মহামারি নিয়ন্ত্রণে পর্তুগালে ব্যাপক আকারে করোনা পরীক্ষা শুরু
jugantor
মহামারি নিয়ন্ত্রণে পর্তুগালে ব্যাপক আকারে করোনা পরীক্ষা শুরু

  ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে  

২৩ এপ্রিল ২০২১, ১৯:৫০:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালে ২০২০ সালে প্রথম করোনা সংক্রমণে মার্চ মাসের শেষ অবধি যেখানে মাত্র ২ হাজার কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হয়েছিল, সেখানে বর্তমানে গত মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) একদিনে ৯৪ হাজারের বেশি করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে; যা মহামারি শুরু থেকে এ পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক কোভিড-১৯ পরীক্ষার রেকর্ড ছুঁয়েছে।

পর্তুগালের লেরিয়া অঞ্চলে অবস্থিত হসপিটাল শান্ত আন্দ্রেতে একটি স্পেশালাইজড ইউনিট সম্প্রসারণ উদ্বোধনকালে পর্তুগিজ স্বাস্থ্য বিভাগের ডেপুটি সেক্রেটারি (সেক্রেটারিয়া ডে ইস্টাদো আডজুন্টু ই ডা সৌদ) আন্তোনিও লাসেরডা সালেস উপস্থিত সাংবাদিক এবং সবার উদ্দেশে বিষয়টি তুলে ধরেন।

তিনি আরও জানান, পর্তুগালে প্রতি ১০ লাখ জনগণের মধ্যে ৯ লাখ ৭০ হাজারের বেশি কোভিড-১৯ পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক। তাছাড়া কোভিড-১৯ পরীক্ষার গুরুত্ব বোঝাতে তিনি ব্যাখ্যা করেন যে, করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির সঙ্গে পরীক্ষার কোনো সম্পর্ক নেই, কেননা সামনের অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য প্রতিনিয়ত পরীক্ষা করার বিকল্প নেই।

করোনার ভ্যাকসিন কার্যক্রম গতিশীলতার বিষয়ে আন্তোনিও লাসেরডা সালেস স্বাস্থ্য বিভাগের সক্ষমতার চিত্র তুলে ধরে বলেন, গত সাপ্তাহিক ছুটির দিনে এক লাখ আশি হাজার ব্যক্তিকে ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে; যা আমাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের একটি বাস্তব রূপ।

পর্তুগালের মাত্র ১ কোটি ২ লাখ ৮০ হাজারের মতো জনসংখ্যার দেশে একদিনে বিপুলসংখ্যক করোনা পরীক্ষার সক্ষমতা এবং ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে এ পর্যন্ত ১ কোটি কোভিড-১৯ পরীক্ষা সম্পন্ন করা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবি রাখে। সে কারণেই পর্তুগাল ধীরে ধীরে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসছে; অপরদিকে প্রতিবেশী দেশগুলো লকডাউন বর্ধিত করার দোলাচলে জড়িয়ে আছে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

মহামারি নিয়ন্ত্রণে পর্তুগালে ব্যাপক আকারে করোনা পরীক্ষা শুরু

 ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে 
২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালে ২০২০ সালে প্রথম করোনা সংক্রমণে মার্চ মাসের শেষ অবধি যেখানে মাত্র ২ হাজার কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হয়েছিল, সেখানে বর্তমানে গত মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) একদিনে  ৯৪ হাজারের বেশি করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে; যা মহামারি শুরু থেকে এ পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক কোভিড-১৯ পরীক্ষার রেকর্ড ছুঁয়েছে।

পর্তুগালের লেরিয়া অঞ্চলে অবস্থিত হসপিটাল শান্ত আন্দ্রেতে একটি স্পেশালাইজড ইউনিট সম্প্রসারণ উদ্বোধনকালে পর্তুগিজ স্বাস্থ্য বিভাগের ডেপুটি সেক্রেটারি (সেক্রেটারিয়া ডে ইস্টাদো আডজুন্টু ই ডা সৌদ) আন্তোনিও লাসেরডা সালেস উপস্থিত সাংবাদিক এবং সবার উদ্দেশে বিষয়টি তুলে ধরেন।

তিনি আরও জানান, পর্তুগালে প্রতি ১০ লাখ জনগণের মধ্যে ৯ লাখ ৭০ হাজারের বেশি কোভিড-১৯ পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক। তাছাড়া কোভিড-১৯ পরীক্ষার  গুরুত্ব বোঝাতে তিনি ব্যাখ্যা করেন যে, করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির সঙ্গে পরীক্ষার কোনো সম্পর্ক নেই, কেননা সামনের অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য প্রতিনিয়ত পরীক্ষা করার বিকল্প নেই।

করোনার ভ্যাকসিন কার্যক্রম গতিশীলতার বিষয়ে আন্তোনিও লাসেরডা সালেস স্বাস্থ্য বিভাগের সক্ষমতার চিত্র তুলে ধরে বলেন, গত সাপ্তাহিক ছুটির দিনে  এক লাখ আশি হাজার ব্যক্তিকে ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে; যা আমাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের একটি বাস্তব রূপ।

পর্তুগালের মাত্র ১ কোটি ২ লাখ ৮০ হাজারের মতো জনসংখ্যার দেশে একদিনে বিপুলসংখ্যক করোনা পরীক্ষার সক্ষমতা এবং ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে এ পর্যন্ত ১ কোটি কোভিড-১৯ পরীক্ষা সম্পন্ন করা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবি রাখে। সে কারণেই পর্তুগাল ধীরে ধীরে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসছে; অপরদিকে প্রতিবেশী দেশগুলো লকডাউন বর্ধিত করার দোলাচলে জড়িয়ে আছে।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন