ডিসেম্বরের মধ্যে সব সেক্টর চালু করতে চায় মালয়েশিয়া
jugantor
ডিসেম্বরের মধ্যে সব সেক্টর চালু করতে চায় মালয়েশিয়া

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে  

১৫ জুন ২০২১, ২২:৫৫:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

চলতি বছর ডিসেম্বরের মধ্যে মালয়েশিয়ায় পুনরায় সব সেক্টর চালুর পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তানশ্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন।

মঙ্গলবার (১৫ জুন) স্থানীয় সময় বিকাল ৫টায় জাতীয় পুনরুদ্ধার পরিকল্পনার ঘোষণায় এ কথা জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, চারটি পর্যায়ে করোনা মোকাবেলা করবে সরকার। এর মধ্যে সর্বশেষ পর্যায় হবে দেশের সব খাত পুনরায় চালু করে দেয়া। সেক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ খাতগুলোকে প্রাধান্য দেয়া হবে। এর মধ্যে দেশীয় অভ্যন্তরীণ পর্যটন অন্যতম। তবে পুরো বিষয়টি নির্ভর করছে কঠোর লকডাউনের ওপর। সংক্রমণ হার বেড়ে যাওয়ায় কঠোর লকডাউন চলমান রয়েছে। সংক্রমণ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে লকডাউন প্রত্যাহার করা হবে।

তিনি বলেন, চলতি বছরের শেষদিকে অধিকাংশ নাগরিকের শরীরে হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হবে। তখন আমরা পরবর্তী পর্যায়ে এগিয়ে যেতে পারব। বিজ্ঞান ও তথ্যের ওপর নির্ভর করে আমরা চারটি পর্যায় নির্ধারণ করেছি। যেখানে তিনটি বিষয়কে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। প্রথমটি হচ্ছে দৈনিক সংক্রমণ হার, দ্বিতীয়টি স্বাস্থ্য খাতের সক্ষমতা (হাসপাতালের শয্যা, আইসিইউ বেডসহ সংশ্লিষ্ট অবকাঠামো ও সরঞ্জাম) এবং সর্বশেষ আমরা কী পরিমাণ নাগরিককে টিকা দিতে পেরেছি তার তথ্য।

প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার আগে দুপুর ২টায় রাজপ্রাসাদে ইয়াং ডি-পার্টুয়ান আগোং, সুলতান আবদুল্লাহ সুলতান আহমদ শাহেদের সঙ্গে দেখা করেন এবং পুনরুদ্ধার বিষয় নিয়ে প্রায় এক ঘণ্টা আলোচনা করেন।

সুলতান আবদুল্লাহ গত সপ্তাহে ১৫টি রাজনৈতিক দলের নেতাদের সঙ্গে জরুরি অবস্থা এবং কোভিড-১৯ মহামারি মোকাবিলার ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা করেন।

রাজা সুলতান আবদুল্লাহ ১৬ জুন বুধবার মালয় শাসকদের সঙ্গে একটি বিশেষ বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন বলে একটি সূত্রে জানা গেছে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

ডিসেম্বরের মধ্যে সব সেক্টর চালু করতে চায় মালয়েশিয়া

 আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে 
১৫ জুন ২০২১, ১০:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চলতি বছর ডিসেম্বরের মধ্যে মালয়েশিয়ায় পুনরায় সব সেক্টর চালুর পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তানশ্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন।

মঙ্গলবার (১৫ জুন) স্থানীয় সময় বিকাল ৫টায় জাতীয় পুনরুদ্ধার পরিকল্পনার ঘোষণায় এ কথা জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, চারটি পর্যায়ে করোনা মোকাবেলা করবে সরকার। এর মধ্যে সর্বশেষ পর্যায় হবে দেশের সব খাত পুনরায় চালু করে দেয়া। সেক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ খাতগুলোকে প্রাধান্য দেয়া হবে। এর মধ্যে দেশীয় অভ্যন্তরীণ পর্যটন অন্যতম। তবে পুরো বিষয়টি নির্ভর করছে কঠোর লকডাউনের ওপর। সংক্রমণ হার বেড়ে যাওয়ায় কঠোর লকডাউন চলমান রয়েছে। সংক্রমণ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে লকডাউন প্রত্যাহার করা হবে।

তিনি বলেন, চলতি বছরের শেষদিকে অধিকাংশ নাগরিকের শরীরে হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হবে। তখন আমরা পরবর্তী পর্যায়ে এগিয়ে যেতে পারব। বিজ্ঞান ও তথ্যের ওপর নির্ভর করে আমরা চারটি পর্যায় নির্ধারণ করেছি। যেখানে তিনটি বিষয়কে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। প্রথমটি হচ্ছে দৈনিক সংক্রমণ হার, দ্বিতীয়টি স্বাস্থ্য খাতের সক্ষমতা (হাসপাতালের শয্যা, আইসিইউ বেডসহ সংশ্লিষ্ট অবকাঠামো ও সরঞ্জাম) এবং সর্বশেষ আমরা কী পরিমাণ নাগরিককে টিকা দিতে পেরেছি তার তথ্য।

প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার আগে দুপুর ২টায় রাজপ্রাসাদে ইয়াং ডি-পার্টুয়ান আগোং, সুলতান আবদুল্লাহ সুলতান আহমদ শাহেদের সঙ্গে দেখা করেন এবং পুনরুদ্ধার বিষয় নিয়ে প্রায় এক ঘণ্টা আলোচনা করেন।

সুলতান আবদুল্লাহ গত সপ্তাহে ১৫টি রাজনৈতিক দলের নেতাদের সঙ্গে জরুরি অবস্থা এবং কোভিড-১৯ মহামারি মোকাবিলার ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা করেন।

রাজা সুলতান আবদুল্লাহ ১৬ জুন বুধবার মালয় শাসকদের সঙ্গে একটি বিশেষ বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন বলে একটি সূত্রে জানা গেছে।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন