দুবাই এক্সপোতে বিশ্বের সর্ববৃহৎ পবিত্র কুরআন শরীফ
jugantor
দুবাই এক্সপোতে বিশ্বের সর্ববৃহৎ পবিত্র কুরআন শরীফ

  ওবায়দুল হক মানিক, আমিরাত থেকে  

২৩ জানুয়ারি ২০২২, ২১:৫৯:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক রাজধানী দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত এক্সপোতে প্রদর্শন করা হবে স্বর্ণে লেখা বিশ্বের সর্ববৃহৎ পবিত্র কুরআন শরীফ। সোমবার (২৪ জানুয়ারি) এক্সপোর পাকিস্তানি প্যাভিলিয়নে দুবাইয়ে বসবাসরত পাকিস্তানি শিল্পী ও পাণ্ডুলিপির অন্যতম প্রস্তুতকারী শাহিদ রাসসাম এটি প্রদর্শন করবেন।

এক্সপোতে পাণ্ডুলিপির সুরা আর রহমানের অংশ প্রদর্শন করা হবে। পাণ্ডুলিপিটি দৈর্ঘ্যে ৮ দশমিক ৫ ফুট ও প্রস্থে ৬ দশমিক ৫ ফুট। ১৪শ বছরের ইতিহাসে তিনিই সর্বপ্রথম অ্যালুমিনিয়াম ও স্বর্ণের ব্যবহারে এত বড় করে কুরআন লিখলেন।

শাহিদ রাসসাম এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, কুরআনের এ প্রদর্শনী শুধু বিশ্বের বড় আয়োজনই নয়। বরং এটি একটি অনন্য প্রদর্শনী হতে যাচ্ছে, কেননা কালির বদলে স্বর্ণ দিয়ে এটি লেখা হয়েছে।

তিনি জানান, ১ হাজার ৫৮৫টি অক্ষর, ৩৫২ শব্দ, ৭৮ আয়াত এবং তিন রুকু বিশিষ্ট সুরা আর রহমানকে ক্যানভাসের ওপর স্বর্ণ ও অ্যালুমিনিয়াম দিয়ে লেখা হয়েছে। শুধু সুরা আর রহমানেই ১৫ কেজি অ্যালুমিনিয়াম ও এক কেজি স্বর্ণ ব্যবহার করা হয়েছে। সম্পূর্ণ কুরআন লেখায় শিল্পী, চিত্রকর, ক্যালিওগ্রাফার ও ডিজাইনার মিলিয়ে মোট ২০০ জন চার মাস ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

দুবাই এক্সপোতে বিশ্বের সর্ববৃহৎ পবিত্র কুরআন শরীফ

 ওবায়দুল হক মানিক, আমিরাত থেকে 
২৩ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক রাজধানী দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত এক্সপোতে প্রদর্শন করা হবে স্বর্ণে লেখা বিশ্বের সর্ববৃহৎ পবিত্র কুরআন শরীফ। সোমবার (২৪ জানুয়ারি) এক্সপোর পাকিস্তানি প্যাভিলিয়নে দুবাইয়ে বসবাসরত পাকিস্তানি শিল্পী ও পাণ্ডুলিপির অন্যতম প্রস্তুতকারী শাহিদ রাসসাম এটি প্রদর্শন করবেন।

এক্সপোতে পাণ্ডুলিপির সুরা আর রহমানের অংশ প্রদর্শন করা হবে। পাণ্ডুলিপিটি দৈর্ঘ্যে ৮ দশমিক ৫ ফুট ও প্রস্থে ৬ দশমিক ৫ ফুট। ১৪শ বছরের ইতিহাসে তিনিই সর্বপ্রথম অ্যালুমিনিয়াম ও স্বর্ণের ব্যবহারে এত বড় করে কুরআন লিখলেন।

শাহিদ রাসসাম এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, কুরআনের এ প্রদর্শনী শুধু বিশ্বের বড় আয়োজনই নয়। বরং এটি একটি অনন্য প্রদর্শনী হতে যাচ্ছে, কেননা কালির বদলে স্বর্ণ দিয়ে এটি লেখা হয়েছে।

তিনি জানান, ১ হাজার ৫৮৫টি অক্ষর, ৩৫২ শব্দ, ৭৮ আয়াত এবং তিন রুকু বিশিষ্ট সুরা আর রহমানকে ক্যানভাসের ওপর স্বর্ণ ও অ্যালুমিনিয়াম দিয়ে লেখা হয়েছে। শুধু সুরা আর রহমানেই ১৫ কেজি অ্যালুমিনিয়াম ও এক কেজি স্বর্ণ ব্যবহার করা হয়েছে। সম্পূর্ণ কুরআন লেখায় শিল্পী, চিত্রকর, ক্যালিওগ্রাফার ও ডিজাইনার মিলিয়ে মোট ২০০ জন চার মাস ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর