দক্ষিণ আফ্রিকা করোনায় আরও এক বাংলাদেশির মৃত্যু
jugantor
দক্ষিণ আফ্রিকা করোনায় আরও এক বাংলাদেশির মৃত্যু

  শওকত বিন আশরাফ, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে  

২৭ জুলাই ২০২০, ২২:৩৫:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ গেল বাংলাদেশের ফেনী জেলার দাগনভূঁইয়ার প্রবীণ শিক্ষক মুহাম্মদ সরওয়ার কামালের।

রোববার সকালে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এ নিয়ে করোনায় দক্ষিণ আফ্রিকায় ২০ বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। আর করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৬ বাংলাদেশি।

মুহাম্মদ সরওয়ার কামাল শিক্ষকতা পেশা ছেড়ে কয়েক বছর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার ইস্টার্ন কেপ প্রদেশের পোর্ট এলিজাবেথ শহরে এসে ব্যবসা করে আসছিলেন।

সদালাপী সাদা মনের এ মানুষটি ফেনী জেলার দাগনভূঁইয়া উপজেলার কামাল আতাতুর্ক হাই স্কুলের শিক্ষক ছিলেন।

তিনি কয়েকদিন আগে করোনায় আক্রান্ত হন এবং এরপর থেকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

দক্ষিণ আফ্রিকা করোনায় আরও এক বাংলাদেশির মৃত্যু

 শওকত বিন আশরাফ, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে 
২৭ জুলাই ২০২০, ১০:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ গেল বাংলাদেশের ফেনী জেলার দাগনভূঁইয়ার প্রবীণ শিক্ষক মুহাম্মদ সরওয়ার কামালের।

রোববার সকালে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এ নিয়ে করোনায় দক্ষিণ আফ্রিকায় ২০ বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। আর করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৬ বাংলাদেশি।

মুহাম্মদ সরওয়ার কামাল শিক্ষকতা পেশা ছেড়ে কয়েক বছর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার ইস্টার্ন কেপ প্রদেশের পোর্ট এলিজাবেথ শহরে এসে ব্যবসা করে আসছিলেন।

সদালাপী সাদা মনের এ মানুষটি ফেনী জেলার দাগনভূঁইয়া উপজেলার কামাল আতাতুর্ক হাই স্কুলের শিক্ষক ছিলেন।

তিনি কয়েকদিন আগে করোনায় আক্রান্ত হন এবং এরপর থেকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]