কাতারে সাগর পাড়ে মানুষের ঢল
jugantor
কাতারে সাগর পাড়ে মানুষের ঢল

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৩ আগস্ট ২০২০, ১০:১৮:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

কাতারে সাগর পাড়ে মানুষের ঢল
ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে ১৯৬ জন আক্রান্ত হয়েছে। এদিন মারা গেছে ৩ জন। 

এমন পরিস্থিতিতে দেশটিতে তৃতীয় ধাপে বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করা হয়েছে। খুলে দেয়া হয়েছে রাজধানী দোহার অন্যতম পর্যটন এলাকা আল কার্নিশ সাগর পাড়।

ফলে দীর্ঘ পাঁচ মাস পর কার্নিশ পাড়ে ঘুরতে রেরিয়েছে প্রবাসীরাসহ অনেকেই। ঈদের ছুটিতে সমুদ্র সৈকতে হাজারও মানুষের ঢল নামে। বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের অভিবাসীদের আড্ডায় মেতে উঠতে দেখা গেছে। 

অনেকটা অসচেতনভাবেই উৎসবে মেতেছেন তারা। অনেককে মাস্ক পরতে দেখা যায়নি। সামাজিক দূরত্বও মানেনি তেমন কেউ। এমন উৎসব মুখরিত পরিবেশ দেখে বোঝার উপায় নেই যে, করোনার জরিপ নিয়ে কাজ করা ওয়েবসাইট ওয়ার্লডওমিটারসে দেশটির অবস্থান ২৪তম। আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ১১ হাজার ছাড়িয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশটির ১৭৭ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে।  

করোনার ঝুঁকিতেই দীর্ঘদিন পরে ঘুরতে পারায় বেশ খুশি প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

তারা বলছেন, দীর্ঘ পাঁচ মাস আমরা ঘরে বন্দি ছিলাম। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক। তার ওপর আবার ঈদ। বন্দিদশা আর মানা যায় না। ঘুরতে পেরে খুব ভালো লাগছে। বাকিটা আল্লাহর উপর ছেড়ে দিলাম।

উল্লেখ্য, কাতারে করোনার সংক্রমণ লাখ ছাড়লেও সুস্থতার হার অনেক বেশি। এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৭ হাজার ৭৭৯ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩ হাজার ১৫১ জন। এদের মধ্যে মাত্র ৭৬ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

কাতারে সাগর পাড়ে মানুষের ঢল

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৩ আগস্ট ২০২০, ১০:১৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কাতারে সাগর পাড়ে মানুষের ঢল
ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে ১৯৬ জন আক্রান্ত হয়েছে। এদিন মারা গেছে ৩ জন।

এমন পরিস্থিতিতে দেশটিতে তৃতীয় ধাপে বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করা হয়েছে। খুলে দেয়া হয়েছে রাজধানী দোহার অন্যতম পর্যটন এলাকা আল কার্নিশ সাগর পাড়।

ফলে দীর্ঘ পাঁচ মাস পর কার্নিশ পাড়ে ঘুরতে রেরিয়েছে প্রবাসীরাসহ অনেকেই। ঈদের ছুটিতে সমুদ্র সৈকতে হাজারও মানুষের ঢল নামে। বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের অভিবাসীদের আড্ডায় মেতে উঠতে দেখা গেছে।

অনেকটা অসচেতনভাবেই উৎসবে মেতেছেন তারা। অনেককে মাস্ক পরতে দেখা যায়নি। সামাজিক দূরত্বও মানেনি তেমন কেউ। এমন উৎসব মুখরিত পরিবেশ দেখে বোঝার উপায় নেই যে, করোনার জরিপ নিয়ে কাজ করা ওয়েবসাইট ওয়ার্লডওমিটারসে দেশটির অবস্থান ২৪তম। আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ১১ হাজার ছাড়িয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশটির ১৭৭ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে।

করোনার ঝুঁকিতেই দীর্ঘদিন পরে ঘুরতে পারায় বেশ খুশি প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

তারা বলছেন, দীর্ঘ পাঁচ মাস আমরা ঘরে বন্দি ছিলাম। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক। তার ওপর আবার ঈদ। বন্দিদশা আর মানা যায় না। ঘুরতে পেরে খুব ভালো লাগছে। বাকিটা আল্লাহর উপর ছেড়ে দিলাম।

উল্লেখ্য, কাতারে করোনার সংক্রমণ লাখ ছাড়লেও সুস্থতার হার অনেক বেশি। এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৭ হাজার ৭৭৯ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩ হাজার ১৫১ জন। এদের মধ্যে মাত্র ৭৬ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
 
আরও খবর