ইউরোপে সাংবাদিকতা ও প্রকাশনায় জনবলের চিত্র
jugantor
ইউরোপে সাংবাদিকতা ও প্রকাশনায় জনবলের চিত্র

  ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে  

০৪ মে ২০২১, ২২:৫৫:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউরোপীয় ইউনিয়নের এক হিসাব মতে, ২১টি সদস্য রাষ্ট্রের (ডেনমার্ক, স্পেন, গ্ৰিস, আয়ারল্যান্ড, লাটভিয়া এবং পর্তুগাল বাদে) সর্বমোট ৩ লাখ ৯৩ হাজার সংবাদিক রয়েছেন। তবে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হিসাবে প্রকাশনায় এবং সাংবাদিকতায় পেশাজীবীর সংখ্যা ৭ লাখ ৮৮ হাজার ৯০০ জন; যা ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২০২০ সালের সর্বমোট কর্মসংস্থান সংখ্যা ১৯ কোটি ৭১ লাখ ৫৩ হাজার ৬০০ জনের ০.৪০ শতাংশ।

উক্ত পেশাজীবীদের মধ্যে পুরুষের সংখ্যা ৪ লাখ ২৬ হাজার ৮০০; যা মোট সংখ্যার সঙ্গে শতাংশ বিবেচনায় ৫৪ শতাংশ এবং মহিলাদের সংখ্যা ৩ লাখ ৬২ হাজার ১০০ জন। এদের প্রত্যেকের বয়স ১৫ বছরের ঊর্ধ্বে তবে বয়সের ক্ষেত্রে ৫০ বছরের নিচে ৬৯ শতাংশ।

ইইউর গড় হিসাবে এ সংখ্যা হলেও দেশভেদে এবং জনসংখ্যা অনুযায়ী অনেক বেশি তারতম্য রয়েছে। যেমন- সর্বোচ্চ সংখ্যক হিসেবে সুইডেনে (৪১ হাজার ১০০) ০.৮১ শতাংশ তবে জার্মানিতে শতাংশ হিসেবে ০.৫৮ শতাংশ হলেও সংখ্যা হিসাবে ২ লাখ ৪৩ হাজার ৫০০ জন সাংবাদিকতা এবং প্রকাশনা শিল্পের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন।

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশি বসবাসকারী অধ্যুষিত তিনটি দেশ স্পেন, পর্তুগাল এবং ইতালি প্রতিটি দেশের সর্বমোট কর্মসংস্থানের সঙ্গে তুলনামূলকভাবে খুব কাছাকাছি অবস্থানে রয়েছে। যেমন- স্পেনে ০.২৯ শতাংশ; যা সংখ্যা হিসাবে ৫৬ হাজার ৪০০ জন এবং পর্তুগালে ০.২৩ শতাংশ (১০ হাজার ৯০০) এবং ইতালিতে ০.২৭ শতাংশ বা মোট ৬০ হাজার ৭০০ জন।

উল্লেখ্য যে উক্ত তিনটি দেশের মধ্যে ইতালির মোট জনসংখ্যা সর্বোচ্চ সংখ্যক। সবচেয়ে কম সংখ্যক পেশাজীবী যে দেশগুলোতে রয়েছেন তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে রোমানিয়া ও বুলগেরিয়া ০.১৫ শতাংশ; এখানেও সংখ্যার বিচারে অনেক তারতম্য রয়েছে।

ইউরোপের দেশগুলোর নাগরিকরা এক দেশ হতে অন্য দেশে গিয়ে কর্মসংস্থানে যুক্ত হতে পারেন খুব সহজেই। তবে নিজ দেশের বাইরে সাংবাদিকতা কঠিন হয়ে পড়ে, কেননা ইউরোপের প্রতিটি দেশের একটি স্বতন্ত্র ভাষা এবং খুবই শক্তিশালী ইতিহাস ঐতিহ্য রয়েছে। আর সাংবাদিকতা এমন একটি পেশা- যা বাস্তবে রূপদান করার জন্য ওই দুটি বিষয়ে জানা খুবই জরুরি। যেসব সাংবাদিকের ল্যাঙ্গুয়েজ ডাইভারসিটি রয়েছে তারা খুব সহজেই কাজ করার সুযোগ পান।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

ইউরোপে সাংবাদিকতা ও প্রকাশনায় জনবলের চিত্র

 ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে 
০৪ মে ২০২১, ১০:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউরোপীয় ইউনিয়নের এক হিসাব মতে, ২১টি সদস্য রাষ্ট্রের (ডেনমার্ক, স্পেন, গ্ৰিস, আয়ারল্যান্ড, লাটভিয়া এবং পর্তুগাল বাদে) সর্বমোট ৩ লাখ ৯৩ হাজার সংবাদিক রয়েছেন। তবে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হিসাবে প্রকাশনায় এবং সাংবাদিকতায় পেশাজীবীর সংখ্যা ৭ লাখ ৮৮ হাজার ৯০০ জন; যা ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২০২০ সালের সর্বমোট কর্মসংস্থান সংখ্যা ১৯ কোটি ৭১ লাখ ৫৩ হাজার ৬০০ জনের ০.৪০ শতাংশ।

উক্ত পেশাজীবীদের মধ্যে পুরুষের সংখ্যা ৪ লাখ ২৬ হাজার ৮০০; যা মোট সংখ্যার সঙ্গে শতাংশ বিবেচনায় ৫৪ শতাংশ এবং মহিলাদের সংখ্যা ৩ লাখ ৬২ হাজার ১০০ জন। এদের প্রত্যেকের বয়স ১৫ বছরের ঊর্ধ্বে তবে বয়সের ক্ষেত্রে ৫০ বছরের নিচে ৬৯ শতাংশ।

ইইউর গড় হিসাবে এ সংখ্যা হলেও দেশভেদে এবং জনসংখ্যা অনুযায়ী অনেক বেশি তারতম্য রয়েছে। যেমন- সর্বোচ্চ সংখ্যক হিসেবে সুইডেনে  (৪১ হাজার ১০০) ০.৮১ শতাংশ তবে জার্মানিতে শতাংশ হিসেবে ০.৫৮ শতাংশ হলেও সংখ্যা হিসাবে ২ লাখ ৪৩ হাজার ৫০০ জন  সাংবাদিকতা এবং প্রকাশনা শিল্পের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন।

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশি বসবাসকারী অধ্যুষিত তিনটি দেশ স্পেন, পর্তুগাল এবং ইতালি প্রতিটি দেশের সর্বমোট কর্মসংস্থানের সঙ্গে তুলনামূলকভাবে খুব কাছাকাছি অবস্থানে রয়েছে। যেমন- স্পেনে ০.২৯ শতাংশ; যা সংখ্যা হিসাবে ৫৬ হাজার ৪০০ জন এবং পর্তুগালে ০.২৩ শতাংশ (১০ হাজার ৯০০)  এবং ইতালিতে ০.২৭ শতাংশ বা মোট ৬০ হাজার ৭০০  জন।

উল্লেখ্য যে উক্ত তিনটি দেশের মধ্যে ইতালির মোট জনসংখ্যা সর্বোচ্চ সংখ্যক। সবচেয়ে কম সংখ্যক পেশাজীবী যে দেশগুলোতে রয়েছেন তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে রোমানিয়া ও বুলগেরিয়া ০.১৫ শতাংশ; এখানেও সংখ্যার বিচারে অনেক তারতম্য রয়েছে।

ইউরোপের দেশগুলোর নাগরিকরা এক দেশ হতে অন্য দেশে গিয়ে কর্মসংস্থানে যুক্ত হতে পারেন খুব সহজেই। তবে নিজ দেশের বাইরে সাংবাদিকতা কঠিন হয়ে পড়ে, কেননা ইউরোপের প্রতিটি দেশের একটি স্বতন্ত্র ভাষা এবং খুবই শক্তিশালী ইতিহাস ঐতিহ্য রয়েছে। আর সাংবাদিকতা এমন একটি পেশা- যা বাস্তবে রূপদান করার জন্য ওই দুটি বিষয়ে জানা খুবই জরুরি। যেসব সাংবাদিকের ল্যাঙ্গুয়েজ ডাইভারসিটি রয়েছে তারা খুব সহজেই কাজ করার সুযোগ পান।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন