করোনাভাইরাস: মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিদের পাশে ব্যবসায়ীরা

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে ০১ এপ্রিল ২০২০, ২১:৪২:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনাভাইরাস আজ মানুষের জীবন মহাসংকটে ফেলে দিয়েছে। করোনার ছোবল থেকে পৃথিবীর কোনো দেশই আর মুক্ত নয়। যেখানে উন্নত দেশগুলো করোনাভাইরাস মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে। দেশে দেশে করোনার প্রাদুর্ভাবে এক মহাসংকটের সৃষ্টি করেছে।

এ পরিস্থিতিতে প্রবাসে থাকা প্রবাসীদের জীবনে নেমে এসেছে অবর্ণনীয় কষ্ট ও যন্ত্রণা।

তবে আশার কথা হচ্ছে প্রবাসে নানান বিত্তবান মানুষ এ করোনা সংকট মোকাবেলায় সাধারণ প্রবাসীদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন।

এমনই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসী ব্যবসায়ী মিজান গ্লোবাল রিসোর্সের কর্ণধার মিজান চৌধুরী।

দুই দিনে মালয়েশিয়ার জহুরবারু তাম্পাত এলাকায় কর্মরত প্রায় আড়াই হাজার প্রবাসী বাংলাদেশিকে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাবার ও পরিষ্কারক উপকরণ দিয়ে সহযোগিতা করেছেন।

বিতরণকৃত খাদ্যপণ্যের মধ্যে রয়েছে চাল, ডাল, আটা, আলু, ভোজ্যতেল, লবণ ও শুকনো খাবার। এছাড়া সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ মাস্কও দেয়া হয়েছে।

মরণব্যাধি করোনাভাইরাস ঠেকাতে মালয়েশিয়ায় চলাচল ও গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ আদেশের আজ ১২ তম দিন অতিবাহিত হল।

১৮ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ বেঁধে দেয়া এ আদেশ বাড়িয়ে এ আদেশ চলবে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত।

প্রাণঘাতী করোনার কারণে সর্বসাধারণের চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে আনতে নেয়া হয়েছে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা। দেশব্যাপী লকডাউন ঘোষণার পর থেকে পুরো দেশটির পথঘাট এখন জনশূন্য। চলছে রাস্তা ঘাটে চেকিং। এ অবস্থায় দেশটিতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিসহ বিদেশিরা অনিশ্চয়তায় দিন কাটাচ্ছেন। পাশাপাশি এখন কাজ না থাকায় বেকার জীবনযাপন করছেন তারা।

প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাইরে গেলেই জেল জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে জহুরবারুতে অবস্থানরত প্রবাসীদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন প্রবাসী ব্যবসায়ী মিজান চৌধুরী। তার প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে গত দুই দিনে প্রায় আড়াই হাজার প্রবাসীকে খাদ্য সামগ্রী প্রদান করেন এ প্রবাসী ব্যবসায়ী।

করোনা সংকটে প্রবাসীদের জন্য কিছু করার প্রসঙ্গে এ তরুণ প্রবাসী ব্যবসায়ী মিজান চৌধুরী বলেন, বিশ্বের মানুষ আজ মহাসংকটে, তাই আমার ক্ষুদ্র প্রয়াসে প্রবাসীদের জন্য কিছু করার চেষ্টা করেছি। সবার প্রতি বিনীত অনুরোধ এ মহাসংকটে মালয়েশিয়ায় বসবাসরত সকল কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ ও বিওবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত