বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতকে বিদায়ী সম্বর্ধনা দিল পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাব
jugantor
বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতকে বিদায়ী সম্বর্ধনা দিল পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাব

  ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩:২৪:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের বর্তমান রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ রুহুল আলম সিদ্দিকীর বিদায় উপলক্ষে পর্তুগালে অবস্থিত প্রবাসী সাংবাদিকদের সংগঠন পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ২৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ দূতাবাসের লিসবনে এক বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব দুতালায় প্রধান আব্দুল্লাহ আল রাজী এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে রাষ্ট্রদূতের সহধর্মিণী রিমা আরা খানম উপস্থিত ছিলেন।

প্রবাসী সাংবাদিক রনি মোহাম্মদের উপস্থাপনায় উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের বিভিন্ন প্রবাসী সাংবাদিকরা রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালনকালে বিস্তারিত সাফল্য গাথা উপস্থিত সকলের মাঝে উপস্থাপন করেন এবং নতুন কর্মস্থলে সাফল্য কামনা করেন।

দূতাবাসের দুতালায় প্রধান আবদুল্লাহ আল রাজী তার বক্তব্যে প্রবাসীদের প্রতি রাষ্ট্রদূতের ভালোবাসা এবং দায়িত্বশীলতার বিভিন্ন উদাহরণ উপস্থাপন করেন এবং রাষ্ট্রদূতের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন।

পর্তুগাল বাংলা প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রদূত মহোদয় রুহুল আলম সিদ্দিকীকে ফুল এবং বিদায়ী মানপত্র প্রদান করা হয়। রাষ্ট্রদূতকে সকলের পক্ষ থেকে সাংবাদিক ও লেখক ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী মানপত্রটি পড়ে শোনান এবং এতে তিনি ভালোবাসায় আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন এবং উপস্থিত সকলের প্রতি উষ্ণ মনোভাব প্রকাশ করেন।

বিদায়ী বক্তব্য রাষ্ট্রদূত বলেন, আমি এখানে আমার মনের মাঝে একটি লক্ষ্য নিয়ে এসেছিলাম যে এখানে অবস্থিত প্রবাসী বাংলাদেশিদেরকে সহযোগিতা করা এবং পর্তুগাল সরকারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশিদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা আদায়ের মাধ্যমে প্রবাসী বাংলাদেশিদেরকে পর্তুগালে সুন্দরভাবে বসবাস করার পরিবেশ তৈরি করে দেয়া। আমি আমার লক্ষ্যে কাজ করেছি এবং সামনের দিনগুলোতে প্রবাসীরা আমি না থাকলেও এর ফলাফল ভোগ করবে। কেননা এই কার্যক্রমগুলো বাস্তবায়ন হতে একটু সময়ের প্রয়োজন হয়।

পর্তুগাল প্রবাসীদের প্রাণের দাবি বাংলাদেশে পর্তুগালের ভিসা সার্ভিস বা কনস্যুলার সেবা চালু করার জন্য অগ্রগতি বিষয়ে রাষ্ট্রদূত তার অবস্থান ব্যাখ্যা করেন। তাছাড়া তিনি পর্তুগালে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার ক্ষেত্রে যে সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন তা উপস্থিত সকলের মাঝে তুলে ধরেন। তিনি আবেগী কণ্ঠে জানান, পর্তুগালের বাংলাদেশি প্রবাসীদেরকে তার হৃদয়ে ধারণ করে নিয়েছেন এবং যেকোনো সময় যেকোনো সহযোগিতায় তিনি পর্তুগাল প্রবাসীদের পাশে থাকার চেষ্টা করবেন এবং ভুল ত্রুটি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ করেন।

অনুষ্ঠানে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন রনি মোহাম্মদ আহবায়ক, নাঈম হাসান পাবেল সদস্য সচিব, রাসেল আহমেদ যুগ্ম আহবায়ক, ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, এফ.আই রনি, জহুরুল মুন, এনামুল হক, জাকির হোসেন, ফাহিম, মনির হোসেন প্রমুখ

উল্লেখ্য যে পর্তুগালে অবস্থিত বর্তমান বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত রুহুল আলম সিদ্দিকী গত তিন বছর যাবত পর্তুগালে বাংলাদেশ দূতাবাসের দায়িত্ব পালন করছেন এবং তিনি তার পরবর্তী কর্মস্থল হিসেবে পাকিস্তান বাংলাদেশ মিশনে যোগদান করবেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতকে বিদায়ী সম্বর্ধনা দিল পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাব

 ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের বর্তমান রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ রুহুল আলম সিদ্দিকীর বিদায় উপলক্ষে পর্তুগালে অবস্থিত প্রবাসী সাংবাদিকদের সংগঠন পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ২৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ দূতাবাসের লিসবনে এক বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব দুতালায় প্রধান আব্দুল্লাহ আল রাজী এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে রাষ্ট্রদূতের সহধর্মিণী রিমা আরা খানম উপস্থিত ছিলেন।

প্রবাসী সাংবাদিক রনি মোহাম্মদের উপস্থাপনায় উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের বিভিন্ন প্রবাসী সাংবাদিকরা রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালনকালে বিস্তারিত সাফল্য গাথা উপস্থিত সকলের মাঝে উপস্থাপন করেন এবং নতুন কর্মস্থলে সাফল্য কামনা করেন।

দূতাবাসের দুতালায় প্রধান আবদুল্লাহ আল রাজী তার বক্তব্যে প্রবাসীদের প্রতি রাষ্ট্রদূতের ভালোবাসা এবং দায়িত্বশীলতার বিভিন্ন উদাহরণ উপস্থাপন করেন এবং রাষ্ট্রদূতের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন।

পর্তুগাল বাংলা প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রদূত মহোদয় রুহুল আলম সিদ্দিকীকে ফুল এবং বিদায়ী মানপত্র প্রদান করা হয়। রাষ্ট্রদূতকে সকলের পক্ষ থেকে সাংবাদিক ও লেখক ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী মানপত্রটি পড়ে শোনান এবং এতে তিনি ভালোবাসায় আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন এবং উপস্থিত সকলের প্রতি উষ্ণ মনোভাব প্রকাশ করেন।

বিদায়ী বক্তব্য রাষ্ট্রদূত বলেন, আমি এখানে আমার মনের মাঝে একটি লক্ষ্য নিয়ে এসেছিলাম যে এখানে অবস্থিত প্রবাসী বাংলাদেশিদেরকে সহযোগিতা করা এবং পর্তুগাল সরকারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশিদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা আদায়ের মাধ্যমে প্রবাসী বাংলাদেশিদেরকে পর্তুগালে সুন্দরভাবে বসবাস করার পরিবেশ তৈরি করে দেয়া। আমি আমার লক্ষ্যে কাজ করেছি এবং সামনের দিনগুলোতে প্রবাসীরা আমি না থাকলেও এর ফলাফল ভোগ করবে। কেননা এই কার্যক্রমগুলো বাস্তবায়ন হতে একটু সময়ের প্রয়োজন হয়। 

পর্তুগাল প্রবাসীদের প্রাণের দাবি বাংলাদেশে পর্তুগালের ভিসা সার্ভিস বা কনস্যুলার সেবা চালু করার জন্য অগ্রগতি বিষয়ে রাষ্ট্রদূত তার অবস্থান ব্যাখ্যা করেন। তাছাড়া তিনি পর্তুগালে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার ক্ষেত্রে যে সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন তা উপস্থিত সকলের মাঝে তুলে ধরেন। তিনি আবেগী কণ্ঠে জানান, পর্তুগালের বাংলাদেশি প্রবাসীদেরকে তার হৃদয়ে ধারণ করে নিয়েছেন এবং যেকোনো সময় যেকোনো সহযোগিতায় তিনি পর্তুগাল প্রবাসীদের পাশে থাকার চেষ্টা করবেন এবং ভুল ত্রুটি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ করেন।

অনুষ্ঠানে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন রনি মোহাম্মদ আহবায়ক, নাঈম হাসান পাবেল সদস্য সচিব, রাসেল আহমেদ যুগ্ম আহবায়ক, ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, এফ.আই রনি, জহুরুল মুন, এনামুল হক, জাকির হোসেন,  ফাহিম, মনির হোসেন প্রমুখ

উল্লেখ্য যে পর্তুগালে অবস্থিত বর্তমান বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত রুহুল আলম সিদ্দিকী গত তিন বছর যাবত পর্তুগালে বাংলাদেশ দূতাবাসের দায়িত্ব পালন করছেন এবং তিনি তার পরবর্তী কর্মস্থল হিসেবে পাকিস্তান বাংলাদেশ মিশনে যোগদান করবেন। 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]