মালয়েশিয়ায় হচ্ছে মাইক্রোসফটের ডেটা সেন্টার অঞ্চল
jugantor
মালয়েশিয়ায় হচ্ছে মাইক্রোসফটের ডেটা সেন্টার অঞ্চল

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে  

২১ এপ্রিল ২০২১, ২৩:৩৮:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় হচ্ছে মাইক্রোসফটের ‘ডেটা সেন্টার অঞ্চল’। আর এই ডেটা সেন্টারের মাধ্যমে মাইক্রোসফট আগামী পাঁচ বছরে একশ’ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে। দেশটির সরকারি সংস্থা ও স্থানীয় ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে নতুন এক অংশীদারি কর্মসূচির আওতায় এ বিনিয়োগ আসবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

১৯ এপ্রিল (সোমবার) ‘বার্সামা মালয়েশিয়া’ উদ্যোগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী তান সেরি মুহিউদ্দিন ইয়াসিন বলেন, এ উদ্যোগের অংশ হিসেবে মাইক্রোসফট মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন দেশের ডেটা ব্যবস্থাপনার জন্য একাধিক ডেটা সেন্টার নিয়ে গঠিত তার প্রথম “ডাটা সেন্টার অঞ্চল” প্রতিষ্ঠা করবে।

দেশটিতে এই ক্লাউড সেবাদাতাদের বিনিয়োগ আগামী পাঁচ বছরে মোট ১২ বিলিয়ন থেকে ১৫ বিলিয়ন রিংগিত বা ২৯১ থেকে ৩৬৪ কেটি মার্কিন ডলারের মধ্যে হবে। একই কর্মসূচির আওতায় মাইক্রোসফট ২০২৩ সাল নাগাদ ডিজিটাল দক্ষতা অর্জনে প্রায় ১০ লাখ মালয়েশিয়ানকে সহায়তা করবে।

মাইক্রোসফটের নির্বাহী ভাইস প্রেসিডেন্ট জ্যঁ-ফিলিপ্পে কোতোঁয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন, ডেটা সেন্টার অঞ্চলটি মালয়েশিয়ার জন্য গেইম-চেঞ্জার হয়ে উঠবে। এটি সরকার এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে তাদের কার্যক্রমকে “রূপান্তর” করতে সক্ষম করবে।
এদিকে গত ফেব্রুয়ারি মাসে মালেয়েশিয়া মাইক্রোসফট, গুগল, অ্যামাজন এবং রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন টেলিকম মালয়েশিয়া মিলে হাইপার-স্কেল ডেটা সেন্টার তৈরি, ব্যবস্থাপনা এবং ক্লাউড সেবা দেওয়ার অনুমতি শর্তসাপেক্ষে দেয়। এরপর এটাই দেশটিতে মাইক্রোসফটের সবচেয়ে বড় বিনিয়োগ বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

বিদেশি বিনিয়োগের গন্তব্য হিসেবে মালয়েশিয়া এখনও নিজেকে রক্ষা করে চলেছে। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় সবচেয়ে বড় বিনিয়োগ হ্রাসের ঘটনা ঘটেছে মালয়েশিয়াতেই।
সম্প্রতি দেশটির অর্থমন্ত্রী বলেন, আরও এফডিআই আকর্ষণ করার জন্য তারা প্রণোদনার বিষয়টি বিবেচনা করছেন। গত বছর দেশটিতে প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) শতকরা ৬৮ ভাগ হ্রাসের পর দেশটিতে এ বিনিয়োগ এলো।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

মালয়েশিয়ায় হচ্ছে মাইক্রোসফটের ডেটা সেন্টার অঞ্চল

 আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে 
২১ এপ্রিল ২০২১, ১১:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় হচ্ছে মাইক্রোসফটের ‘ডেটা সেন্টার অঞ্চল’। আর এই ডেটা সেন্টারের মাধ্যমে মাইক্রোসফট আগামী পাঁচ বছরে একশ’ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে। দেশটির সরকারি সংস্থা ও স্থানীয় ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে নতুন এক অংশীদারি কর্মসূচির আওতায় এ বিনিয়োগ আসবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

১৯ এপ্রিল (সোমবার) ‘বার্সামা মালয়েশিয়া’ উদ্যোগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী তান সেরি মুহিউদ্দিন ইয়াসিন বলেন, এ উদ্যোগের অংশ হিসেবে মাইক্রোসফট মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন দেশের ডেটা ব্যবস্থাপনার জন্য একাধিক ডেটা সেন্টার নিয়ে গঠিত তার প্রথম “ডাটা সেন্টার অঞ্চল” প্রতিষ্ঠা করবে।

দেশটিতে এই ক্লাউড সেবাদাতাদের বিনিয়োগ আগামী পাঁচ বছরে মোট ১২ বিলিয়ন থেকে ১৫ বিলিয়ন রিংগিত বা ২৯১ থেকে ৩৬৪ কেটি মার্কিন ডলারের মধ্যে হবে। একই কর্মসূচির আওতায় মাইক্রোসফট ২০২৩ সাল নাগাদ ডিজিটাল দক্ষতা অর্জনে প্রায় ১০ লাখ মালয়েশিয়ানকে সহায়তা করবে।

মাইক্রোসফটের নির্বাহী ভাইস প্রেসিডেন্ট জ্যঁ-ফিলিপ্পে কোতোঁয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন, ডেটা সেন্টার অঞ্চলটি মালয়েশিয়ার জন্য গেইম-চেঞ্জার হয়ে উঠবে। এটি সরকার এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে তাদের কার্যক্রমকে “রূপান্তর” করতে সক্ষম করবে।
এদিকে গত ফেব্রুয়ারি মাসে মালেয়েশিয়া মাইক্রোসফট, গুগল, অ্যামাজন এবং রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন টেলিকম মালয়েশিয়া মিলে হাইপার-স্কেল ডেটা সেন্টার তৈরি, ব্যবস্থাপনা এবং ক্লাউড সেবা দেওয়ার অনুমতি শর্তসাপেক্ষে দেয়। এরপর এটাই দেশটিতে মাইক্রোসফটের সবচেয়ে বড় বিনিয়োগ বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

বিদেশি বিনিয়োগের গন্তব্য হিসেবে মালয়েশিয়া এখনও নিজেকে রক্ষা করে চলেছে। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় সবচেয়ে বড় বিনিয়োগ হ্রাসের ঘটনা ঘটেছে মালয়েশিয়াতেই।
সম্প্রতি দেশটির অর্থমন্ত্রী বলেন, আরও এফডিআই আকর্ষণ করার জন্য তারা প্রণোদনার বিষয়টি বিবেচনা করছেন। গত বছর দেশটিতে প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) শতকরা ৬৮ ভাগ হ্রাসের পর দেশটিতে এ বিনিয়োগ এলো।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন