জাপানে পুরস্কার পেলেন মুন্সীগঞ্জ চারুকলা সংস্থার সাবেক প্রশিক্ষক
jugantor
জাপানে পুরস্কার পেলেন মুন্সীগঞ্জ চারুকলা সংস্থার সাবেক প্রশিক্ষক

  যুগান্তর প্রতিবেদন, মুন্সীগঞ্জ  

০৪ অক্টোবর ২০২১, ১৪:০৭:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

টোকিও মেট্রোপলিটন আর্ট মিউজিয়ামে চিত্রকলা প্রদর্শনীতে পুরস্কৃত হয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশি শিল্পী এবং মুন্সীগঞ্জ চারুকলা সংস্থার সাবেক প্রশিক্ষক সোলায়মান হোসাইন ওরফে সালমান।

মুন্সীগঞ্জের এ কৃতী সন্তান টোকিওতে নেপাল এম্বাসি অ্যাওয়ার্ড এবং ওশিনো মুরা মেয়র অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন।

টোকিওর মেট্রোপলিটন আর্ট মিউজিয়ামের ওয়েনো আর্ট গ্যালারিতে সপ্তাহব্যাপী আন্তর্জাতিক চিত্রকলা প্রদর্শনীতে তাকে ওই পদক প্রদান করা হয়।

সোলায়মান হোসাইন ওরফে সালমান নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইনিস্টিউটের সাবেক শিক্ষার্থী ও মুন্সীগঞ্জ চারুকলা সংস্থার সাবেক প্রশিক্ষক ছিলেন।

রোববার প্রদর্শনীর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে শিনকিয়োকু আর্ট অ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তার ছাড়া উপস্থিত ছিলেন জাপানে নিয়োজিত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সাহাবুদ্দিন আহমেদ, নেপাল দূতাবাসের কাউন্সিলর আমবিকা জোশি এবং জাপানের ক্ষমতাসীন জোট এলডিপির শিক্ষা, সংস্কৃতি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের চেয়ারম্যান মাসাআকি আকাইকে।

ওশিনো মুরা সিটি মেয়র তাকাইকে আমানো, ওশিনোফুজি আর্টপিয়া চেয়ারম্যান নরিমতো মিউরা, শিনকিউকো আর্ট অ্যাসোসিয়েশন চেয়ারম্যান সাকামতো তাদাইচিসহ জাপান ও প্রবাসি বাংলাদেশিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৮ সেপ্টেম্বর শুরু হওয়া প্রদর্শনীটি আগামী ৫ অক্টোবর শেষ হবে। শিনকিয়ূকু আর্ট এসোসিয়েশন আয়োজিত এ চিত্রপ্রদর্শনীর এটি ২৭তম আয়োজন। এবারের প্রদর্শনীতে ২৭১ জন চিত্রশিল্পীর ৩৮৯টি চিত্রকর্ম জায়গা পেয়েছে।

এরমধ্যে ১০ জন বাংলাদেশি চিত্রশিল্পী এবং ১০০ জন শিশুশিল্পীর চিত্রকর্ম আছে। এছাড়াও ঘানা, চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, মঙ্গোলিয়া, নেপাল এবং স্থানীয় জাপানি চিত্রশিল্পীদের চিত্রকর্মও সেখানে জায়গা পেয়েছে।

এখানে জাপান প্রবাসি বাংলাদেশি চিত্রশিল্পী মোহাম্মদ সোলায়মান হোসাইন সালমানের মাউন্ট ফুজি এবং ওশিনো হাক্কাইর ৮টি প্রাকৃতিকভাবে সৃষ্ট পুকুরের নৈসর্গিক সৌন্দর্যকে কেন্দ্র করে আঁকা ড্রোনভিউয়ের ৯টি চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হচ্ছে। উল্লেখ্য, এই জায়গাগুলো ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ হিসেবে স্বীকৃত।

সালমানের শিল্পকর্মের পাশাপাশি বাংলাদেশের আরও ১০ জন শিল্পীর ১০টি চিত্রকর্ম প্রদর্শন ও পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের ১০০ শিশুশিল্পীর ফুজি পাহাড়ের ওপর ভিত্তি করে অঙ্কিত চিত্রকর্ম এবং জাপানিজ শিশুদের লেখা কবিতা প্রদর্শিত হচ্ছে।

প্রদর্শনীতে শিল্পী মোহাম্মদ সোলায়মান হোসাইন সালমান নেপাল এম্বেসি অ্যাওয়ার্ড এবং ওশিনো মুরা সিটি মেয়র অ্যাওয়ার্ড জিতে নেন।

এ ছাড়া ৩ জাপানি চিত্রশিল্পী বাংলাদেশ দূতাবাস পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন।

শিনকিয়ুকু আর্ট এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ এবং নেপাল দূতাবাসকে দু'টি চিত্রকর্ম উপহার দেওয়া হয়। রাষ্ট্রদূত সাহাবুদ্দিন আহমেদ বাংলাদেশের পক্ষে উপহার গ্রহণ করেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

জাপানে পুরস্কার পেলেন মুন্সীগঞ্জ চারুকলা সংস্থার সাবেক প্রশিক্ষক

 যুগান্তর প্রতিবেদন, মুন্সীগঞ্জ 
০৪ অক্টোবর ২০২১, ০২:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টোকিও মেট্রোপলিটন আর্ট মিউজিয়ামে চিত্রকলা প্রদর্শনীতে পুরস্কৃত হয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশি শিল্পী এবং মুন্সীগঞ্জ চারুকলা সংস্থার সাবেক প্রশিক্ষক সোলায়মান হোসাইন ওরফে সালমান।

মুন্সীগঞ্জের এ কৃতী সন্তান টোকিওতে নেপাল এম্বাসি অ্যাওয়ার্ড এবং ওশিনো মুরা মেয়র অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন।

টোকিওর মেট্রোপলিটন আর্ট মিউজিয়ামের ওয়েনো আর্ট গ্যালারিতে সপ্তাহব্যাপী আন্তর্জাতিক চিত্রকলা প্রদর্শনীতে তাকে ওই পদক প্রদান করা হয়।

সোলায়মান হোসাইন ওরফে সালমান নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইনিস্টিউটের সাবেক শিক্ষার্থী ও মুন্সীগঞ্জ চারুকলা সংস্থার সাবেক প্রশিক্ষক ছিলেন।

রোববার প্রদর্শনীর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে শিনকিয়োকু আর্ট অ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তার ছাড়া উপস্থিত ছিলেন জাপানে নিয়োজিত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সাহাবুদ্দিন আহমেদ, নেপাল দূতাবাসের কাউন্সিলর আমবিকা জোশি এবং জাপানের ক্ষমতাসীন জোট এলডিপির শিক্ষা, সংস্কৃতি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের চেয়ারম্যান মাসাআকি আকাইকে।

ওশিনো মুরা সিটি মেয়র তাকাইকে আমানো, ওশিনোফুজি আর্টপিয়া চেয়ারম্যান নরিমতো মিউরা, শিনকিউকো আর্ট অ্যাসোসিয়েশন চেয়ারম্যান সাকামতো তাদাইচিসহ জাপান ও প্রবাসি বাংলাদেশিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৮ সেপ্টেম্বর শুরু হওয়া প্রদর্শনীটি আগামী ৫ অক্টোবর শেষ হবে। শিনকিয়ূকু আর্ট এসোসিয়েশন আয়োজিত এ চিত্রপ্রদর্শনীর এটি ২৭তম আয়োজন। এবারের প্রদর্শনীতে ২৭১ জন চিত্রশিল্পীর ৩৮৯টি চিত্রকর্ম জায়গা পেয়েছে।

এরমধ্যে ১০ জন বাংলাদেশি চিত্রশিল্পী এবং ১০০ জন শিশুশিল্পীর চিত্রকর্ম আছে। এছাড়াও ঘানা, চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, মঙ্গোলিয়া, নেপাল এবং স্থানীয় জাপানি চিত্রশিল্পীদের চিত্রকর্মও সেখানে জায়গা পেয়েছে।

এখানে জাপান প্রবাসি বাংলাদেশি চিত্রশিল্পী মোহাম্মদ সোলায়মান হোসাইন সালমানের মাউন্ট ফুজি এবং ওশিনো হাক্কাইর ৮টি প্রাকৃতিকভাবে সৃষ্ট পুকুরের নৈসর্গিক সৌন্দর্যকে কেন্দ্র করে আঁকা ড্রোনভিউয়ের ৯টি চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হচ্ছে। উল্লেখ্য, এই জায়গাগুলো ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ হিসেবে স্বীকৃত।

সালমানের শিল্পকর্মের পাশাপাশি বাংলাদেশের আরও ১০ জন শিল্পীর ১০টি চিত্রকর্ম প্রদর্শন ও পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের ১০০ শিশুশিল্পীর ফুজি পাহাড়ের ওপর ভিত্তি করে অঙ্কিত চিত্রকর্ম এবং জাপানিজ শিশুদের লেখা কবিতা প্রদর্শিত হচ্ছে।

প্রদর্শনীতে শিল্পী মোহাম্মদ সোলায়মান হোসাইন সালমান নেপাল এম্বেসি অ্যাওয়ার্ড এবং ওশিনো মুরা সিটি মেয়র অ্যাওয়ার্ড জিতে নেন।

এ ছাড়া ৩ জাপানি চিত্রশিল্পী বাংলাদেশ দূতাবাস পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন।

শিনকিয়ুকু আর্ট এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ এবং নেপাল দূতাবাসকে দু'টি চিত্রকর্ম উপহার দেওয়া হয়। রাষ্ট্রদূত সাহাবুদ্দিন আহমেদ বাংলাদেশের পক্ষে উপহার গ্রহণ করেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন