা করা কিংবা সড়ক দুর্ঘটনার আধিক্যের পেছনেও মাদকাসক্তির ভূমিকা অন্যতম। শুধু তাই নয়, কোনো কোনো পত্রিকার শিরোনামে- নেশাগ্রস্ত যুবকের গুলিতে জোড়া খুন, মাদকাসক্ত মেয়ের নিজ হাতে মা-বাবাকে খুন, ইয়াবা সেবনে বাধা দেওয়ায় খুন হলেন মা-বাবা ইত্যাদি খবরের পেছনের কারণ মাদকাসক্তি। এছাড়া মাদকাসক্ত দেবর খুন করল তার ভাবিকে, মাদকাসক্ত ছেলের হাত থেকে বাঁচতে মা খুন করলেন ছেলেকে, পত্রিকায় প্রকাশিত ইত্যাদি শিরোনাম নাড়া দেয় আমাদের বিবেককে, যার মূলে রয়েছে মাদকাসক্তি। সুতরাং মাদকাসক্তরা তাদের স্বাভাবিক বিবেক বুদ্ধি, মানবিক মূল্যবোধকে হারিয়ে হয়ে ওঠে বেপরোয়া।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×