হাঙ্গেরিতে এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থী করোনায় সংক্রমিত

  রাকিব হাসান, স্লোভেনিয়া থেকে ০৮ এপ্রিল ২০২০, ১৯:০০:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্ট

ইউরোপের দেশ হাঙ্গেরিতে প্রথমবারের মতো একজন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। হাঙ্গেরি প্রবাসী ওই ব্যক্তি বুদাপেস্টের উপকণ্ঠে গোডোলোতে অবস্থিত সেন্ট ইটজভান বিশ্ববিদ্যালয়ে স্টাইপেনডিয়াম হাঙ্গেরিকাম শিক্ষাবৃত্তির অধীনে এগ্রিকালচারাল ইঞ্জিনিয়ারিং এর ওপর ব্যাচেলর সম্পন্ন করছিলেন।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় এক ফেসবুক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে তিনি এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তাকে সেলফ আইসোলেশনে রাখা হয়েছে এবং তার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তার রুমমেট কয়েকদিন পূর্বে জার্মানি এবং সুইজারল্যান্ড ভ্রমণ করেছিলেন এবং তার মাধ্যমেই মূলত তিনি সংক্রমিত হয়েছেন। তার সঙ্গে থাকা আরও পাঁচ জন একইসঙ্গে করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

ফ্রান্স, ইতালি, স্পেন, পর্তুগালের মতো এতো বড় পরিসরে না হলেও এখানে বেশ কিছু বাংলাদেশীদের বসবাস রয়েছে এবং এদের সিংহভাগই শিক্ষার্থী। বিশেষ করে হাঙ্গেরির সরকারের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের মধ্যকার দ্বি-পাক্ষিক চুক্তির ফলে স্টাইপেন্ডিয়াম হাঙ্গেরিকাম নামক শিক্ষাবৃত্তির অধীনে গত বছরের সেপ্টেম্বর মাস থেকে প্রায় ১০০ জনের মতো বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ব্যাচেলর, মাস্টার্স, পিএইচডিসহ বিভিন্ন লেভেলে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করছেন।

পাশাপাশি আরও বেশ কিছু শিক্ষার্থী রয়েছেন যারা নিজ খরচে হাঙ্গেরির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করছেন, হাঙ্গেরিতে বসবাসরত বেশী ভাগ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের বসবাস রাজধানী বুদাপেস্ট কিংবা দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর ডাবরিচেনে। এছাড়াও অল্প কিছু বাংলাদেশি রয়েছেন যারা বিভিন্ন পেশাভিত্তিক কাজের সাথে জড়িত এবং বুদাপেস্টে বাংলাদেশি মালিকানাধীন দুইটি রেস্টুরেন্টও রয়েছে। সব মিলিয়ে দুইশোর মতো বাংলাদেশির বসবাস রয়েছে পূর্ব ইউরোপের এ দেশে।

বাংলাদেশি শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান মিলু, যিনি ইউনিভার্সিটি অব ডাবরিচেনে ব্যাচেলর অব সায়েন্স সম্পন্ন করছেন ক্যামিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এর ওপর। এ স্টাইপেনডিয়াম হাঙ্গেরিকাম শিক্ষাবৃত্তির অধীনে তার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পূর্ব ইউরোপের এ দেশটিতে ধীরে ধীরে জটিল আকার রূপ নিচ্ছে এ প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস।

গত দুই-তিন দিনে সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পেয়েছে এবং যেহেতু সরকারের পক্ষ থেকে কারফিউ জারি করা হয়েছে তাই আসলে গৃহবন্দির মধ্য দিয়ে তাদেরকে থাকতে হচ্ছে। যদিও অনলাইনে তার ইউনিভার্সিটি শিক্ষা-কার্যক্রম পরিচালিত করছে কিন্তু পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আতঙ্ক থেকেই যাবে। যে সকল শিক্ষার্থী পার্টটাইম চাকরির মাধ্যমে তাদের নিজেদের খরচ সংগ্রহ করতেন তাদের অনেকে এ মুহূর্তে কাজে যেতে পারছেন না। যার ফলে সাময়িকভাবে তাদের মাঝে হতাশা বিরাজ করছে।

প্রসঙ্গত, ‘হাঙ্গেরি’ পূর্ব ইউরোপে অবস্থিত ৩৫,৯২০ বর্গমাইলের ছোট্ট একটি দেশ। কার্পেথিয়ান বেসিনের অভ্যন্তরে অবস্থিত এ দেশটি একটি ল্যান্ডলকড রাষ্ট্র। যার উত্তরে স্লোভাকিয়া, উত্তর-পূর্বে ইউক্রেন, পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্বে রোমানিয়া, দক্ষিণে সার্বিয়া, দক্ষিণ-পশ্চিমে ক্রোয়েশিয়া ও স্লোভেনিয়া এবং পশ্চিমে অস্ট্রিয়া অবস্থিত।

প্রায় এক কোটি জনসংখ্যা অধ্যুষিত এ দেশটির রাজধানীর নাম বুদাপেস্ট। এক সময় সোভিয়েত কমিউনিজমের আদর্শ ধারণ করা এ দেশটি ১৯৯০ সালে গণতন্ত্র ও মুক্তবাজার অর্থনীতির পথে পা বাড়ায়। বর্তমানে হাঙ্গেরি জাতিসংঘ ছাড়াও ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এবং ন্যাটোর মতো প্রতিপত্তিশালী সংগঠনগুলোর সদস্য। হাঙ্গেরিয়ান ফোরিন্ট দেশটির জাতীয় মুদ্রা।

পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রেহাই পায়নি পূর্ব ইউরোপের এ ছোট দেশটি। worldometers.info কর্তৃক প্রকাশিত সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী এখন পর্যন্ত হাঙ্গেরিতে ৮৯৫ জনের শরীরে কোভিড-১৯ খ্যাত নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পজিটিভ ধরা পড়েছে এবং এখন পর্যন্ত এ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রভাবে দেশটিতে মৃত্যুবরণ করেছেন ৫৮ জন ও সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ৯৪ জন।

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধ করতে ইতোমধ্যে দেশটির ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির পক্ষ থেকে দেশটিতে কারফিউ ঘোষণা করা হয়েছে। হাসপাতাল, খাবারের দোকান, ফার্মেসি, ব্যাংক, পেট্রোল স্টেশন অর্থাৎ নিত্য প্রয়োজনীয় সেবামূলক প্রতিষ্ঠান ছাড়া বাকি সকল ধরণের প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত