কেনিয়ায় শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী পালন
jugantor
কেনিয়ায় শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী পালন

  সায়েম আহমেদ, কেনিয়া থেকে  

৩১ অক্টোবর ২০২১, ০১:০১:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

উৎসবমুখর পরিবেশে দিনব্যাপী কর্মসূচির মাধ্যমে কেনিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শহীদ শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। সকালে মিশন চত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার সায়েম আহমেদ।

মিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীর উপস্থিতিতে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয় এবং দিবসটি উপলক্ষে প্রাপ্ত বাণী পাঠ করা হয়। এ সময়ে শহীদ শেখ রাসেল ও ১৫ আগস্ট শহিদদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

পরে সন্ধ্যায় মিশনে এক আলোচনা অনুষ্ঠান ও স্থানীয় বাংলাদেশি শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে শেখ রাসেল স্মৃতি বক্তৃতার আয়োজন করা হয়।

করোনা মহামারীর স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণে আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিক ও স্থানীয় ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করেন। উন্মুক্ত আলোচনায় বক্তারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শহিদ শেখ রাসেলের শুভ জন্মদিনে শেখ রাসেলের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান। শহিদ শেখ রাসেলের জন্মদিনের কেক কাটা ও নৈশভোজের আপ্যায়নের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

কেনিয়ায় শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী পালন

 সায়েম আহমেদ, কেনিয়া থেকে 
৩১ অক্টোবর ২০২১, ০১:০১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

উৎসবমুখর পরিবেশে দিনব্যাপী কর্মসূচির মাধ্যমে কেনিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শহীদ শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। সকালে মিশন চত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার সায়েম আহমেদ। 

মিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীর উপস্থিতিতে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয় এবং দিবসটি উপলক্ষে প্রাপ্ত বাণী পাঠ করা হয়। এ সময়ে শহীদ শেখ রাসেল ও ১৫ আগস্ট শহিদদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়। 

পরে সন্ধ্যায় মিশনে এক আলোচনা অনুষ্ঠান ও স্থানীয় বাংলাদেশি শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে শেখ রাসেল স্মৃতি বক্তৃতার আয়োজন করা হয়।

করোনা মহামারীর স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণে আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিক ও স্থানীয় ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করেন। উন্মুক্ত আলোচনায় বক্তারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শহিদ শেখ রাসেলের শুভ জন্মদিনে শেখ রাসেলের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান। শহিদ শেখ রাসেলের জন্মদিনের কেক কাটা ও নৈশভোজের আপ্যায়নের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন