মালয়েশিয়ায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত
jugantor
মালয়েশিয়ায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া  

০৭ মার্চ ২০২১, ১১:২১:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

৭ মার্চ

যথাযোগ্য মর্যাদা ও শ্রদ্ধার সঙ্গে বাংলাদেশ দূতাবাস, মালয়েশিয়া ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন করেছে।

দিবসটি উপলক্ষ্যে রোববার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৯টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন রাষ্ট্রদূত মো. গোলাম সারোয়ার।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে মালয়েশিয়া সরকারের দেওয়া বিধিনিষেধের কারণে অনুষ্ঠানে শুধু দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। তবে দূতাবাসের ফেসবুক পেজে লাইভ প্রচার করে প্রবাসীদের অংশ নেওয়ার সুযোগ করে দেওয়া হয়।

আলোচনাসভার শুরুতে কোরআন তিলাওয়াতের পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণটি বড় পর্দায় ভিডিওচিত্রের মাধ্যমে দেখানো হয় এবং ৭ মার্চের ওপর একে একে পড়ে শোনানো হয় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী।

রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন ডেপুটি হাইকমিশনার মো. খোরশেদ আলম খাস্তগীর ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন শ্রম কাউন্সিলর মো. জহিরুল ইসলাম।

দূতাবাসের প্রথম সচিব (রাজনৈতিক) ও দূতালয প্রধান রুহুল আমিনের উপস্থাপনায় আলোচনাসভায় দূতাবাসের প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা কমোডর মোস্তাক আহমেদ, শ্রম শাখার কাউন্সিলর (২) মো. হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল, কাউন্সিলর মাসুদ হোসাইন, পাসপোর্ট ও ভিসা শাখার কাউন্সিলর মো. মশিউর রহমান তালুকদার, বাণিজ্য শাখার কাউন্সিলর মো. রাজিবুল আহসান, দূতাবাসের কাউন্সিলর তাহমিনা ইয়াছমিন, শ্রম শাখার প্রথম সচিব মো. ফরিদ আহমদসহ দূতাবাসের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

মালয়েশিয়ায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত

 আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া 
০৭ মার্চ ২০২১, ১১:২১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
৭ মার্চ
ছবি-যুগান্তর

যথাযোগ্য মর্যাদা ও শ্রদ্ধার সঙ্গে বাংলাদেশ দূতাবাস, মালয়েশিয়া ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন করেছে। 

দিবসটি উপলক্ষ্যে রোববার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৯টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন রাষ্ট্রদূত মো. গোলাম সারোয়ার।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে মালয়েশিয়া সরকারের দেওয়া বিধিনিষেধের কারণে অনুষ্ঠানে শুধু দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। তবে দূতাবাসের ফেসবুক পেজে লাইভ প্রচার করে প্রবাসীদের অংশ নেওয়ার সুযোগ করে দেওয়া হয়।

আলোচনাসভার শুরুতে কোরআন তিলাওয়াতের পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণটি বড় পর্দায় ভিডিওচিত্রের মাধ্যমে দেখানো হয় এবং ৭ মার্চের ওপর একে একে পড়ে শোনানো হয় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী।

রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন ডেপুটি হাইকমিশনার মো. খোরশেদ আলম খাস্তগীর ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন শ্রম কাউন্সিলর মো. জহিরুল ইসলাম।

দূতাবাসের প্রথম সচিব (রাজনৈতিক) ও দূতালয প্রধান রুহুল আমিনের উপস্থাপনায় আলোচনাসভায় দূতাবাসের প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা কমোডর মোস্তাক আহমেদ, শ্রম শাখার কাউন্সিলর (২) মো. হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল, কাউন্সিলর মাসুদ হোসাইন, পাসপোর্ট ও ভিসা শাখার কাউন্সিলর মো. মশিউর রহমান তালুকদার, বাণিজ্য শাখার কাউন্সিলর মো. রাজিবুল আহসান, দূতাবাসের কাউন্সিলর তাহমিনা ইয়াছমিন, শ্রম শাখার প্রথম সচিব মো. ফরিদ আহমদসহ দূতাবাসের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন