পর্তুগালে বাংলাদেশকে উপস্থাপন করল প্রবাসী ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা
jugantor
পর্তুগালে বাংলাদেশকে উপস্থাপন করল প্রবাসী ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা

  ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে  

০৪ জুন ২০২১, ০০:৪৭:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালে শিশু দিবস উপলক্ষে ১ জুন রাজধানীর লিসবনের কেন্দ্রে অবস্থিত "ইসকলা নুমেরো উ দে লিসবোয়া" বিদ্যালয়ে শিশু দিবসের অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। এতে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত দুই শিশু শিক্ষার্থী তাসবি ফাতেমী বাংলাদেশের ভৌগোলিক অবস্থান এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপস্থাপন করেন।

অপর প্রবাসী বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ফারিয়াল আহমেদ পাটোয়ারী তা পর্তুগিজ ভাষায় অনুবাদ করে সবার উদ্দেশ্যে তুলে ধরেন।

বিদ্যালয়ের সব শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে প্রধান শিক্ষিকা তেরেসা পাইসের উপস্থাপনায় সকাল ১০টায় অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লিসবন সিটি কর্পোরেশনের প্রেসিডেন্ট ফার্নান্দো মেদিনা স্থানীয় কাউন্সিলের আরোইশের প্রেসিডেন্ট মারগারিদা মার্টিন্স, বিদ্যালয়ের গ্রুপের দিরেক্টর লরিন্ডা পেরেইরা এবং বিখ্যাত পর্তুগিজ লেখিকা ইসাবেল আলসাদা। এছাড়া শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন অতিথিরা সেখানে ছিলেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি লিসবন সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ফার্নান্দো মেদিনা শিশু দিবসে শিশুদের বই উপহার দেন এবং প্রবাসী শিশুদের শিক্ষাব্যবস্থার বিষয়ে খোঁজখবর নেন এবং তাদের বিভিন্ন ভাষার দক্ষতা বিষয়ে উষ্ণ মনোভাব পোষণ করে তাদের অভিবাদন জানান।

স্থানীয় কাউন্সিল আরোইশের প্রেসিডেন্ট মারগারিদা মার্টিন্স বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে উপহার সামগ্রী তুলে দেন এবং সকল শিশুদের শিশু দিবসের অভিবাদন জানান এবং ঐতিহ্যবাহী স্কুলের সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের সাথে নিজেকে যুক্ত রাখতে পেরে উষ্ণ অনুভূতি প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, রাজধানী লিসবনের এ বিদ্যালয়টি শহরের প্রথম স্কুল এবং বর্তমানে স্থানীয় পর্তুগিজ শিক্ষার্থীসহ প্রায় ২৭টি ভিন্ন ভিন্ন দেশের ভিন্ন ভাষাভাষীর শিক্ষার্থীরা অধ্যায়ন করার ফলে বিদ্যালয়টি একটি মিশ্র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ধারণ করে আসছে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

পর্তুগালে বাংলাদেশকে উপস্থাপন করল প্রবাসী ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা

 ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে 
০৪ জুন ২০২১, ১২:৪৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালে শিশু দিবস উপলক্ষে ১ জুন রাজধানীর লিসবনের কেন্দ্রে অবস্থিত "ইসকলা  নুমেরো উ দে লিসবোয়া" বিদ্যালয়ে শিশু দিবসের অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। এতে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত দুই শিশু শিক্ষার্থী তাসবি ফাতেমী বাংলাদেশের ভৌগোলিক অবস্থান এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপস্থাপন করেন।

অপর প্রবাসী বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ফারিয়াল আহমেদ পাটোয়ারী তা পর্তুগিজ ভাষায় অনুবাদ করে সবার উদ্দেশ্যে তুলে ধরেন।

বিদ্যালয়ের সব শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে প্রধান শিক্ষিকা তেরেসা পাইসের উপস্থাপনায় সকাল ১০টায় অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লিসবন সিটি কর্পোরেশনের প্রেসিডেন্ট ফার্নান্দো মেদিনা স্থানীয় কাউন্সিলের আরোইশের প্রেসিডেন্ট মারগারিদা মার্টিন্স, বিদ্যালয়ের গ্রুপের দিরেক্টর লরিন্ডা পেরেইরা এবং বিখ্যাত পর্তুগিজ লেখিকা ইসাবেল আলসাদা। এছাড়া শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন অতিথিরা সেখানে ছিলেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি লিসবন সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ফার্নান্দো মেদিনা শিশু দিবসে শিশুদের বই উপহার দেন এবং প্রবাসী শিশুদের শিক্ষাব্যবস্থার বিষয়ে খোঁজখবর নেন এবং তাদের বিভিন্ন ভাষার দক্ষতা বিষয়ে উষ্ণ মনোভাব পোষণ করে তাদের অভিবাদন জানান।

স্থানীয় কাউন্সিল আরোইশের প্রেসিডেন্ট মারগারিদা মার্টিন্স বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে উপহার সামগ্রী তুলে দেন এবং সকল শিশুদের শিশু দিবসের অভিবাদন জানান এবং ঐতিহ্যবাহী স্কুলের সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের সাথে নিজেকে যুক্ত রাখতে পেরে উষ্ণ অনুভূতি প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, রাজধানী লিসবনের এ বিদ্যালয়টি শহরের প্রথম স্কুল এবং বর্তমানে স্থানীয় পর্তুগিজ শিক্ষার্থীসহ প্রায় ২৭টি ভিন্ন ভিন্ন দেশের ভিন্ন ভাষাভাষীর শিক্ষার্থীরা অধ্যায়ন করার ফলে বিদ্যালয়টি একটি মিশ্র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ধারণ করে আসছে।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন