মালদ্বীপে হাইকমিশনার অফিসে পাসপোর্ট করতে পুলিশ ভেরিফিকেশন লাগবে না
jugantor
মালদ্বীপে হাইকমিশনার অফিসে পাসপোর্ট করতে পুলিশ ভেরিফিকেশন লাগবে না

  মোহাম্মদ মাহামুদুল, মালদ্বীপ থেকে  

২৮ মে ২০২২, ০১:০৮:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

২৬ মে বৃহস্পতিবার থেকে মালদ্বীপে বাংলাদেশ হাইকমিশন পুলিশ ভেরিফিকেশন ছাড়াই পাসপোর্ট জমা নিচ্ছে। পুলিশ ভেরিফিকেশনের জন্য হাজার হাজার বাংলাদেশি পাসপোর্ট বানাতে পারেনি। যাতে অতি সহজে পাসপোর্ট বানানো যায় এ ব্যাপারে মালদ্বীপে অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন অনেক প্রবাসী।

এ বিষয়ে গত ১৬ এপ্রিল বাংলাদেশের প্রিন্ট মিডিয়া যুগান্তরের প্রবাস পাতায় একটি রিপোর্ট করা হয়। ২৬ মে বৃহস্পতিবার থেকে মালদ্বীপে বাংলাদেশ হাইকমিশন পুলিশ ভেরিফিকেশন ছাড়াই পাসপোর্ট জমা নিচ্ছে।

বাংলাদেশের অনুরোধে প্রায় ৫০ হাজার বাংলাদেশি এ সুযোগ পাবেন। সুযোগটি নেওয়ার জন্য আন-ডকুমেন্টেড বাংলাদেশিদের অনুরোধ করেছে মালের বাংলাদেশ হাইকমিশন ।

শনিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ অনুরোধ জানায় দূতাবাস। এতে বলা হয়- মালদ্বীপে বসবাসরত আন-ডকুমেন্টেড প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে, ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট মিনিস্ট্রির আওতায় বৈধকরণ প্রক্রিয়া বর্তমানে চালু রয়েছে। যাদের বৈধ ভিসা ও ওয়ার্ক পারমিট নাই তাদের দ্রুত ভিসা/ওয়ার্ক পারমিট সংগ্রহ করে মালদ্বীপে বৈধভাবে কাজ করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে। বৈধকরণ প্রক্রিয়ার সুযোগে যদি কেউ বৈধ ভিসা বা ওয়ার্ক পারমিট সংগ্রহ না করেন, তবে তার বিরুদ্ধে মালদ্বীপের আইন অনুযায়ী কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

দূতাবাস সেই কারণে শাস্তি এড়াতে আন-ডকুমেন্টেড প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের জরুরি ভিত্তিতে বৈধকরণ প্রক্রিয়ায় ভিসা ও ওয়ার্ক পারমিট সংগ্রহ করার জন্য অনুরোধ করেছে। আগে পাসপোর্ট করতে পুলিশ ভেরিফিকেশন সংগ্রহ করতে হতো।

নতুন পাসপোর্ট করতে, আগের পাসপোর্ট কপি, জন্ম নিবন্ধের কপি, এনআইডির কপি, একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, পাসপোট ফি বাবদ ১১০ মার্কিন ডলার এবং বাংলাদেশে আপনার পরিবারের যে মোবাইল নাম্বারটি চালু আছে সেই নাম্বারটা নিয়ে সরাসরি হাইকমিশনার অফিসে গিয়ে জামা দিতে হবে।
উল্লেখ্য, বৈধকরণের জন্য যে শ্রমিক যেখানে কাজ করছেন সেই মালিককে ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট মিনিস্ট্রিতে আবেদন করতে হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

মালদ্বীপে হাইকমিশনার অফিসে পাসপোর্ট করতে পুলিশ ভেরিফিকেশন লাগবে না

 মোহাম্মদ মাহামুদুল, মালদ্বীপ থেকে 
২৮ মে ২০২২, ০১:০৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

২৬ মে বৃহস্পতিবার থেকে মালদ্বীপে বাংলাদেশ হাইকমিশন পুলিশ ভেরিফিকেশন ছাড়াই পাসপোর্ট জমা নিচ্ছে। পুলিশ ভেরিফিকেশনের জন্য হাজার হাজার বাংলাদেশি পাসপোর্ট বানাতে পারেনি। যাতে অতি সহজে পাসপোর্ট বানানো যায় এ ব্যাপারে মালদ্বীপে অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন অনেক প্রবাসী।

এ বিষয়ে গত ১৬ এপ্রিল বাংলাদেশের প্রিন্ট মিডিয়া যুগান্তরের  প্রবাস পাতায় একটি রিপোর্ট করা হয়। ২৬ মে বৃহস্পতিবার থেকে মালদ্বীপে বাংলাদেশ হাইকমিশন পুলিশ ভেরিফিকেশন ছাড়াই পাসপোর্ট জমা নিচ্ছে।

বাংলাদেশের অনুরোধে প্রায় ৫০ হাজার বাংলাদেশি এ সুযোগ পাবেন। সুযোগটি নেওয়ার জন্য আন-ডকুমেন্টেড বাংলাদেশিদের অনুরোধ করেছে মালের বাংলাদেশ হাইকমিশন ।

শনিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ অনুরোধ জানায় দূতাবাস। এতে বলা হয়- মালদ্বীপে বসবাসরত আন-ডকুমেন্টেড প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে, ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট মিনিস্ট্রির আওতায় বৈধকরণ প্রক্রিয়া বর্তমানে চালু রয়েছে। যাদের বৈধ ভিসা ও ওয়ার্ক পারমিট নাই তাদের দ্রুত ভিসা/ওয়ার্ক পারমিট সংগ্রহ করে মালদ্বীপে বৈধভাবে কাজ করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে। বৈধকরণ প্রক্রিয়ার সুযোগে যদি কেউ বৈধ ভিসা বা ওয়ার্ক পারমিট সংগ্রহ না করেন, তবে তার বিরুদ্ধে মালদ্বীপের আইন অনুযায়ী কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

দূতাবাস সেই কারণে শাস্তি এড়াতে আন-ডকুমেন্টেড প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের জরুরি ভিত্তিতে বৈধকরণ প্রক্রিয়ায় ভিসা ও ওয়ার্ক পারমিট সংগ্রহ করার জন্য অনুরোধ করেছে। আগে পাসপোর্ট করতে পুলিশ ভেরিফিকেশন সংগ্রহ করতে হতো।

নতুন পাসপোর্ট করতে, আগের পাসপোর্ট কপি, জন্ম নিবন্ধের কপি, এনআইডির কপি, একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, পাসপোট ফি বাবদ ১১০ মার্কিন ডলার এবং বাংলাদেশে আপনার পরিবারের যে মোবাইল নাম্বারটি চালু আছে সেই নাম্বারটা নিয়ে সরাসরি হাইকমিশনার অফিসে গিয়ে জামা দিতে হবে।
উল্লেখ্য, বৈধকরণের জন্য যে শ্রমিক যেখানে কাজ করছেন সেই মালিককে ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট মিনিস্ট্রিতে আবেদন করতে হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন