বিশ্বের সর্ববৃহৎ বইমেলায় বাংলাদেশের অংশগ্রহণ

  হাবিবুল্লাহ আল বাহার, জার্মানি থেকে ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ১১:৫২ | অনলাইন সংস্করণ

বইমেলা

জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টে ১৬ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে ফ্রাঙ্কফুর্ট আন্তর্জাতিক বইমেলা। বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ এই বইমেলার এবার ৭১তম আয়োজন। মেলা কর্তৃপক্ষের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, এ বছর প্রায় ১০৪টি দেশ থেকে ৭,৪৫০ প্রকাশক আর প্রকাশনা সংক্রান্ত প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেছে ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলায়। পাঁচ দিনব্যাপী এ মেলায় বিভিন্ন দেশের সাহিত্য, সংস্কৃতি এবং বই ব্যবসার সমস্যা আর তার সমাধান নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে চার হাজারেরও বেশি সেমিনার।

২০১৫ সাল থেকে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলায় অংশগ্রহণ করছে বাংলাদেশ।

এ বছর মেলায় বাংলাদেশ স্টল উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রি কে এম খালেদ এম পি। ফ্রাঙ্কফুর্ট বই মেলায় বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে অংশগ্রহন করেছেন সাংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রলায়ের সচিব ড. আবু হেনা মোস্তাফা কামাল, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক মুখ্য সচিব ও জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী, সাবেক শিক্ষা সচিব নজরুল ইসলাম খান, বাংলা একাডেমীর মহাপরিচালক হাবিবুল্লাহ সিরাজিসহ আরো অনেক উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ।

এছাড়াও প্রতিনিধি দলে রয়েছেন বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সভাপতি ফরিদ আহমেদ, বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির সভাপতি আরিফ হোসাইন ছোটন, বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সহসভাপতি খান মাহবুবুল আলম, অমিকন পাবলিশিং এর এহসান মাহবুব প্রমুখ।

ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলায় বাংলাদেশের অংশগ্রহণ নিয়ে বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রি কে এম খালেদ এম পি জানান, আগামী বছর জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে ফ্রাঙ্কফুর্ট বই মেলায় অংশগ্রহণ করবে। এছাড়াও জাতীর পিতার জীবন ও কর্ম বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরার লক্ষে সরকার ফ্রাঙ্কফুর্ট বই মেলাকে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হিসেবে দেখছে।

বাংলাদেশ থেকে আসা অংশগ্রহণকারীরা জানান, বাংলাদেশের সাহিত্য–সংস্কৃতি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তুলে ধরতে ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলার মাধ্যমে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের প্রকাশনা শিল্পের সঙ্গে বাংলাদেশের প্রকাশনা শিল্পের যোগসূত্র স্থাপিত হয়।

মেলা চলবে ১৪ অক্টোবর রোববার পর্যন্ত। শনিবার ও রোববার এই মেলা সাধারণ দর্শকদের জন্য খুলে দেয়া হয়। ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলাকে ঘিরে জার্মানি প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যেও ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। জার্মানপ্রবাসী বাংলাদেশিরাও মনে করছেন ফ্রাঙ্কফুর্ট বইমেলায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশের সাহিত্য সংস্কৃতি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আরও বেশি পরিচিতি পাবে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×