আমিরাতে শ্রমিকদের জন্য নতুন আইন
jugantor
আমিরাতে শ্রমিকদের জন্য নতুন আইন

  ওবায়দুল হক মানিক, আমিরাত থেকে  

১৯ নভেম্বর ২০২১, ০২:১১:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

সংযুক্ত আরব আমিরাত শ্রমবাজার ও উৎপাদনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে শ্রমিকবান্ধব নতুন শ্রম আইন পাস করেছে (ইউএই)। সুবিধাজনক কর্মঘণ্টা, বেতনসহ ছুটি ও তিন বছরের চুক্তির সুযোগ রাখা হয়েছে নতুন শ্রম আইনে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট শেখ খালিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান এ সংক্রান্ত বিলে স্বাক্ষর করায় সোমবার (১৫ নভেম্বর) থেকেই তা আইনে পরিণত হয়েছে। আগামী বছর ২০২২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে নতুন আইন।

প্রতিবেদন অনুযায়ী এখন থেকে কোনো পদে কোনো ব্যক্তিকে নিয়োগ দিতে হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে ওই ব্যক্তির সঙ্গে কমপক্ষে তিন বছরের জন্য চুক্তি করতে হবে এবং ন্যূনতম ১৬ বছর বয়স হওয়ার আগ পর্যন্ত কাউকে প্রতিষ্ঠানের কোনো পদে নিয়োগ দেওয়া যাবে না।

এছাড়া ১৬ থেকে ১৯ বছর বয়সী তরুণ-তরুণীদের কোনো প্রতিষ্ঠানের কোনো পদে নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে কিছু বিশেষ শর্ত পালনের বিধানও রাখা হয়েছে নতুন আইনে। সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে ইউএইর মানবসম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী ড. আব্দুর রহমান আল আওয়ার এক ব্রিফিংয়ে বলেন, প্রধানত দুটি কারণে এ নতুন আইন প্রণয়ন করা হয়েছে।

প্রথমত, প্রযুক্তিগত উৎকর্ষের ফলে বিশ্বজুড়ে ‘কর্মস্থল’ ধারণার পরিবর্তন এসেছে। উন্নত প্রযুক্তির ফলে বর্তমানে বিশ্বের একপ্রান্তে বসেও অন্যপ্রান্তে অফিস করতে পারেন একজন কর্মী এবং দ্বিতীয় কারণ হলো করোনা মহামারি।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

আমিরাতে শ্রমিকদের জন্য নতুন আইন

 ওবায়দুল হক মানিক, আমিরাত থেকে 
১৯ নভেম্বর ২০২১, ০২:১১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সংযুক্ত আরব আমিরাত শ্রমবাজার ও উৎপাদনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে শ্রমিকবান্ধব নতুন শ্রম আইন পাস করেছে (ইউএই)। সুবিধাজনক কর্মঘণ্টা, বেতনসহ ছুটি ও তিন বছরের চুক্তির সুযোগ রাখা হয়েছে নতুন শ্রম আইনে। 

দেশটির প্রেসিডেন্ট শেখ খালিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান এ সংক্রান্ত বিলে স্বাক্ষর করায় সোমবার (১৫ নভেম্বর) থেকেই তা আইনে পরিণত হয়েছে। আগামী বছর ২০২২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে নতুন আইন।
 
প্রতিবেদন অনুযায়ী এখন থেকে কোনো পদে কোনো ব্যক্তিকে নিয়োগ দিতে হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে ওই ব্যক্তির সঙ্গে কমপক্ষে তিন বছরের জন্য চুক্তি করতে হবে এবং ন্যূনতম ১৬ বছর বয়স হওয়ার আগ পর্যন্ত কাউকে প্রতিষ্ঠানের কোনো পদে নিয়োগ দেওয়া যাবে না।

এছাড়া ১৬ থেকে ১৯ বছর বয়সী তরুণ-তরুণীদের কোনো প্রতিষ্ঠানের কোনো পদে নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে কিছু বিশেষ শর্ত পালনের বিধানও রাখা হয়েছে নতুন আইনে। সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে ইউএইর মানবসম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী ড. আব্দুর রহমান আল আওয়ার এক ব্রিফিংয়ে বলেন, প্রধানত দুটি কারণে এ নতুন আইন প্রণয়ন করা হয়েছে। 

প্রথমত, প্রযুক্তিগত উৎকর্ষের ফলে বিশ্বজুড়ে ‘কর্মস্থল’ ধারণার পরিবর্তন এসেছে। উন্নত প্রযুক্তির ফলে বর্তমানে বিশ্বের একপ্রান্তে বসেও অন্যপ্রান্তে অফিস করতে পারেন একজন কর্মী এবং দ্বিতীয় কারণ হলো করোনা মহামারি।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন