সুইডেন প্রবাসী রহমান মৃধার নতুন দুটি বই বাজারে
jugantor
সুইডেন প্রবাসী রহমান মৃধার নতুন দুটি বই বাজারে

  মাফি ইসলাম, সুইডেন থেকে  

১০ অক্টোবর ২০২১, ০০:৫৬:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বখ্যাত আমেরিকান ওষুধ নির্মাণ শিল্প প্রতিষ্ঠান ফাইজারের প্রোডাকশন অ্যান্ড সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্টের সাবেক পরিচালক রহমান মৃধার নতুন দুটি বই বাজারে এসেছে। সুইডেন প্রবাসী রহমান মৃধার ‘আমার বাংলাদেশ’ ও ‘জাগো বাংলাদেশ’ বই দুটি এবারো বাংলাদেশে ফুটবল খেলোয়াড় তৈরির প্ল্যাটফর্ম ‘ফুটবলারস হান্ট একাডেমি’র জন্য উৎসর্গ করেছেন।

তার বই দুটি ক্রয়ের মাধ্যমে যে টাকা আসবে সেটা তিনি এই একাডেমির উন্নয়নের জন্য দেবেন। এছাড়া যারা এ একাডেমির সদস্য হবেন তাদের বিনামূল্যে বই উপহার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। এর আগে ‘হৃদয়ে বাংলাদেশ’ নামে তার প্রকাশিত প্রথম বইটিও ফুটবল খেলোয়াড় তৈরির প্ল্যাটফর্মের জন্য উৎসর্গ করেছিলেন।

‘আমার বাংলাদেশ’ ও ‘জাগো বাংলাদেশ’ বই দুটি প্রকাশ করেছে প্রীতম প্রকাশ। প্রচ্ছদ এঁকেছেন নিয়াজ চৌধুরী তুলি।

তার লেখাগুলো বই হিসেবে প্রকাশ হওয়ার আগে দেশের শীর্ষ স্থানীয় জাতীয় দৈনিক প্রথম আলো, যুগান্তর, সমকাল, ইত্তেফাক, নয়া দিগন্ত, অধিকার, ডেল্টা টাইমস, দৈনিক শিক্ষা, অর্থ সংবাদ, ইনকিলাব, বাংলাদেশ জার্নাল, জাগো নিউজ, সময় নিউজসহ অনেক পত্রিকায় প্রিন্ট ও অনলাইন সংস্করণে প্রকাশ হয়েছে। সেগুলো একত্রিত করে প্রকাশ হয়েছে ‘আমার বাংলাদেশ’ ও ‘জাগো বাংলাদেশ’ বই দুটি।

তার লেখায় বেশিরভাগ অংশজুড়ে ছিল বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে। এরপর সবচেয়ে বেশি আলোচনায় এসেছে লাল-সবুজের পতাকা ক্রিকেটের মতো করে ফুটবলেও বিশ্ব মাতাবে বাংলাদেশ। এজন্য কী করতে হবে সে বিষয়ে অভিজ্ঞতার আলোকে নানান পরামর্শ দিয়েছেন।

বইটিতে শুধু শিক্ষা বা খেলাধুলা বিষয়ে নয়; বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি থেকে শুরু করে করোনা মহামারি, গণতন্ত্র, দুর্নীতি, ভালোবাসা, প্রত্যাশা, বিদেশে বাংলাদেশের অবস্থান, দেশের সমসাময়িক ইস্যু সবই রয়েছে। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তার হৃদয়ে গেঁথে থাকা গল্পগুলোও জায়গা পেয়েছে বইটিতে।

লেখক বাংলাদেশের গণমাধ্যম ছাড়াও সুইডেনের বিখ্যাত জাতীয় দৈনিক দগেন্স নিহেতার ও ইয়তেবরি পোস্ট পত্রিকাতে নিয়মিত কলাম লেখেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

সুইডেন প্রবাসী রহমান মৃধার নতুন দুটি বই বাজারে

 মাফি ইসলাম, সুইডেন থেকে 
১০ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বখ্যাত আমেরিকান ওষুধ নির্মাণ শিল্প প্রতিষ্ঠান ফাইজারের প্রোডাকশন অ্যান্ড সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্টের সাবেক পরিচালক রহমান মৃধার নতুন দুটি বই বাজারে এসেছে। সুইডেন প্রবাসী রহমান মৃধার ‘আমার বাংলাদেশ’ ও ‘জাগো বাংলাদেশ’ বই দুটি এবারো বাংলাদেশে ফুটবল খেলোয়াড় তৈরির প্ল্যাটফর্ম ‘ফুটবলারস হান্ট একাডেমি’র জন্য উৎসর্গ করেছেন। 

তার বই দুটি ক্রয়ের মাধ্যমে যে টাকা আসবে সেটা তিনি এই একাডেমির উন্নয়নের জন্য দেবেন। এছাড়া যারা এ একাডেমির সদস্য হবেন তাদের বিনামূল্যে বই উপহার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। এর আগে ‘হৃদয়ে বাংলাদেশ’ নামে তার প্রকাশিত প্রথম বইটিও ফুটবল খেলোয়াড় তৈরির প্ল্যাটফর্মের জন্য উৎসর্গ করেছিলেন।

‘আমার বাংলাদেশ’ ও ‘জাগো বাংলাদেশ’ বই দুটি প্রকাশ করেছে প্রীতম প্রকাশ। প্রচ্ছদ এঁকেছেন নিয়াজ চৌধুরী তুলি।
 
তার লেখাগুলো বই হিসেবে প্রকাশ হওয়ার আগে দেশের শীর্ষ স্থানীয় জাতীয় দৈনিক প্রথম আলো, যুগান্তর, সমকাল, ইত্তেফাক, নয়া দিগন্ত, অধিকার, ডেল্টা টাইমস, দৈনিক শিক্ষা, অর্থ সংবাদ, ইনকিলাব, বাংলাদেশ জার্নাল, জাগো নিউজ, সময় নিউজসহ অনেক পত্রিকায় প্রিন্ট ও অনলাইন সংস্করণে প্রকাশ হয়েছে। সেগুলো একত্রিত করে প্রকাশ হয়েছে ‘আমার বাংলাদেশ’ ও ‘জাগো বাংলাদেশ’ বই দুটি। 

তার লেখায় বেশিরভাগ অংশজুড়ে ছিল বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে। এরপর সবচেয়ে বেশি আলোচনায় এসেছে লাল-সবুজের পতাকা ক্রিকেটের মতো করে ফুটবলেও বিশ্ব মাতাবে বাংলাদেশ। এজন্য কী করতে হবে সে বিষয়ে অভিজ্ঞতার আলোকে নানান পরামর্শ দিয়েছেন।

বইটিতে শুধু শিক্ষা বা খেলাধুলা বিষয়ে নয়; বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি থেকে শুরু করে করোনা মহামারি, গণতন্ত্র, দুর্নীতি, ভালোবাসা, প্রত্যাশা, বিদেশে বাংলাদেশের অবস্থান, দেশের সমসাময়িক ইস্যু সবই রয়েছে। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তার হৃদয়ে গেঁথে থাকা গল্পগুলোও জায়গা পেয়েছে বইটিতে। 
 
লেখক বাংলাদেশের গণমাধ্যম ছাড়াও সুইডেনের বিখ্যাত জাতীয় দৈনিক দগেন্স নিহেতার ও ইয়তেবরি পোস্ট পত্রিকাতে নিয়মিত কলাম লেখেন।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন