মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশির ৯ মাসের কারাদণ্ড 
jugantor
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশির ৯ মাসের কারাদণ্ড 

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৫০:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় আরেকজনের পাসপোর্টের নাম্বার দিয়ে করোনা ভ্যাকসিন নিতে গিয়ে জালিয়াতির কারণে গ্রেফতার হন বাংলাদেশি যুবক মো. সাদ্দাম হোসেন। ওই পাসপোর্ট নং BY0934943; পরে অভিযুক্ত সাদ্দাম হোসেনকে পুলিশ ২৪ সেপ্টেম্বর সকালে আদালতে হাজির করলে বিচারকের কাছে তিনি তার দোষ স্বীকার করেন। তখন আদালত তাকে ৯ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন। দুপুরে দেশটির জাতীয় দৈনিক বেরিতা হারিয়ানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ হয়েছে।

পত্রিকাটি আরও জানায়, সাদ্দাম হোসেন আরেক বাংলাদেশি প্রবাসী মো. হেলাল মিয়ার পাসপোর্ট দিয়ে টিকা নিবন্ধন করার অনলাইন অ্যাপ Mysejahtera-এ ভ্যাকসিনের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিয়েছেন। ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় ইউনিভার্সিটি ইসলাম মালয়েশিয়া সেন্টারে গিয়ে ভ্যাকসিন গ্রহণ করার সময় হাতেনাতে ধরা পড়েন। পরে পুলিশ দেশটির আইনের ৪১৯ ধারায় তার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে শুক্রবার আদালতে হাজির করলে ডেপুটি পাবলিক প্রসিকিউটর নুরুল মুহাইমিন মোহাম্মাদ আজমান তাকে এ কারাদণ্ড দেন। এ সময় অভিযুক্ত সাদ্দামের পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না।

উল্লেখ্য, মালয়েশিয়ায় করোনা মহামারি রোধে গণহারে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে। যারা অভিবাসী কর্মী রয়েছেন তাদের বলা হয়েছে শুধুমাত্র পাসপোর্ট থাকলেই বৈধ ও অবৈধ সব প্রবাসীকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। ভ্যাকসিন গ্রহণ করার জন্য ভিসা বা পারমিটের প্রয়োজন নেই।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশির ৯ মাসের কারাদণ্ড 

 আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৫০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় আরেকজনের পাসপোর্টের নাম্বার দিয়ে করোনা ভ্যাকসিন নিতে গিয়ে জালিয়াতির কারণে গ্রেফতার হন বাংলাদেশি যুবক মো. সাদ্দাম হোসেন। ওই পাসপোর্ট নং BY0934943; পরে অভিযুক্ত সাদ্দাম হোসেনকে পুলিশ ২৪ সেপ্টেম্বর সকালে  আদালতে হাজির করলে বিচারকের কাছে তিনি তার দোষ স্বীকার করেন। তখন আদালত তাকে ৯ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন। দুপুরে দেশটির জাতীয় দৈনিক বেরিতা হারিয়ানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ হয়েছে। 

পত্রিকাটি আরও জানায়,  সাদ্দাম হোসেন আরেক বাংলাদেশি প্রবাসী মো. হেলাল মিয়ার পাসপোর্ট দিয়ে টিকা নিবন্ধন করার অনলাইন  অ্যাপ Mysejahtera-এ ভ্যাকসিনের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিয়েছেন। ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় ইউনিভার্সিটি ইসলাম মালয়েশিয়া সেন্টারে গিয়ে ভ্যাকসিন গ্রহণ করার সময় হাতেনাতে ধরা পড়েন। পরে পুলিশ দেশটির আইনের ৪১৯ ধারায় তার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে শুক্রবার আদালতে হাজির করলে ডেপুটি পাবলিক প্রসিকিউটর নুরুল মুহাইমিন মোহাম্মাদ আজমান তাকে এ কারাদণ্ড দেন। এ সময় অভিযুক্ত সাদ্দামের পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না। 

উল্লেখ্য, মালয়েশিয়ায় করোনা মহামারি রোধে গণহারে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে। যারা অভিবাসী কর্মী রয়েছেন তাদের বলা হয়েছে শুধুমাত্র পাসপোর্ট থাকলেই বৈধ ও অবৈধ সব প্রবাসীকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। ভ্যাকসিন গ্রহণ করার জন্য ভিসা বা পারমিটের প্রয়োজন নেই।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন