ইউরোপের সেরা সমুদ্র সৈকত পর্তুগালের আলগার্ভ
jugantor
ইউরোপের সেরা সমুদ্র সৈকত পর্তুগালের আলগার্ভ

  ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে  

২৪ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৮:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালের পর্যটন নগরী আলগার্ভ আবারো ইউরোপের প্রধান সেরা সমুদ্র সৈকত হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে। ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যাওয়ার্ড ২০২১ ইউরোপের সেরা পর্যটন সংস্থা হিসেবে নির্বাচিত হয়।

২২ অক্টোবর ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যাওয়ার্ড পর্যটন খাতে ২০২১ সালের ইউরোপের সেরা হিসেবে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করে। এটি ট্যুরিজমের অস্কার হিসেবে পরিচিত, বিশ্বে পর্যটন খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

পর্তুগালের রাষ্ট্রীয় পর্যটন সংস্থার ট্যুরিজমো ডে পর্তুগাল ইউরোপের সেরা রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থা এবং পর্তুগালের সাগরকন্যা আছোরেস দ্বীপ প্রধান অ্যাডভেঞ্চারমূলক ভ্রমণ গন্তব্য হিসেবে স্বীকৃত হয়েছে, পর্তুগালের ফুটবল তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর শহর মাদেইরা দ্বীপ প্রধান আকর্ষণীয় দ্বীপ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে।

পর্তুগালের পতাকাবাহী এয়ারলাইন্স টাপ এয়ার পর্তুগাল ইউরোপ থেকে দক্ষিণ আমেরিকা এবং আফ্রিকার সাথে সংযোগ স্থাপনের জন্য সেরা বিমান সংস্থা হিসেবে ভিন্ন দুটি পুরস্কার অর্জন করেছে।

রাজধানী লিসবন ইউরোপের প্রধান (ক্রুজ) প্রমোদ তরী বন্দর। তাছাড়া ইউরোপের সেরা ট্যুরিজম ডেভলপমেন্ট প্রজেক্ট হিসেবে অরোকা ন্যাশনাল পার্কের পন্ট পাছা দিসু পাইবা যা অরোকা ঝুলন্ত ব্রিজ হিসেবে পরিচিত।

এছাড়া ইউরোপের সেরা ডিজাইন হোটেল, লাইফ স্টাইল হোটেল, রিসোর্ট, ইকোপার্কসহ আরও ২৩টি ক্যাটাগরিতে ২০২১ সালের পর্তুগাল এ অস্কার পুরস্কার অর্জন করে।

ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যাওয়ার্ড ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে পর্যটন খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বিশ্বব্যাপী পর্যটন সংশ্লিষ্ট খাতে এ পুরস্কার প্রদান করে আসছে। গত ২০১৭ সাল থেকে নিরবচ্ছিন্নভাবে পর্তুগাল তাদের এ অর্জন ধরে রেখেছে; যা তাদের পর্যটন খাতকে প্রতিনিয়তই শক্তিশালী করছে।

এর ফলে পর্তুগালের অর্থনৈতিক উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে এখানে বসবাসকারী পর্যটন খাতে জড়িত আমাদের প্রবাসী বাংলাদেশি সবার ব্যবসায়িক ও কর্মজীবী হিসেবে অর্থনৈতিক সাফল্য ত্বরান্বিত হয়েছে। যদিও করোনা মহামারির কারণে কিছুটা ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে; তবে ব্যবসায়ীদের সাথে আলাপকালে তারা জানান, পর্যটন খাতে এই স্বীকৃতি স্বাভাবিক সময়ের মতো খুব শীঘ্রই পর্তুগাল পর্যটকদের পদচারণায় মুখরিত হবে এবং আমরা করোনা মহামারির ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারব।

ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে কিছুটা পার্থক্য থাকলেও পর্তুগালের চেয়ে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের বাংলাদেশে কোনো অংশে কম নয়- সরকার যদি খুব দ্রুত এ বিষয়ে পরিকল্পনা গ্রহণ করে তাহলে পর্যটন খাতে পর্তুগালের এ বিজয় বাংলাদেশ জন্য রোল মডেল কাজে লাগিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সেরা পর্যটন গন্তব্য হিসেবে স্থান লাভ করতে সক্ষম হতে পারে।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

ইউরোপের সেরা সমুদ্র সৈকত পর্তুগালের আলগার্ভ

 ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে 
২৪ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালের পর্যটন নগরী আলগার্ভ আবারো ইউরোপের প্রধান সেরা সমুদ্র সৈকত হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে। ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যাওয়ার্ড ২০২১ ইউরোপের সেরা পর্যটন সংস্থা হিসেবে নির্বাচিত হয়। 

২২ অক্টোবর ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যাওয়ার্ড পর্যটন খাতে ২০২১ সালের ইউরোপের সেরা হিসেবে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করে। এটি ট্যুরিজমের অস্কার হিসেবে পরিচিত, বিশ্বে পর্যটন খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

পর্তুগালের রাষ্ট্রীয় পর্যটন সংস্থার ট্যুরিজমো ডে পর্তুগাল ইউরোপের সেরা রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থা এবং পর্তুগালের সাগরকন্যা আছোরেস দ্বীপ প্রধান অ্যাডভেঞ্চারমূলক ভ্রমণ গন্তব্য হিসেবে স্বীকৃত হয়েছে, পর্তুগালের ফুটবল তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর শহর মাদেইরা দ্বীপ প্রধান আকর্ষণীয় দ্বীপ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে।

পর্তুগালের পতাকাবাহী এয়ারলাইন্স টাপ এয়ার পর্তুগাল  ইউরোপ থেকে দক্ষিণ আমেরিকা এবং আফ্রিকার সাথে সংযোগ স্থাপনের জন্য সেরা বিমান সংস্থা হিসেবে ভিন্ন দুটি পুরস্কার অর্জন করেছে।

রাজধানী লিসবন ইউরোপের প্রধান  (ক্রুজ) প্রমোদ তরী বন্দর। তাছাড়া ইউরোপের সেরা ট্যুরিজম ডেভলপমেন্ট প্রজেক্ট হিসেবে অরোকা ন্যাশনাল পার্কের পন্ট পাছা দিসু পাইবা যা অরোকা ঝুলন্ত ব্রিজ হিসেবে পরিচিত। 

এছাড়া ইউরোপের সেরা ডিজাইন হোটেল, লাইফ স্টাইল হোটেল, রিসোর্ট, ইকোপার্কসহ আরও ২৩টি ক্যাটাগরিতে ২০২১ সালের পর্তুগাল এ অস্কার পুরস্কার অর্জন করে। 

ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যাওয়ার্ড ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে পর্যটন খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বিশ্বব্যাপী পর্যটন সংশ্লিষ্ট খাতে এ পুরস্কার প্রদান করে আসছে। গত ২০১৭ সাল থেকে নিরবচ্ছিন্নভাবে পর্তুগাল তাদের এ অর্জন ধরে রেখেছে; যা তাদের পর্যটন খাতকে প্রতিনিয়তই শক্তিশালী করছে।

এর ফলে পর্তুগালের অর্থনৈতিক উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে এখানে বসবাসকারী পর্যটন খাতে জড়িত আমাদের প্রবাসী বাংলাদেশি সবার ব্যবসায়িক ও কর্মজীবী হিসেবে অর্থনৈতিক সাফল্য ত্বরান্বিত হয়েছে। যদিও করোনা মহামারির কারণে কিছুটা ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে; তবে ব্যবসায়ীদের সাথে আলাপকালে তারা জানান, পর্যটন খাতে এই স্বীকৃতি স্বাভাবিক সময়ের মতো খুব শীঘ্রই পর্তুগাল পর্যটকদের পদচারণায় মুখরিত হবে এবং আমরা করোনা মহামারির ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারব।

ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে কিছুটা পার্থক্য থাকলেও পর্তুগালের চেয়ে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের বাংলাদেশে কোনো অংশে কম নয়- সরকার যদি খুব দ্রুত এ বিষয়ে পরিকল্পনা গ্রহণ করে তাহলে পর্যটন খাতে পর্তুগালের এ বিজয় বাংলাদেশ জন্য রোল মডেল কাজে লাগিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সেরা পর্যটন গন্তব্য হিসেবে স্থান লাভ করতে সক্ষম হতে পারে।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন