মানবিক কর্মকাণ্ডের তহবিল সংগ্রহে মালয়েশিয়ায় চ্যারিটি বাজার
jugantor
মানবিক কর্মকাণ্ডের তহবিল সংগ্রহে মালয়েশিয়ায় চ্যারিটি বাজার

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে  

২২ নভেম্বর ২০১৯, ২১:০৪:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় মানবিক কর্মকাণ্ডের তহবিল সংগ্রহে অনুষ্ঠিত হলোআন্তর্জাতিক সোহোম চ্যারিটি বাজার। (১৯ নভেম্বর) মঙ্গলবার বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিক মিশনের উদ্যোগে মালয়েশিয়ার মেরিয়ট হোটেলের বলরোমে আয়োজন করা হয় চ্যারিটি বাজারের। এতে অংশগ্রহণ করে ৪২ টি দেশের কূটনৈতিক মিশন।

বাজারের প্রধান উপভোগ্য বিষয় ছিল মঞ্চে আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও র‌্যাফেল ড্র। নেপাল, চীন, ইয়েমেন, ভিয়েতনামসহ কয়েকটি দেশের নাগরিকরা নেচে গেয়ে উপস্থিত দর্শকদের সামনে তুলে ধরেন তাদের তাদের দেশের কৃষ্টি ও সাংস্কৃতি।

বাংলাদেশ, ইন্দোনেশিয়া ভারত, পাকিস্তানসহ অন্যান্য দেশের সংস্কৃতি ও কৃষ্টি ডকুমেন্টারিএক নজর দেখে নেন উপস্থিত দর্শকরা।

এ ছাড়া মিশনগুলোর সজ্জিত স্টলে পসরা সাজিয়ে স্বস্ব দেশীয় হস্তশিল্প, কারুশিল্প ও মুখরোচক খাবারসহ নানান পণ্য সম্পর্কে আগত দর্শনার্থীদের ব্যাপক ধারণা দিতে ব্যস্ত দেখা যায় অংশগ্রহণকারী সবকটি মিশনের সদস্যদের।

বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, জাপান, চীন, নাইজেরিয়া, ইয়েমেন, ওমান, কাতার, কুয়েত, উইজবেকিস্তান, তাজাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, আর্জেন্টিনা, থাইল্যান্ডসহ মোট ৪২টি দেশ অংশগ্রহণে সবকটি দেশেরই দর্শনার্থীদের ছিল উপচেপড়া ভিড়।

এ বারের আয়োজনে বাংলাদেশ প্রবেশ টিকেটের অর্ধেকের বেশি ক্রয় করে সুনাম অর্জন করে এবং র‌্যাফেল ড্রতে ঘোষিত বিএমডব্লিউ, হোটেল সাংরিলা, মান্দারিন ওরিয়েন্টাল, গ্র্যান্ড হায়াত, শেরাটনসহ আন্তর্জাতিক কোম্পানির স্পন্সরকৃত পুরস্কারগুলো জিতে নেয় বাংলাদেশ।

এর মধ্যে প্রায় একাই ১৮টি পুরস্কার জিতে নেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ী ও কমিউনিটি নেতা ওহিদুর রহমান ওহিদ। আর এ পুরস্কার তার হাতে তুলে দেন বাংলাদেশ হাইকমিশনারের স্ত্রী বেগম শাহনাজ ইসলাম ও আন্তর্জাতিক সোহোম চ্যারিটি বাজারের সভাপতি ত্রিয়ানা নেচিটায়লো।

ত্রিয়ানা নেচিটায়লো জানান, তিন বছর আগে জে ডব্লিউ মেরিয়ট হোটেলের বলরোমেই অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তখন চ্যারিটি বাজারের মধ্যদিয়ে এক লাখ রিঙ্গিতের তহবিল সংগ্রহে সক্ষম হয়েছিলাম।
ত্রিয়ানা জানান, এবারের আয়োজনে প্রায় চার হাজার টিকিট বিক্রির মাধ্যমে তহবিল আরও বাড়বে। বিভিন্ন দেশের শরণার্থীদের শিক্ষা খাতে গঠিত তহবিলব্যবহৃত হয় বলে জানালেন সোহম সভাপতি ।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

মানবিক কর্মকাণ্ডের তহবিল সংগ্রহে মালয়েশিয়ায় চ্যারিটি বাজার

 আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে 
২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:০৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় মানবিক কর্মকাণ্ডের তহবিল সংগ্রহে অনুষ্ঠিত হলো আন্তর্জাতিক সোহোম চ্যারিটি বাজার। (১৯ নভেম্বর) মঙ্গলবার বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিক মিশনের উদ্যোগে মালয়েশিয়ার মেরিয়ট হোটেলের বলরোমে আয়োজন করা হয় চ্যারিটি বাজারের। এতে অংশগ্রহণ করে ৪২ টি দেশের কূটনৈতিক মিশন।

বাজারের প্রধান উপভোগ্য বিষয় ছিল মঞ্চে আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও র‌্যাফেল ড্র। নেপাল, চীন, ইয়েমেন, ভিয়েতনামসহ কয়েকটি দেশের নাগরিকরা নেচে গেয়ে উপস্থিত দর্শকদের সামনে তুলে ধরেন তাদের তাদের দেশের কৃষ্টি ও সাংস্কৃতি।

বাংলাদেশ, ইন্দোনেশিয়া ভারত, পাকিস্তানসহ অন্যান্য দেশের সংস্কৃতি ও কৃষ্টি ডকুমেন্টারি এক নজর দেখে নেন উপস্থিত দর্শকরা।

এ ছাড়া মিশনগুলোর সজ্জিত স্টলে পসরা সাজিয়ে স্বস্ব দেশীয় হস্তশিল্প, কারুশিল্প ও মুখরোচক খাবারসহ নানান পণ্য সম্পর্কে আগত দর্শনার্থীদের ব্যাপক ধারণা দিতে ব্যস্ত দেখা যায় অংশগ্রহণকারী সবকটি মিশনের সদস্যদের।

বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, জাপান, চীন, নাইজেরিয়া, ইয়েমেন, ওমান, কাতার, কুয়েত, উইজবেকিস্তান, তাজাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, আর্জেন্টিনা, থাইল্যান্ডসহ মোট ৪২টি দেশ অংশগ্রহণে সবকটি দেশেরই দর্শনার্থীদের ছিল উপচেপড়া ভিড়।

এ বারের আয়োজনে বাংলাদেশ প্রবেশ টিকেটের অর্ধেকের বেশি ক্রয় করে সুনাম অর্জন করে এবং র‌্যাফেল ড্রতে ঘোষিত বিএমডব্লিউ, হোটেল সাংরিলা, মান্দারিন ওরিয়েন্টাল, গ্র্যান্ড হায়াত, শেরাটনসহ আন্তর্জাতিক কোম্পানির স্পন্সরকৃত পুরস্কারগুলো জিতে নেয় বাংলাদেশ।

এর মধ্যে প্রায় একাই ১৮টি পুরস্কার জিতে নেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ী ও কমিউনিটি নেতা ওহিদুর রহমান ওহিদ। আর এ পুরস্কার তার হাতে তুলে দেন বাংলাদেশ হাইকমিশনারের স্ত্রী বেগম শাহনাজ ইসলাম ও আন্তর্জাতিক সোহোম চ্যারিটি বাজারের সভাপতি ত্রিয়ানা নেচিটায়লো।

ত্রিয়ানা নেচিটায়লো জানান, তিন বছর আগে জে ডব্লিউ মেরিয়ট হোটেলের বলরোমেই অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তখন চ্যারিটি বাজারের মধ্যদিয়ে এক লাখ রিঙ্গিতের তহবিল সংগ্রহে সক্ষম হয়েছিলাম।
ত্রিয়ানা জানান, এবারের আয়োজনে প্রায় চার হাজার টিকিট বিক্রির মাধ্যমে তহবিল আরও বাড়বে। বিভিন্ন দেশের শরণার্থীদের শিক্ষা খাতে গঠিত তহবিল ব্যবহৃত হয় বলে জানালেন সোহম সভাপতি ।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর