কাতারে বৈধ হওয়ার আবেদনের সময় বৃদ্ধি
jugantor
কাতারে বৈধ হওয়ার আবেদনের সময় বৃদ্ধি

  কাজী শামীম, কাতার থেকে  

২৭ জানুয়ারি ২০২২, ২০:৫৭:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

কাতারে অবৈধ হয়ে পড়া প্রবাসীদের বৈধ হতে ৭ অক্টোবর বিভিন্ন নির্দেশনা দিয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছিল দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। প্রবাসীদের বৈধ হওয়ার এমন সুযোগ ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন গ্রহণের শেষ সময় হওয়ায় অনেকে এখনো আবেদন করতে পারেন নাই। তাই বৈধ হওয়ার এমন সোনালি সুযোগের সময়সীমা বৃদ্ধি করে ৩১ মার্চ পর্যন্ত উত্তীর্ণ করেছে দেশটির সরকার।

কাতারে প্রায় চার লাখের অধিক প্রবাসী বাংলাদেশির বসবাস। এছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের বসবাস কাতারে। অক্টোবর মাসে কাতার সরকারের অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতা প্রদানের ঘোষণায় আনন্দিত ছিল প্রবাসীরা। কিন্তু অধিকাংশ প্রবাসী নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বৈধতার আবেদনের জন্য কাগজপত্র প্রস্তুত করতে না পারায় পিছিয়ে পড়েন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, একজন কর্মীকে নিয়োগকর্তা থেকে অন্য নিয়োগকর্তার নিকট স্থানান্তরিত হতে সকল প্রকার আইনি সহয়তা প্রদানসহ পূর্বের দণ্ডিত বিভিন্ন মেয়াদের জরিমানা ৫০% কমিয়ে আনা হবে।

সম্মেলনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন কামাল তাহির আল-তাইরি বলেন, এই অতিরিক্ত সময়সীমা অবৈধ অভিবাসীদের জন্য এক সোনালি সুযোগ। এছাড়াও তিনি আরও বলেন, অনেকের কাতারের আইডির (ভিসা) মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ার কারণে অবৈধ হয়ে আছেন (রেসিডেন্সি আইন লঙ্ঘন) এবং যারা অন্যান্য ভিসায় এসে আর আইডি না করে অবৈধ হয়ে আছেন (বা অন্য যে কোনো ওয়ার্ক ভিসা আইন লঙ্ঘন), যারা ফ্যামিলি ভিসায় এসে মেয়াদ শেষে অবৈধ হয়ে আছেন, সবাইকে কাতার পুলিশের তদন্ত ও অনুসন্ধান অফিসের সেবাকেন্দ্রে নির্ধিদায় পুনরায় যোগাযোগ করার আহ্বান জানানো হচ্ছে।

দীর্ঘদিন পর এমন সুযোগের খবরে স্বস্তি নেমে এসেছে কাতার প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে। এছাড়া অতিরিক্ত সময়সীমা বৃদ্ধি করায় প্রবাসীরা আবেদন করার সুযোগ পাবেন। তবে এ মুহূর্তে কতজন বাংলাদেশি প্রবাসী কাতারে অবৈধভাবে বসবাস করছেন, এর সঠিক তথ্য জানা যায়নি।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

কাতারে বৈধ হওয়ার আবেদনের সময় বৃদ্ধি

 কাজী শামীম, কাতার থেকে 
২৭ জানুয়ারি ২০২২, ০৮:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কাতারে অবৈধ হয়ে পড়া প্রবাসীদের বৈধ হতে ৭ অক্টোবর বিভিন্ন নির্দেশনা দিয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছিল দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। প্রবাসীদের বৈধ হওয়ার এমন সুযোগ ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন গ্রহণের শেষ সময় হওয়ায় অনেকে এখনো আবেদন করতে পারেন নাই। তাই বৈধ হওয়ার এমন সোনালি সুযোগের সময়সীমা বৃদ্ধি করে ৩১ মার্চ পর্যন্ত উত্তীর্ণ করেছে দেশটির সরকার।

কাতারে প্রায় চার লাখের অধিক প্রবাসী বাংলাদেশির বসবাস। এছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের বসবাস কাতারে। অক্টোবর মাসে কাতার সরকারের অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতা প্রদানের ঘোষণায় আনন্দিত ছিল প্রবাসীরা। কিন্তু অধিকাংশ প্রবাসী নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বৈধতার আবেদনের জন্য কাগজপত্র প্রস্তুত করতে না পারায় পিছিয়ে পড়েন। 

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, একজন কর্মীকে নিয়োগকর্তা থেকে অন্য নিয়োগকর্তার নিকট স্থানান্তরিত হতে সকল প্রকার আইনি সহয়তা প্রদানসহ পূর্বের দণ্ডিত বিভিন্ন মেয়াদের জরিমানা ৫০% কমিয়ে আনা হবে।

সম্মেলনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন কামাল তাহির আল-তাইরি বলেন, এই অতিরিক্ত সময়সীমা অবৈধ অভিবাসীদের জন্য এক সোনালি সুযোগ। এছাড়াও তিনি আরও বলেন, অনেকের কাতারের আইডির (ভিসা) মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ার কারণে অবৈধ হয়ে আছেন (রেসিডেন্সি আইন লঙ্ঘন) এবং যারা অন্যান্য ভিসায় এসে আর আইডি না করে অবৈধ হয়ে আছেন (বা অন্য যে কোনো ওয়ার্ক ভিসা আইন লঙ্ঘন), যারা ফ্যামিলি ভিসায় এসে মেয়াদ শেষে অবৈধ হয়ে আছেন, সবাইকে কাতার পুলিশের তদন্ত ও অনুসন্ধান অফিসের সেবাকেন্দ্রে নির্ধিদায় পুনরায় যোগাযোগ করার আহ্বান জানানো হচ্ছে।

দীর্ঘদিন পর এমন সুযোগের খবরে স্বস্তি নেমে এসেছে কাতার প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে। এছাড়া অতিরিক্ত সময়সীমা বৃদ্ধি করায় প্রবাসীরা আবেদন করার সুযোগ পাবেন। তবে এ মুহূর্তে কতজন বাংলাদেশি প্রবাসী কাতারে অবৈধভাবে বসবাস করছেন, এর সঠিক তথ্য জানা যায়নি।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন