ফ্রান্সে বৌদ্ধবিহারে কঠিন চীবর দান
jugantor
ফ্রান্সে বৌদ্ধবিহারে কঠিন চীবর দান

  অনুপম বড়ুয়া টিপু, প্যারিস (ফ্রান্স) থেকে  

১৭ নভেম্বর ২০২১, ০২:৪৬:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ফ্রান্সের বাংলাদেশি বৌদ্ধবিহারে বৌদ্ধদের অন্যতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রোববার (১৪ নভেম্বর) প্যারিসের অদূরে সেন্ট ডেনিশের সাল লে নক্টিস মিলনায়তনে দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করে স্থা বুদ্ধগয়া প্রজ্ঞাবিহার ধ্যান কেন্দ্র।

রাজধানী প্যারিস ও এর আশপাশ শহরে বসবাসরত বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা উৎসাহ–উদ্দীপনা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে তাদের অন্যতম এ ধর্মীয় উৎসব পালন করেন।

দানোত্তম কঠিন চীবর দান উপলক্ষে ভোর থেকে শুরু হওয়া এ অনুষ্ঠানে শীলগ্রহণ, বুদ্ধপূজা, সংঘ দান, অষ্টপরিষ্কার দান, কল্পতরু দান, ধর্মীয় শোভাযাত্রা, সবশেষ বহু আকাঙ্ক্ষিত কঠিন চীবর দানসহ নানা আয়োজনে সমৃদ্ধ ছিল। সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপনী হয়। নারী-পুরুষ ও শিশুদের উপচেপড়া ভিড়ে বিভিন্ন দেশের পুণ্যার্থী বৌদ্ধদের সমাগমে এক অভূতপূর্ব মিলন মেলায় পরিণত হয়।

সকালে অষ্টপরিষ্কার সহ সংঘদান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফ্রান্সের ধর্মচাক্কা বিহারের অধ্যক্ষ কে আনন্দ নায়ক থের। দেশনা করেন কুশলায়ন বুড্ডিস্ট মেডিটেশন সেন্টারের মহাপরিচালক ভদন্ত ভদন্ত জ্যোতিসার থের, ইউরোপিয়ান বুড্ডিস্ট সেন্টারের অধ্যক্ষ ভদন্ত চন্দ্রজ্যোতি থের প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন সুমন বড়ুয়া। পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন দিপ্তী বড়ুয়া।

বিকালে শুভ কঠিন চীবর দান সভা বুদ্ধগয়া প্রজ্ঞাবিহারের পরিচালক ভদন্ত কল্যাণ রত্ন ভিক্ষুর উদ্বোধনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া দানসভায় ক্যালিফোর্নিয়ার সম্বোধি বিহারের অধ্যক্ষ ও বৌদ্ধ গবেষক ড. লোকানন্দ মহাথের সভাপতিত্ব করেন। প্রধান অতিথি ছিলেন ভদন্ত ড. নাগসেন স্থবির। আশীর্বাদক হিসেবে ভিডিও বার্তা প্রদান করেন ভদন্ত প্রজ্ঞাবংশ মহাথের। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভদন্ত বিজয়ানন্দ থের।

প্রধান ধর্মদেশক ছিলেন নিউইয়র্ক বাংলাদেশ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত মুদিতারত্ন থের। অন্যদের মধ্যে ভদন্ত উ কুমারা থের, ভদন্ত জ্যোতিসার থের, ভদন্ত চন্দ্রজ্যোতি থের প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মঙ্গলাচরণ করেন ভদন্ত আনন্দ ভিক্ষু।

পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন উত্তম বড়ুয়া। স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্বপন বড়ুয়া। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন কানন বড়ুয়া। উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করেন শর্মী মুৎসুদ্দি, ডালিয়া বড়ুয়া, সুনেত্রা বড়ুয়া, অদিতি বড়ুয়া, বর্ষা বড়ুয়া, মিনতি বড়ুয়া, জুলিয়া বড়ুয়া ও পূজা বড়ুয়া, সাকুরা বড়ুয়া, জুলি বড়ুয়া , শ্রেয়া বড়ুয়া, সারা বড়ুয়া, দীপান্বিতা বড়ুয়া, অদিতি বড়ুয়া, ইস্তিলা বড়ুয়া, অন্তিকা বড়ুয়া, অর্চনা বড়ুয়া, জয়ন্ত বড়ুয়া, ঝিনু বড়ুয়া, অনন্যা বড়ুয়া। তবলায় সঙ্গত করেন শাপলু চৌধুরী বড়ুয়া। কি-বোর্ডে ছিলেন সাগর বড়ুয়া। সংগীত পরিচালনায় শাপলু চৌধুরী বড়ুয়া ও সঞ্জয় বড়ুয়া। অক্টোপ্যাডে রবিন চৌধুরী বড়ুয়া।

প্রবাসে অবস্থান ও নানা প্রতিকূলতা সত্ত্বেও বৌদ্ধদের দানশ্রেষ্ঠ এ কঠিন চীবর দান পুণ্যোৎসবে অংশগ্রহণ করে পেরে পুণ্যার্থী উপাসক-উপাসিকাদের মহামিলনের আশাজাগানিয়া আনন্দের স্ফুরণ ছিল দেখার মতো। পূজনীয় ভিক্ষুসংঘরাও কঠিন চীবর দানের পুণ্যবার্তায় সবার প্রতি মৈত্রী-করুণা চিত্তে আশীর্বাদ-পুণ্যদান করেন। পাশাপাশি নিরবচ্ছিন্ন নানা অবক্ষয় ও অস্থির পৃথিবীতে শান্তির সুবাতাস প্রবাহিত হোক— এ শুভ কামনায় বিশ্বশান্তি প্রার্থনা করেন। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। এতে প্যারিসের স্থানীয় শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

ফ্রান্সে বৌদ্ধবিহারে কঠিন চীবর দান

 অনুপম বড়ুয়া টিপু, প্যারিস (ফ্রান্স) থেকে 
১৭ নভেম্বর ২০২১, ০২:৪৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফ্রান্সের বাংলাদেশি বৌদ্ধবিহারে বৌদ্ধদের অন্যতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রোববার (১৪ নভেম্বর) প্যারিসের অদূরে সেন্ট ডেনিশের সাল লে নক্টিস মিলনায়তনে দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করে স্থা বুদ্ধগয়া প্রজ্ঞাবিহার ধ্যান কেন্দ্র।

রাজধানী প্যারিস ও এর আশপাশ শহরে বসবাসরত বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা উৎসাহ–উদ্দীপনা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে তাদের অন্যতম এ ধর্মীয় উৎসব পালন করেন।

দানোত্তম কঠিন চীবর দান উপলক্ষে ভোর থেকে শুরু হওয়া এ অনুষ্ঠানে শীলগ্রহণ, বুদ্ধপূজা, সংঘ দান, অষ্টপরিষ্কার দান, কল্পতরু দান, ধর্মীয় শোভাযাত্রা, সবশেষ বহু আকাঙ্ক্ষিত কঠিন চীবর দানসহ নানা আয়োজনে সমৃদ্ধ ছিল। সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপনী হয়। নারী-পুরুষ ও শিশুদের উপচেপড়া ভিড়ে বিভিন্ন দেশের পুণ্যার্থী বৌদ্ধদের সমাগমে এক অভূতপূর্ব মিলন মেলায় পরিণত হয়।

সকালে অষ্টপরিষ্কার সহ সংঘদান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফ্রান্সের ধর্মচাক্কা বিহারের অধ্যক্ষ কে আনন্দ নায়ক থের। দেশনা করেন কুশলায়ন বুড্ডিস্ট মেডিটেশন সেন্টারের মহাপরিচালক  ভদন্ত ভদন্ত জ্যোতিসার থের, ইউরোপিয়ান বুড্ডিস্ট সেন্টারের অধ্যক্ষ ভদন্ত চন্দ্রজ্যোতি থের প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন সুমন বড়ুয়া। পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন দিপ্তী বড়ুয়া।

বিকালে শুভ কঠিন চীবর দান সভা বুদ্ধগয়া প্রজ্ঞাবিহারের পরিচালক ভদন্ত কল্যাণ রত্ন ভিক্ষুর উদ্বোধনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া দানসভায় ক্যালিফোর্নিয়ার সম্বোধি বিহারের অধ্যক্ষ ও বৌদ্ধ গবেষক ড. লোকানন্দ মহাথের সভাপতিত্ব করেন। প্রধান অতিথি ছিলেন ভদন্ত ড. নাগসেন স্থবির। আশীর্বাদক হিসেবে ভিডিও বার্তা প্রদান করেন ভদন্ত প্রজ্ঞাবংশ মহাথের। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভদন্ত বিজয়ানন্দ থের। 

প্রধান ধর্মদেশক ছিলেন নিউইয়র্ক বাংলাদেশ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত মুদিতারত্ন থের। অন্যদের মধ্যে ভদন্ত উ কুমারা থের,  ভদন্ত জ্যোতিসার থের,   ভদন্ত চন্দ্রজ্যোতি থের প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মঙ্গলাচরণ করেন ভদন্ত আনন্দ ভিক্ষু। 

পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন উত্তম বড়ুয়া। স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্বপন বড়ুয়া। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন কানন বড়ুয়া। উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করেন শর্মী মুৎসুদ্দি, ডালিয়া বড়ুয়া, সুনেত্রা বড়ুয়া, অদিতি বড়ুয়া, বর্ষা বড়ুয়া, মিনতি বড়ুয়া, জুলিয়া বড়ুয়া ও পূজা বড়ুয়া, সাকুরা বড়ুয়া, জুলি বড়ুয়া , শ্রেয়া বড়ুয়া, সারা বড়ুয়া, দীপান্বিতা বড়ুয়া, অদিতি বড়ুয়া, ইস্তিলা বড়ুয়া, অন্তিকা বড়ুয়া, অর্চনা বড়ুয়া, জয়ন্ত বড়ুয়া, ঝিনু বড়ুয়া, অনন্যা বড়ুয়া। তবলায় সঙ্গত করেন শাপলু চৌধুরী বড়ুয়া। কি-বোর্ডে ছিলেন সাগর বড়ুয়া। সংগীত পরিচালনায় শাপলু চৌধুরী বড়ুয়া ও সঞ্জয় বড়ুয়া। অক্টোপ্যাডে রবিন চৌধুরী বড়ুয়া। 

প্রবাসে অবস্থান ও নানা প্রতিকূলতা সত্ত্বেও বৌদ্ধদের দানশ্রেষ্ঠ এ কঠিন চীবর দান পুণ্যোৎসবে অংশগ্রহণ করে পেরে পুণ্যার্থী উপাসক-উপাসিকাদের মহামিলনের আশাজাগানিয়া আনন্দের স্ফুরণ ছিল দেখার মতো। পূজনীয় ভিক্ষুসংঘরাও কঠিন চীবর দানের পুণ্যবার্তায় সবার প্রতি মৈত্রী-করুণা চিত্তে আশীর্বাদ-পুণ্যদান করেন। পাশাপাশি নিরবচ্ছিন্ন নানা অবক্ষয় ও অস্থির পৃথিবীতে শান্তির সুবাতাস প্রবাহিত হোক— এ শুভ কামনায় বিশ্বশান্তি প্রার্থনা করেন। পরে  সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। এতে প্যারিসের স্থানীয় শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করেন।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন