নিউইয়র্কে বিকৃত বানান নিয়ে সংবাদ সম্মেলন উত্তপ্ত
jugantor
নিউইয়র্কে বিকৃত বানান নিয়ে সংবাদ সম্মেলন উত্তপ্ত

  কৌশলী ইমা, যুক্তরাষ্ট্র থেকে  

২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৮:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর ধর্মীয় মৌলবাদী ও উগ্রপন্থিদের সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের প্রতিবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পবিত্র 'কুরআন'-কে বিকৃত বানানে 'কুরান' লিখে বক্তব্য দেন। স্থানীয় সময় শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় নিউইয়র্কেরওম শক্তি মন্দিরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত এক সাংবাদিক 'কুরান' শব্দের বানান ভুল হয়েছে এমন একটি প্রশ্ন তোলেন।

বানান ভুলের জবাবে মুদ্রণজনিত কারণ দেখিয়ে ক্ষমা চান আয়োজক হিন্দু কমিউনিটির নেতারা। কিন্তু পরক্ষণেই আয়োজকবৃন্দের সাথে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন জনৈক ব্যক্তি। তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে আয়োজকসহ উক্ত সাংবাদিককে উদ্দেশ করে নানা ধরনের প্রশ্ন করলে উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

সম্প্রতি বাংলাদেশে শারদীয় দুর্গোৎসবে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর ধর্মীয় মৌলবাদী ও উগ্রপন্থিদের সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের প্রতিবাদে এ সম্মেলনের আয়োজন করে হিন্দু কমিউনিটি।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, সম্প্রতি সমাপ্ত সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা চলাকালে দেশের ছাব্বিশটি জেলায় সুপরিকল্পিতভাবে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর একটানা ছয় দিনব্যাপী বীভৎস সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। ১৯৭১ সালে, ১৯৯২ সালে, ২০০১ থেকে ২০০৫ সালে সারা দেশে, ২০১২-২০১৩ সালে রামুতে, এবং তৎপরবর্তীকালে নাসিরনগর, সাঁথিয়া, শাল্লা, মুরাদনগর প্রভৃতি স্থানে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের প্রতি বর্বরতার ভয়াবহ স্মৃতি স্মরণ করিয়ে দেয়।

বক্তারা বলেন, সংবাদ সম্মেলনের প্রধান উদ্দেশ্য হলো- এই অশুভ, মানবতাবিরোধী সাম্প্রদায়িক শক্তির মূলোৎপাটনে করতে দেশের সব সচেতন প্রগতিশীল নাগরিকদের ঐক্যবদ্ধ সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণের জন্য অহ্বান জানানো। এটা তো চলতে পারে না- এর অবসান হতেই হবে।

বানান ভুলের জবাবে হিন্দু কমিউনিটির পক্ষে শিতাংশু গুহ মুদ্রণজনিত কারণ দেখিয়ে এর জন্য ক্ষমা চান।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

নিউইয়র্কে বিকৃত বানান নিয়ে সংবাদ সম্মেলন উত্তপ্ত

 কৌশলী ইমা, যুক্তরাষ্ট্র থেকে 
২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর ধর্মীয় মৌলবাদী ও উগ্রপন্থিদের সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের প্রতিবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পবিত্র 'কুরআন'-কে বিকৃত বানানে 'কুরান' লিখে বক্তব্য দেন। স্থানীয় সময় শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের ওম শক্তি মন্দিরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত এক সাংবাদিক 'কুরান' শব্দের বানান ভুল হয়েছে এমন একটি প্রশ্ন তোলেন। 

বানান ভুলের জবাবে মুদ্রণজনিত কারণ দেখিয়ে ক্ষমা চান আয়োজক হিন্দু কমিউনিটির নেতারা। কিন্তু পরক্ষণেই আয়োজকবৃন্দের সাথে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন জনৈক ব্যক্তি। তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে আয়োজকসহ উক্ত সাংবাদিককে উদ্দেশ করে নানা ধরনের প্রশ্ন করলে উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

সম্প্রতি বাংলাদেশে শারদীয় দুর্গোৎসবে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর ধর্মীয় মৌলবাদী ও উগ্রপন্থিদের সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের প্রতিবাদে এ সম্মেলনের আয়োজন করে হিন্দু কমিউনিটি।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, সম্প্রতি সমাপ্ত সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা চলাকালে দেশের ছাব্বিশটি জেলায় সুপরিকল্পিতভাবে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর একটানা ছয় দিনব্যাপী বীভৎস সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। ১৯৭১ সালে, ১৯৯২ সালে, ২০০১ থেকে ২০০৫ সালে সারা দেশে, ২০১২-২০১৩ সালে রামুতে, এবং তৎপরবর্তীকালে নাসিরনগর, সাঁথিয়া, শাল্লা, মুরাদনগর প্রভৃতি স্থানে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের প্রতি বর্বরতার ভয়াবহ স্মৃতি স্মরণ করিয়ে দেয়।

বক্তারা বলেন, সংবাদ সম্মেলনের প্রধান উদ্দেশ্য হলো- এই অশুভ, মানবতাবিরোধী সাম্প্রদায়িক শক্তির মূলোৎপাটনে করতে দেশের সব সচেতন প্রগতিশীল নাগরিকদের ঐক্যবদ্ধ সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণের জন্য অহ্বান জানানো। এটা তো চলতে পারে না- এর অবসান হতেই হবে।
 
বানান ভুলের জবাবে হিন্দু কমিউনিটির পক্ষে শিতাংশু গুহ মুদ্রণজনিত কারণ দেখিয়ে এর জন্য ক্ষমা চান।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন