২ কোটির বেশি করোনা টিকা দিয়েছে পর্তুগাল
jugantor
২ কোটির বেশি করোনা টিকা দিয়েছে পর্তুগাল

  ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে  

১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:৩৮:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালে ২০২০ সালের ২৭ ডিসেম্বর করোনা টিকা কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকে গত ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ২ কোটির বেশি করোনা টিকা কার্যকর করা হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তাদের ওয়েবসাইটে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এরই মধ্যে পূর্ণ দুইটি ডোজ কার্যকর করে পরবর্তীতে এরই মধ্যে ৫০ বছরের ঊর্ধ্বে প্রায় ৩৮ লাখেরও বেশি নাগরিকদের বুস্টার ডোজ প্রদান করা হয়েছে।

অপরদিকে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত দেশটির মোট জনসংখ্যার ৮৫ শতাংশের বেশি নাগরিক কভিভ-১৯ থেকে সুরক্ষার জন্য পূর্ণ ডোজ ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। তবে শিশুদেরকে প্রদানকৃত প্রথম ডোজ গণনা করা হলে তা প্রায় ৯০ শতাংশের কাছাকাছি হবে।

উচ্চ সংক্রমণের কারণে পর্তুগালের করোনা টাস্কফোর্স তাদের পরিকল্পনা পরিবর্তন এনেছে। ইতিমধ্যে ৪০ বা তার বেশি বয়সী নাগরিকদের জন্য বুস্টার ডোজ প্রদান করা শুরু করেছে। কেননা খুব দ্রুতই বয়সভিত্তিক গ্রুপ পরিবর্তন করা হয়েছে, অধিক সংখ্যক সংক্রমিত হওয়ার কারণে নিদৃষ্ট বয়সের ব্যক্তিগণ বুস্টার ডোজ গ্রহণ করতে পারছেন না। বর্তমানে ৩০ জানুয়ারির আগাম মধ্যবর্তী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার দিয়ে অর্থাৎ যে সকল ব্যক্তি ভোট গ্রহণ এবং নির্বাচনী কাজে যুক্ত থাকবেন তাদের নির্দিষ্ট অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছাড়াই বুস্টার ডোজ প্রদান করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, পর্তুগালের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুযায়ী এ পর্যন্ত ১৯ লাখ ৬ হাজার ৮৯১ জন নাগরিক সংক্রমিত হয়েছেন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১৯ হাজার ৩৩৪ জন। বর্তমানে দেশটিতে ৩ লাখ ৩১ হাজার ১৫৮ জন নাগরিক করোনা আক্রান্ত অবস্থায় আছেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

২ কোটির বেশি করোনা টিকা দিয়েছে পর্তুগাল

 ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে 
১৮ জানুয়ারি ২০২২, ০৬:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগালে ২০২০ সালের ২৭ ডিসেম্বর করোনা টিকা কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকে গত ১৫ জানুয়ারি  পর্যন্ত  ২ কোটির বেশি করোনা  টিকা কার্যকর করা হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তাদের ওয়েবসাইটে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এরই মধ্যে পূর্ণ দুইটি ডোজ কার্যকর করে পরবর্তীতে এরই মধ্যে ৫০ বছরের ঊর্ধ্বে প্রায় ৩৮ লাখেরও বেশি নাগরিকদের বুস্টার ডোজ প্রদান করা হয়েছে।

অপরদিকে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত দেশটির মোট জনসংখ্যার ৮৫ শতাংশের বেশি নাগরিক কভিভ-১৯ থেকে সুরক্ষার জন্য পূর্ণ ডোজ ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। তবে শিশুদেরকে প্রদানকৃত প্রথম ডোজ গণনা করা হলে তা প্রায় ৯০ শতাংশের কাছাকাছি হবে।

উচ্চ সংক্রমণের কারণে পর্তুগালের করোনা টাস্কফোর্স তাদের পরিকল্পনা পরিবর্তন এনেছে। ইতিমধ্যে ৪০ বা তার বেশি বয়সী নাগরিকদের জন্য বুস্টার ডোজ প্রদান করা শুরু করেছে। কেননা খুব দ্রুতই বয়সভিত্তিক গ্রুপ পরিবর্তন করা হয়েছে, অধিক সংখ্যক সংক্রমিত হওয়ার কারণে নিদৃষ্ট বয়সের ব্যক্তিগণ  বুস্টার ডোজ গ্রহণ করতে পারছেন না। বর্তমানে ৩০ জানুয়ারির আগাম মধ্যবর্তী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার দিয়ে অর্থাৎ যে সকল ব্যক্তি ভোট গ্রহণ এবং নির্বাচনী কাজে যুক্ত থাকবেন তাদের নির্দিষ্ট অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছাড়াই বুস্টার ডোজ প্রদান করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, পর্তুগালের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুযায়ী এ পর্যন্ত ১৯ লাখ ৬ হাজার ৮৯১ জন নাগরিক সংক্রমিত হয়েছেন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১৯ হাজার ৩৩৪ জন। বর্তমানে দেশটিতে ৩ লাখ ৩১ হাজার ১৫৮ জন নাগরিক করোনা আক্রান্ত অবস্থায় আছেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর