আগস্টে ফিরতে পারবেন কুয়েত অনুমোদিত টিকা নেয়া প্রবাসীরা
jugantor
আগস্টে ফিরতে পারবেন কুয়েত অনুমোদিত টিকা নেয়া প্রবাসীরা

  সাদেক রিপন, কুয়েত থেকে  

২৩ জুন ২০২১, ০১:৫৮:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

কুয়েত সরকার অনুমোদিত ফাইজার, অক্সফোর্ড, জনসন ও মডার্নার দুই ডোজ টিকা নেয়া বৈধ আকামাধারী প্রবাসীদের ১ আগস্ট হতে কুয়েতে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে। বৃহস্পতিবার দেশটির মন্ত্রিপরিষদের জরুরি এক বৈঠকে এ প্রস্তাব করা হয়।

মন্ত্রিপরিষদের বরাত দিয়ে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোতে উল্লেখ করা হয়, আগত প্রবাসীদের প্রবেশের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পিসিআর সনদ নিয়ে আসতে এবং ৭ দিন নিজ বাসায় কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে, যে পর্যন্ত করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট না আসে।

যেসব প্রবাসীরা টিকা নেবে তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভ্রমণ করতে পারবে। টিকা না নেয়া ব্যক্তিদের রেস্টুরেন্ট, জিম সেন্টার, সেলুন ও শপিংমলসহ গুরুত্বপূর্ণ মহলগুলোতে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে না।

ছুটিতে গেলে পিসিআর সনদ ও টিকা নেয়া প্রবাসীদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন বাতিল করে হোম কোয়ারেন্টিনের দাবি জানান কুয়েত প্রবাসীরা। এছাড়াও টিকা নেয়া ছাড়া যেসব প্রবাসী দেশে যাচ্ছে তাদের কোয়ারেন্টিন খরচ সরকারকে বহনের দাবি করেন। গৃহকর্মীরা টিকা না দিলেও ফিরতে পারবেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১৪ দিন নিজ খরচে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে তাদের। স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে স্থানীয় এবং প্রবাসীদের টিকার প্রথম ডোজের পাশাপাশি দ্বিতীয় টিকা প্রদান কার্যক্রম চলেছে জোরগতিতে। স্থানীয় ও প্রবাসী মিলে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩ মিলিয়ন লোককে টিকা প্রদান সম্পন্ন হয়েছে।

দেশে ছুটিতে গিয়ে আটকেপড়া স্বজনদের কুয়েত সরকার অনুমোদিত টিকা প্রদান করে দ্রুত কর্মস্থলে ফেরার সুযোগ করে দিতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান কুয়েত প্রবাসীরা।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

আগস্টে ফিরতে পারবেন কুয়েত অনুমোদিত টিকা নেয়া প্রবাসীরা

 সাদেক রিপন, কুয়েত থেকে 
২৩ জুন ২০২১, ০১:৫৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুয়েত সরকার অনুমোদিত ফাইজার, অক্সফোর্ড, জনসন ও মডার্নার দুই ডোজ  টিকা নেয়া বৈধ আকামাধারী প্রবাসীদের ১ আগস্ট হতে কুয়েতে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে। বৃহস্পতিবার দেশটির মন্ত্রিপরিষদের জরুরি এক বৈঠকে এ প্রস্তাব করা হয়।

মন্ত্রিপরিষদের বরাত দিয়ে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোতে উল্লেখ করা হয়, আগত প্রবাসীদের প্রবেশের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পিসিআর সনদ নিয়ে আসতে এবং ৭ দিন নিজ বাসায় কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে, যে পর্যন্ত করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট না আসে। 

যেসব প্রবাসীরা টিকা নেবে তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভ্রমণ করতে পারবে। টিকা না নেয়া ব্যক্তিদের রেস্টুরেন্ট, জিম সেন্টার, সেলুন ও শপিংমলসহ গুরুত্বপূর্ণ মহলগুলোতে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে না। 
 
ছুটিতে গেলে পিসিআর সনদ ও টিকা নেয়া প্রবাসীদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন বাতিল করে হোম কোয়ারেন্টিনের দাবি জানান কুয়েত প্রবাসীরা। এছাড়াও টিকা নেয়া ছাড়া যেসব প্রবাসী দেশে যাচ্ছে তাদের কোয়ারেন্টিন খরচ সরকারকে বহনের দাবি করেন। গৃহকর্মীরা টিকা না দিলেও ফিরতে পারবেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১৪ দিন নিজ খরচে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে তাদের। স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে স্থানীয় এবং প্রবাসীদের টিকার প্রথম ডোজের পাশাপাশি দ্বিতীয় টিকা প্রদান কার্যক্রম চলেছে জোরগতিতে। স্থানীয় ও প্রবাসী মিলে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩ মিলিয়ন লোককে টিকা প্রদান সম্পন্ন হয়েছে।

দেশে ছুটিতে গিয়ে আটকেপড়া স্বজনদের কুয়েত সরকার অনুমোদিত টিকা প্রদান করে দ্রুত কর্মস্থলে ফেরার সুযোগ করে দিতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান কুয়েত প্রবাসীরা।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন