মালয়েশিয়ায় বজ্রপাতে এক বাংলাদেশি নিহত
jugantor
মালয়েশিয়ায় বজ্রপাতে এক বাংলাদেশি নিহত

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে  

২৪ জুন ২০২০, ২১:৩০:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় বন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গিয়ে বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন এক বাংলাদেশি। নিহত বাংলাদেশির নাম মোহাম্মদ তারেক পরামাণিক (৩০)।

মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় দেশটির টেরেংগানুর কেমামান জেলার বান্ডার সিনি নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহত বাংলাদেশির দেশের ঠিকানা জানা যায়নি।

কেমামান জেলা পুলিশ সুপার হানিয়ান রামলান জানান, নিজের ঘর থেকে পায়ে হেঁটে ১শ' মিটার দূরে বন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যাওয়ার সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

দুর্ঘটনাস্থলের পাশে থাকা বাংলাদেশি আরিফুল জানান, হঠাৎ বিকট শব্দ শুনতে পাই। এগিয়ে এসে দেখি আমার দেশের মানুষ নিহত হয়েছেন। নিহত বাংলাদেশির মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কেমামান হাসপাতালে রাখা হয়েছে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

মালয়েশিয়ায় বজ্রপাতে এক বাংলাদেশি নিহত

 আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে 
২৪ জুন ২০২০, ০৯:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় বন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গিয়ে বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন এক বাংলাদেশি। নিহত বাংলাদেশির নাম মোহাম্মদ তারেক পরামাণিক (৩০)।

মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় দেশটির টেরেংগানুর কেমামান জেলার বান্ডার সিনি নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহত বাংলাদেশির দেশের ঠিকানা জানা যায়নি।

কেমামান জেলা পুলিশ সুপার হানিয়ান রামলান জানান, নিজের ঘর থেকে পায়ে হেঁটে ১শ' মিটার দূরে বন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যাওয়ার সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

দুর্ঘটনাস্থলের পাশে থাকা বাংলাদেশি আরিফুল জানান, হঠাৎ বিকট শব্দ শুনতে পাই। এগিয়ে এসে দেখি আমার দেশের মানুষ নিহত হয়েছেন। নিহত বাংলাদেশির মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কেমামান হাসপাতালে রাখা হয়েছে।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন